৪ মাঘ  ১৪২৮  মঙ্গলবার ১৮ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

আত্মসম্মানে আঘাত লেগেছে, কানহাইয়ার বিরুদ্ধে লড়া নিয়ে উলটো সুর গিরিরাজের

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: March 26, 2019 4:13 pm|    Updated: April 17, 2019 5:09 pm

Union Minister Giriraj Singh reluctant to fight from Begusarai

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কেন্দ্র বদল হয়েছে। তাই বেগুসরাই থেকে লড়া নিয়ে উলটো সুর কেন্দ্রীয় মন্ত্রী গিরিরাজ সিংয়ের। এর আগে গিরিরাজ লড়েছিলেন নাওয়াদা কেন্দ্রে থেকে। কিন্তু জোটের স্বার্থে ওই আসনটি ছাড়তে হয়েছে লোক জনশক্তি পার্টিকে। তাই এবার ওই কেন্দ্রের সাংসদ গিরিরাজ টিকিট পেয়েছেন বেগুসরাই থেকে। বর্ষীয়ান বিজেপি নেতার দাবি, দল তাঁর সঙ্গে যে আচরণ করেছে তাতে তাঁর আত্মাভিমানে আঘাত লেগেছে। তাঁর কথায়, “আমি লোকসভা নির্বাচন লড়তে পারলে খুশিই হব। তবে, কোনওভাবেই সেটা আত্মসম্মান খুঁইয়ে নয়।”

[আরও পড়ুন:  প্রধানমন্ত্রীর ‘যোগ্য নেতৃত্বে’ ভরসা রেখে বিজেপিতে যোগ দিলেন জয়া প্রদা]

আসলে, গতবছর বিহারে বিজেপির সাংসদ ছিলেন ২২ জন। তাঁদের অন্য জোটঙ্গীরা মিলিয়ে সংখ্যাটি দাঁড়ায় ৩১-এ। কিন্তু মুশকিল হল, এবছর নতুন জোটসঙ্গী জুটেছে গেরুয়া শিবিরের। ফের এনডিএতে শামিল হয়েছে নীতীশ কুমারের জেডিইউ। তাছাড়া রামবিলাস পাসোয়ানের এলজেপি আগে থেকেই এনডিএ-র অংশ ছিল।

দুই জোটসঙ্গীকে আসন ছাড়তে গিয়ে নিজেদের জেতা আসনেও প্রার্থী দিতে পারেনি গেরুয়া শিবির। আগেরবার যেখানে ২২ জন সাংসদ ছিলেন, এবার সেখানে বিজেপি লড়ছেই ১৭টি আসনে। তাই অন্তত পাঁচজন বর্তমান সাংসদ হয় টিকিট পাচ্ছেন না, নাহয় তাদের কেন্দ্র বদল হচ্ছে। সেই তালিকায় রয়েছেন গিরিরাজ সিংও। এর এতেই আপত্তি কেন্দ্রীয় মন্ত্রীর। তাঁর দাবি, তিনি পাঁচ বছর ধরে একটি কেন্দ্রে কাজ করছেন, সেই কেন্দ্র থেকে তাঁকে সরিয়ে নতুন জায়গায় দেওয়াটা তাঁর জন্য অপমানের। তিনি বলেন, “আমি পাঁচ বছর আমার কেন্দ্রে কাজ করেছি। আমাকে হঠাৎ নতুন কেন্দ্র দেওয়া হল। দল আর কারও সাথে এমন করেনি। আমি লোকসভা নির্বাচনে লড়তে পারলে খুশি হব তবে, সেটা কোনওভাবেই আত্মসম্মান খুঁইয়ে নয়।”

[আরও পড়ুন: রাজনীতিতে নামছেন সঞ্জয় দত্ত! জল্পনার মধ্যেই মুখ খুললেন অভিনেতা]

উল্লেখ্য, যে কেন্দ্রে গিরিরাজকে প্রার্থী করা হয়েছে, সেই কেন্দ্রে বামফ্রন্টের প্রার্থী জেএনইউয়ের প্রাক্তন ছাত্রনেতা কানহাইয়া কুমার। এই কেন্দ্রটিতে বামেদের বেশ প্রভাব রয়েছে। সংখ্যালঘুদেরও আধিক্য রয়েছে। তাছাড়া কানহাইয়া যে ভূমিহার জাতির সদস্য এই কেন্দ্রটিতে মূলত সেই ভূমিহারদেরই বাস। তাই লড়াইটা বেশ কঠিন গিরিরাজের জন্য। তাছাড়া, শোনা যাচ্ছে বেগুসরাইতে মহাজোটের তরফেও দুর্বল কোনও প্রার্থী দেওয়া হবে। যাতে কানহাইয়ার কাজটা সহজ হয়। বিরোধীদের দাবি, কঠিন লড়াই হবে বুঝতে পেরেই অজুহাত খুঁজছেন গিরিরাজ। খোদ কানহাইয়া এবং তেজস্বী যাদব দুজনেই কার্যত একই সুরে কটাক্ষ করেছেন কেন্দ্রীয় মন্ত্রীকে।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে