৩ মাঘ  ১৪২৮  সোমবার ১৭ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

জাল মার্কশিট চক্রের পাণ্ডা খোদ কলেজ ছাত্র, তাজ্জব তদন্তকারীরা

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: July 29, 2017 5:17 am|    Updated: July 29, 2017 5:21 am

Fake marksheet racket in Asutosh College busted

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পরীক্ষার্থী পেয়েছে ৫০ শতাংশ নম্বর। জালিয়াতদের হাতযশে সেই নম্বর বেড়ে দাঁড়ায় ৬০ শতাংশ। প্রথম শ্রেণির নম্বর দেখিয়ে আশুতোষ কলেজে ভর্তি হতে গিয়ে বিপাকে পড়েছিল এক ছাত্র। তাঁর অভিযোগ খতিয়ে দেখতে গিয়ে অবাক তদন্তকারীরা। দেখা গেল খোদ আশুতোষ কলেজের ছাত্র এই প্রতারণা চক্রের সঙ্গে জড়িয়ে। হাওড়ার গোলাবাড়ি থেকে অভিযুক্ত ছাত্র ও তার চার সঙ্গীকে ভবানীপুর থানার পুলিশ গ্রেপ্তার করেছে। ধৃতদের থেকে মিলেছে বেশ কিছু জাল মার্কশিট, স্ট্যাম্প-সহ কিছু গুরুত্বপূর্ণ সামগ্রী।

[মাত্র ৩৫ হাজারে শহরের বাজারে মিলছে অটোমেটিক পিস্তল]

ভুয়ো মার্কশিট দেখিয়ে আশুতোষ কলেজে ভর্তি চলছে। সম্প্রতি ভবানীপুর থানার পুলিশের কাছে এমন অভিযোগ এসেছিল। এক ছাত্র জানিয়েছিলেন তাঁর থেকে লক্ষাধিক টাকা নিয়ে ভুয়ো মার্কশিট বানিয়ে দেয় একজন। এই চক্রের খোঁজ করতে গিয়ে পুলিশ তাজ্জব বনে যায়। জানতে পারে আশুতোষ কলেজের এক ছাত্র এর অন্যতম পাণ্ডা। যার নাম সইফ খান। সইফ আশুতোষ কলেজের বিএসএসির থার্ড ইয়ারে পড়াশোনা করে। অভিযোগ সইফ কয়েকজন পরিচিতকে নিয়ে জাল মার্কশিটের কারবার শুরু করে। হাওড়ার গোলাবাড়ি এলাকা থেকে সইফ সহ-পাঁচজনকে ভবানীপুর থানার পুলিশ গ্রেপ্তার করেছে। পুলিশ জানতে পেরেছে, ওই পাঁচজন এক থেকে দুই লক্ষ টাকার বিনিময়ে জাল মার্কশিটের কারবার করত। ধৃতদের থেকে জাল মার্কশিট ও স্ট্যাম্প বাজেয়াপ্ত করা হয়েছে।

[ফেল করেও ভরতির দাবিতে উপাচার্যকে হেনস্তা]

বছর দুয়েক আগে থেকে আশুতোষ কলেজে অনলাইনে ভর্তি নেওয়া শুরু হয়। কয়েকটি বিভাগে ভর্তির ন্যূনতম যোগ্যতা ৬০ শতাংশ নম্বর। অভিযোগ সইফ ও তার সঙ্গীরা জাল মার্কশিট বানিয়ে নম্বর ৬০ শতাংশ বা প্রয়োজনে তার বেশি করে দিত। তাদের হাতযশে কলেজ কর্তৃপক্ষও প্রথমে বিষয়টি বুঝতে পারেনি। এক অভিযোগের তদন্তে পুলিশ গোটা বিষয় জানতে পারে। ধৃত পাঁচজনকে আলিপুর আদালতে এদিন পেশ করা হবে। অভিযুক্তদের নিজেদের হেফাজতে রাখার আবেদন জানাবে পুলিশ। এই নিয়ে কলেজ কর্তৃপক্ষের সঙ্গে পুলিশ যোগাযোগ করেছে। যারা প্রতারিত হয়েছেন তাদের সঙ্গে তদন্তকারীরা কথা বলতে চাইছেন। পাশাপাশি এমন ঘটনা আরও কিছু হয়েছে কিনা তাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে। এভাবে তদন্তের জাল গোটাতে চাইছে ভবানীপুর থানা।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে