৪ শ্রাবণ  ১৪২৬  শনিবার ২০ জুলাই ২০১৯ 

Menu Logo বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: নবান্নে দীর্ঘ বৈঠকেও সমাধানসূত্র অধরা। শনিবার বিকেলে ফের সিনিয়র ডাক্তারদের বৈঠকে ডেকেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বৈঠক শেষে প্রতিনিধি দলের নেতা সুকুমার মুখোপাধ্যায় বলেন, ‘আমরা চাই দ্রুত সমস্যার সমাধান হোক। বৈঠকে চূড়ান্ত কোনও সিদ্ধান্ত হয়নি। আগামিকাল ফের বৈঠকে ডেকেছেন মুখ্যমন্ত্রী।’ 

[আরও পড়ুন:হাসপাতালে গিয়ে পরিবহকে দেখে এলেন রাজ্যপাল, রাজভবনে তলব মুখ্যমন্ত্রীকে]

এনআরএস কাণ্ডের প্রতিবাদে জুনিয়র ডাক্তারদের কর্মবিরতিতে বিপর্যস্ত রাজ্যের স্বাস্থ্য ব্যবস্থা। স্রেফ চিকিৎসার অভাবে প্রাণহানির ঘটনা ঘটেছে। কিন্তু নিজেদের অবস্থানেই এখনও অনড় জুনিয়র ডাক্তাররা। বরং আন্দোলন প্রত্যাহারে জন্য মুখ্যমন্ত্রীর হুঁশিয়ারির প্রতিবাদে গণইস্তফা দিচ্ছেন ডাক্তাররা। আন্দোলনকারীদের পাশে দাঁড়িয়েছে বুদ্ধিজীবী মহলও। শুক্রবার এনআরএস কাণ্ডের প্রতিবাদে ডাক্তারদের মিছিলেও হেঁটেছেন অপর্ণা সেন, বিনায়ক সেন, কমলেশ্বর মুখোপাধ্যায়ের মতো শহরের বহু খ্যাতনামা ও বিশিষ্ট মানুষ। পরিস্থিতি যে ক্রমশ জটিল হচ্ছে, তা আঁচ করে শুক্রবার বিকেলে শহরের ৬ জন প্রবীণ চিকিৎসককে নবান্নে ডেকে পাঠান মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। প্রতিনিধি দলের নেতৃত্বে ছিলেন সুকুমার মুখোপাধ্যায়।

বৈঠক চলাকালীন আন্দোলনকারীদের ৪ জন প্রতিনিধিকে নবান্নে ডেকে পাঠানোর সিদ্ধান্ত নেন মুখ্যমন্ত্রী। কিন্ত সন্ধেবেলা যখন মুখ্যমন্ত্রীর বার্তা নিয়ে এনআরএসে পৌঁছান স্বাস্থ্য শিক্ষা অধিকর্তা প্রদীপ মিত্র, তখন জুনিয়র ডাক্তারদের বিক্ষোভের মুখে পড়েন তিনি। আন্দোলনকারীরা সাফ জানিয়ে দিয়েছেন, এত তাড়াতাড়ি তাঁদের পক্ষে মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে বৈঠকে প্রতিনিধি পাঠানো সম্ভব নয়। নবান্নে দীর্ঘক্ষণ অপেক্ষা করার পর ফিরে যেতে হয় মুখ্যমন্ত্রী ও সিনিয়র ডাক্তারদের প্রতিনিধিদলকে। শনিবার বিকেল পাঁচটায় ফের বৈঠক হবে। বৈঠকে এনআরএসের আন্দোলনকারীদের প্রতিনিধিরাও হাজির থাকতে পারেন বলে জানা গিয়েছে।

[আরও পড়ুন: গ্রীষ্মের দাপটে নাভিশ্বাস আমজনতার, উষ্ণতার নিরিখে রেকর্ড গড়ল কলকাতা

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং