BREAKING NEWS

৪ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

‘রবিঠাকুর নিয়ে লড়াই নয়’, বিশ্বভারতী কাণ্ডে রাজ্যপালের সঙ্গে দেখা করে বার্তা সৌমিত্রর

Published by: Sayani Sen |    Posted: August 22, 2020 12:39 pm|    Updated: August 22, 2020 1:44 pm

An Images

রূপায়ণ গঙ্গোপাধ্যায়: বিশ্বভারতী কাণ্ড নিয়ে আপাতত সরগরম রাজ্য রাজনীতি। রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা নিয়ে প্রশ্ন তুলে এবার রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়ের (Jagdeep Dhnakhar) দ্বারস্থ বিজেপি যুব মোর্চা। শনিবার সকালে বাঁকুড়ার বিষ্ণুপুরের সাংসদ তথা রাজ্য যুব মোর্চার সভাপতি সৌমিত্র খাঁ’র নেতৃত্বে বিজেপি প্রতিনিধিরা রাজভবনে যান। বিশ্বভারতীতে ভাঙচুরের ঘটনা নিয়ে রাজ্যের সাংবিধানিক প্রধানের সঙ্গে কথা বলেন তাঁরা।

আচমকা কেন বিশ্বভারতীতে ভাঙচুর করা হল, তা নিয়ে সংশয় প্রকাশ করেন বাঁকুড়ার বিষ্ণুপুরের সাংসদ তথা রাজ্য যুব মোর্চার সভাপতি সৌমিত্র খাঁ (Saumitra Khan)। আইনের দ্বারস্থ না হয়ে নিজেদের হাতে আইন তুলে নেওয়া যে তাঁর একেবারে নাপসন্দ তাও এদিন জানান তিনি। এছাড়াও বিজেপি সাংসদ বলেন, “রবিঠাকুরকে নিয়ে লড়াই করতে চাই না।” বিশ্বভারতী কাণ্ডে ব্যবস্থা নেওয়া না হলে গণেশ চতুর্থীর পর থেকে প্রতিদিন সন্ধেয় রবীন্দ্রনাথের ছবির সামনে মোমবাতি প্রজ্জ্বলন করা হবে বলেই জানান তিনি। সৌমিত্র খাঁ বলেন, “মোমবাতি জ্বালিয়ে বলব ঠাকুর তোমার সেই সোনার বাংলা ফিরিয়ে দাও। এই বাংলায় অবনতি শুরু হয়েছে। আমরা তার বিরুদ্ধে রাস্তায় নামব।”

[আরও পড়ুন: বেআইনি অস্ত্র কারবারের পর্দাফাঁস, আগ্নেয়াস্ত্র ও গুলি-সহ পাকড়াও রাজ্যের বিজেপি নেতা]

গত সোমবার, শান্তিনিকেতনের মেলার মাঠে উপাচার্য নিজে দাঁড়িয়ে থেকে পাঁচিল তোলার কাজ করছিলেন। কিন্তু স্থানীয়দের একাংশ রীতিমত পে-লোডার নিয়ে গিয়ে তা ভেঙে দেয়। পড়াশোনার মুক্ত পরিবেশে কেন পাঁচিল উঠবে, এই প্রশ্ন তুলেই ভেঙে ফেলা হয় নির্মাণ। এই ঘটনা ঘিরে এবার নজিরবিহীন এক পরিস্থিতির মুখে পড়ে দেশের ঐতিহ্যমণ্ডিত কেন্দ্রীয় বিশ্ববিদ্যালয় বিশ্বভারতী। সেই জল এখনই গড়িয়েছে অনেকটা দূর। ঘটনায় রাজনীতির রং লাগার অভিযোগ উঠেছে। প্রধানমন্ত্রীর দপ্তরে (PMO) নালিশ ঠুকেছে বিশ্বভারতী কর্তৃপক্ষ। সেই ঘটনার রেশ ধরেই শনিবার রাজ্যপালের সঙ্গে সাক্ষাৎ বিজেপি নেতৃত্বের।

দেখুন ভিডিও:

[আরও পড়ুন: জাতীয় পতাকার আদলে তৈরি কেক কেটে জন্মদিন পালন, বিতর্কে মালদহের তৃণমূল নেত্রী]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement