১২ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৬  সোমবার ২৭ মে ২০১৯ 

Menu Logo নির্বাচন ‘১৯ দেশের রায় LIVE রাজ্যের ফলাফল LIVE বিধানসভা নির্বাচনের রায় মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: কৈশোর থেকে যৌবনে পা বাড়ানো ছেলে৷ বন্ধুবান্ধবদের পাল্লায় পড়ে বেলাগাম খরচ করত সে৷ অনিয়ন্ত্রিত জীবনযাত্রায় রাশ টানতে চেয়েছিলেন মা৷ এটাই ছিল মা-ছেলে দ্বন্দ্বের মূল কারণ৷ সম্পর্কের অবনতি হচ্ছিল৷ কিন্তু তা বলে মাকে যে খুন পর্যন্ত করতে পারে ছেলে তা ভাবতেও পারেননি কেউই৷ বাঁশদ্রোণীতে গৃহবধূ খুনের ঘটনায় ছেলেকে জেরার পর এমনই তথ্য পেল রিজেন্ট পার্ক থানার পুলিশ৷ গুণধর ছেলেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে৷ 

[ আরও পড়ুন: ঘরের ভিতর মাথা থেঁতলে খুন যুবক, কারণ নিয়ে ধন্দে পুলিশ]

গত বুধবার বাঁশদ্রোণীর বাড়ি থেকে উদ্ধার করা হয় মমতা আগরওয়াল নামে এক গৃহবধূর দেহ৷ খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে পৌঁছায় রিজেন্ট পার্ক থানার পুলিশ৷ দেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠানো হয়৷ কীভাবে মারা গেলেন মহিলা? খুন নাকি আত্মহত্যা? কে বা কারা এই ঘটনার সঙ্গে জড়িত? গৃহবধূর মৃত্যুতে মাথাচাড়া দেয় নানা প্রশ্ন৷ তদন্তে নেমে মমতা আগরওয়ালের ছেলে আয়ুষকে জেরা করে পুলিশ৷ কীভাবে মা মারা গেলেন, সে বিষয়ে প্রথমে কিছুই বলতে চায়নি ওই যুবক৷ তবে দীর্ঘক্ষণ পুলিশি জেরায় ভেঙে পড়ে সে৷ মাকে শ্বাসরোধ করে খুনের কথা স্বীকার করে নেয় আয়ুষ৷ পুলিশকে সে জানায়, বেলাগাম খরচে বাধা দিতেন মা৷ এছাড়াও দিনকয়েক আগে একটি বাইক কিনেছিল আয়ুষ৷ সেই বাইকটি বিক্রি করার ইচ্ছা ছিল তার৷ কিন্তু তাতে বাধা দিয়েছিলেন ওই গৃহবধূ৷ তাতেই মায়ের সঙ্গে বিবাদ তৈরি হয় আয়ুষের৷ গত বুধবারও মায়ের সঙ্গে ঝগড়াঝাটি হয়েছিল তার৷ উত্তেজিত হয়েই শ্বাসরোধ করে মাকে খুন করেছে, স্বীকারোক্তি দেয় সে৷

[ আরও পড়ুন: হাত-মুখ বাঁধা অবস্থায় কেষ্টপুরে উদ্ধার ঝাড়খণ্ডের মহিলার দেহ, ঘনাচ্ছে রহস্য]

পুলিশ সূত্রে খবর, ময়নাতদন্ত রিপোর্টে মিলেছে শ্বাসরোধ করে খুনের প্রমাণ৷ আরও নিশ্চিত হওয়ার জন্য আপাতত ভিসেরা রিপোর্টের অপেক্ষায় তদন্তকারীরা৷ এদিকে, স্বীকারোক্তির পর গৃহবধূর ছেলে আয়ুষকে গ্রেপ্তার করেছে রিজেন্ট পার্ক থানার পুলিশ৷ শনিবার আদালতে তোলা হবে তাকে৷ ধৃতকে নিজেদের হেফাজতে নিয়ে আরও জিজ্ঞাসাবাদ করার চিন্তাভাবনা করছে পুলিশ৷

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং