BREAKING NEWS

১০ অগ্রহায়ণ  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ২৬ নভেম্বর ২০২০ 

Advertisement

টার্গেট ২০০ আসন, একুশের ব্লু-প্রিন্ট সাজাতে অমিত শাহর সফরের পরই দিল্লিতে মুকুল, দিলীপ

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: November 8, 2020 9:15 pm|    Updated: November 8, 2020 9:19 pm

An Images

রূপায়ণ গঙ্গোপাধ্যায়: কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহর ২ দিনের বঙ্গ সফরের পরই দিল্লি গেলেন মুকুল রায় (Mukul Roy)। রবিবারই তিনি দিল্লি পৌঁছেছেন। সোমবার সকালে দিল্লি পৌঁছনোর কথা বিজেপি রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষের (Dilip Ghosh)। সূত্রের খবর, জরুরি সাংগঠনিক বৈঠকে তাঁদের দিল্লিতে ডেকে পাঠানো হয়েছে মুকুল রায় ও দিলীপ ঘোষকে। সোমবারই দিল্লিতে কেন্দ্রীয় নেতাদের সঙ্গে রাজ্য নেতৃত্বের বৈঠক হওয়ার কথা।

গত ৬ তারিখ অমিত শাহ দু’দিনের সফর শেষ করে যাওয়ার সময়েই দিলীপ ঘোষ, মুকুল রায়দের ৯ নভেম্বর দিল্লি যাওয়ার কথা বলেছিলেন। রবিবার রাতেই দিল্লি পৌঁছে গিয়েছেন দলের সর্বভারতীয় সহসভাপতি মুকুল রায় এবং রাজ্য বিজেপির সাধারণ সম্পাদক (সংগঠন) অমিতাভ চক্রবর্তী। সোমবার সকালে দিল্লি পৌঁছবেন দিলীপ ঘোষের। রাজ্য সফর শেষ করে অমিত শাহ দিল্লি ফেরার পরই ঠিক কী কারণে বঙ্গ বিজেপির (BJP) তিন শীর্ষ নেতাকে বৈঠকে ডেকে পাঠানো হল, তা নিয়ে জল্পনা শুরু হয়ে গিয়েছে। ২০২১ এর বিধানসভা নির্বাচনকে সামনে রেখে রাজ্য সংগঠনে আবার কোনও রদবদল বা কোনও গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত হতে পারে কিনা, তা নিয়ে রাজ্য বিজেপির অন্দরে চর্চা শুরু হয়েছে।

[আরও পড়ুন: বুধবার থেকে বন্ধ হচ্ছে স্টাফ স্পেশ্যাল ট্রেন, রেলের সিদ্ধান্তে ক্ষুব্ধ কর্মীরা]

সূত্রের খবর, ২০২১কে পাখির চোখ করে বাংলায় দলের ব্লু-প্রিন্ট সাজাচ্ছেন অমিত শাহ নিজেই। রাজ্যে দুদিনের সফরে এসে দফায় দফায় বিভিন্ন জেলার কার্যকর্তাদের সঙ্গে বৈঠক করে ২০০ আসনের টার্গেট বেঁধে দিয়েছেন। রুদ্ধদ্বার বৈঠকে তিনি বার্তা দিয়েছে, শুধু তৃণমূলের ব্যর্থতার সমালোচনা না করে মোদির সাফল্যকে ভোটে প্রচারে তুলে ধরতে। এবার সেসব আরও বিস্তারিত আকারে ছকে দিতে পারেন মোদির সবচেয়ে বড় ভোট ম্যানেজার। হয়ত সে জন্যই দিলীপ ঘোষ, মুকুল রায়, অমিতাভ চক্রবর্তীদের দিল্লিতে ডাকা হয়েছে। বলে মনে করা হচ্ছে।

[আরও পড়ুন: ‘তৃণমূলের অবস্থা বাঁধাকপির মতো, পাতা ছাড়াতে ছাড়াতে দু’জন পড়ে থাকবে’, তোপ দিলীপের]

যদিও বিষয়টি নিয়ে বেশি কিছু বলতে নারাজ বঙ্গ বিজেপি নেতৃত্ব। রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ জানিয়েছেন, এটি সাংগঠনিক বৈঠক। অমিত শাহ নিজে থাকবেন কি না, জানা নেই। তবে সংগঠন নিয়ে কিছু পরিকল্পনা হবে। রবিবার এক সংবাদমাধ্যমে সাক্ষাৎকার দিতে গিয়ে দিলীপ ঘোষ এও বলেছেন, ”অমিত শাহ যা বলে গিয়েছেন, ২০০ আসন পেয়েই দেখাব আমরা। পশ্চিমবাংলায় যদি কারও সংগঠন থাকে বুথে বুথে, সেটা বিজেপিরই।” এখন দিল্লির দরবারে ‘হেড স্যর’-এর বিশেষ নির্দেশের অপেক্ষায় রাজ্যের পদ্ম শিবির।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement