১৬ অগ্রহায়ণ  ১৪২৯  শনিবার ৩ ডিসেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

মন্ত্রী-অসংগঠিত শ্রমিক সংগঠনের বৈঠকে মেটেনি সমস্যা, বিক্ষোভে রণক্ষেত্র নেতাজি ইন্ডোর

Published by: Sayani Sen |    Posted: December 28, 2020 4:40 pm|    Updated: December 28, 2020 4:50 pm

Clashes between unorganised workers and police in front of Kolkata's Netaji Indoor Stadium ।Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: অসংগঠিত শ্রমিক সংগঠনের সদস্যদের বিক্ষোভ নেতাজি ইন্ডোর স্টেডিয়ামের (Netaji Indoor Stadium) সামনে ধুন্ধুমার। চেয়ার ভাঙচুর, পথ অবরোধে কার্যত রণক্ষেত্রের চেহারা নেয় এলাকা। বাধা দিতে গেলে পুলিশের সঙ্গেও ধস্তাধস্তিতে জড়িয়ে পড়ে বিক্ষোভকারীরা। প্রায় ঘণ্টাখানেক কেটে গেলেও এখনও পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব হয়নি। 

করোনা পরিস্থিতিতে অসংগঠিত শ্রমিক সংগঠনের সদস্যদের আয় প্রায় তলানিতে ঠেকেছে। এই পরিস্থিতিতে সোমবার নেতাজি ইন্ডোরে একটি বৈঠক ডেকেছিলেন মলয় ঘটক এবং ফিরহাদ হাকিম। অসংগঠিত শ্রমিক সংগঠনের দাবি, বৈঠকে মেলেনি আশানুরূপ কোনও সমাধানসূত্র। তাতেই উত্তেজিত হয়ে পড়েন তাঁরা। মলয় ঘটক এবং ফিরহাদ হাকিমের সামনেই চেয়ার ভাঙচুর করতে শুরু করেন। এরপর নেতাজি ইন্ডোর স্টেডিয়ামের সামনের রাস্তায় বসে পড়ে বিক্ষোভ দেখাতে শুরু করে তারা। স্টেডিয়ামের সামনে লাগানো ফ্লেক্স, ব্যানারও ছিঁড়তে থাকে বিক্ষোভকারীরা। বেশ কিছুক্ষণ অবরোধের প্রভাব পড়ে যান চলাচলেও। বাধ্য হয়ে পরিস্থিতি সামাল দিতে এগিয়ে আসে বিশাল পুলিশবাহিনী। ব্যারিকেড করে দেওয়া হয়। সেই ব্যারিকেড ভেঙে এগোতে থাকে বিক্ষোভকারীরা। তাতে পুলিশের সঙ্গে হাতাহাতিতে জড়িয়ে পড়েন তারা। পুলিশের (Police) বিরুদ্ধে হেনস্তার অভিযোগে সরব মহিলা বিক্ষোভকারীরা। 

[আরও পড়ুন: ‘নন্দীগ্রামে গেলেই মুশকিল তা বুঝে গিয়েছেন’, সভা স্থগিত নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীকে খোঁচা দিলীপের]

মন্ত্রীদের সামনে অসংগঠিত শ্রমিক সংগঠনের বিক্ষোভে স্বাভাবিকভাবেই অস্বস্তি তৈরি হয়েছে। ঘণ্টাখানেক পেরিয়ে গেলেও পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব হয়নি। পুলিশ পরিস্থিতি সামাল দেওয়ার চেষ্টা করছে। বিক্ষোভকারীদের একপক্ষের সঙ্গে আপাতত আলোচনায় বসেছেন উর্দিধারীরা। এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে পুর ও নগরোন্নয়ন মন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম (Firhad Hakim) বলেন, “যে দাবি করেছেন তাঁরা তা মানা যায় না। মলয়দা দায়িত্ববান ব্যক্তি। তিনি ঠিক বিষয়টি সামলে নেবেন।”

[আরও পড়ুন: কলকাতায় আজও জাঁকিয়ে শীত, বছরের শেষ সপ্তাহে ঠান্ডার আমেজ দুই বঙ্গেও]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে