২ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

এবার উত্তরপ্রদেশের পুলিশ হেফাজতে যুবকের মৃত্যু, মারধরের অভিযোগ পরিবারের

Published by: Paramita Paul |    Posted: August 31, 2020 2:44 pm|    Updated: August 31, 2020 2:54 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: যোগীর রাজ্যে ফেরঅনাচারের অভিযোগ! তামিলনাড়ু পর এবার উত্তরপ্রদেশে (Uttar Pradesh) পুলিশি হেফাজতে এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে বলে অভিযোগ। এই ঘটনায় রায়বেরিলি থানার ইনচার্জকে সাসপেন্ড করা হয়েছে বলে খবর। তবে পুলিশি অত্যাচারে ওই যুবকের মৃত্যু হয়েছে বলে মানতে রাজি নয় যোগী প্রশাসন। 

রায়বেরেলি জেলায় লকআপে ১৯ বছরের যুব মোনু ওরফে মোহিতের মৃত্যু হয়। তারপরেই থানা ঘেরাও করে প্রতিবাদ শুরু করে স্থানীয় বাসিন্দারা। মোহিতের পরিবার সূত্রে খবর, শুক্রবার লালগঞ্জ এলাকা থেকে চুরির দায়ে আটক করে পুলিশ। পুলিশের দাবি, একটি বাইক চুরি চক্রের সঙ্গে যুক্ত সে। মোহিতের পরিবারের অভিযোগ, পুলিশ স্টেশনে ২৪ ঘণ্টার উপর আটক করে রাখা হয় তাকে। সেখানে অকথ্য অত্যাচার করা হয়। তাতেই মোহিতের মৃত্যু হয়। তার ভাই সোনু অভিযোগ করেছে, “পুলিশ আমাকে ও আমার দাদাকে আটক করে। তারপর আমাকে ছেড়ে দিলেও দাদাকে আটকে রাখে। ওরা মোহিতকে খুব মারধর করে।”

[আরও পড়ুন : ‘অসত্যাগ্রহী’রাই ঈশ্বরকে দোষ দেয়, অর্থনীতির নিয়ে নির্মলাকে কটাক্ষ রাহুলের]

অবশ্য এই অভিযোগ অস্বীকার করে পুলিশ। তারা বলে, রবিবার সকালে জেলা হাসপাতালে মৃত্যু হয়েছে মোহিতের। তার মধ্যে কোভিড ১৯-এর উপসর্গ দেখা যাচ্ছিল। লকআপে তার নিউমোনিয়া ও শ্বাসকষ্টের সমস্যা দেখা দেয়। রায়বেরেলির পুলিশ প্রধান স্বপ্নিল মামগাইন জানিয়েছেন, “শারীরিক অসুস্থতায় মোহিতের মৃত্যু হয়েছে। তার শরীরের বাইরে কোনও আঘাত ছিল না। ময়নাতদন্তের ভিডিও তুলেও রাখা হয়েছে।” মোহিতকে যে বেআইনিভাবে আটকে রাখা হয়েছিল, তা স্বীকার করেছেন পুলিশ সুপার। তিনি বলেন, “প্রাথমিকভাবে মনে হয়েছে ওই যুবককে ২৪ ঘণ্টার উপর বেআইনিভাবে আটকে রাখা হয়েছিল। এভাবে বেআইনিভাবে আটকে রাখার অভিযোগে পুলিশ স্টেশনের আধিকারিককে বরখাস্ত করার হয়েছে।”

[আরও পড়ুন : করোনা আবহে এবার এটিএমেই মিলবে চাল, কোথায় মিলবে এই পরিষেবা?]

 

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement