৭ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৬  মঙ্গলবার ২১ মে ২০১৯ 

Menu Logo নির্বাচন ‘১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও #IPL12 ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

রূপায়ণ গঙ্গোপাধ্যায় ও ধ্রুবজ্যোতি বন্দ্যোপাধ্যায়: বিদ্যাসাগর কলেজে ভাঙচুরের মতো নিন্দনীয় ঘটনার নেপথ্যে সরাসরি বিজেপি সর্বভারতীয় সভাপতির মদত আছে৷ বুধবার এই মর্মে আর্মহার্স্ট স্ট্রিট থানায় অমিত শাহর বিরুদ্ধে এফআইআর দায়ের করলেন বিদ্যাসাগর কলেজের পড়ুয়ারা৷ মঙ্গলবার সন্ধেয় বিদ্যাসাগরের মূর্তি ভাঙচুরের ঘটনায় জড়িত সন্দেহে এখনও পর্যন্ত ১১৬ জন বিজেপি কর্মী, সমর্থককে গ্রেপ্তার করা হয়েছে বলে দাবি করছেন উত্তর কলকাতায় দলের জেলা সভাপতি দীনেশ পাণ্ডে৷ তাদের আজ ব্যাংকশাল আদালতে পেশ করা হবে৷ তাই আদালত চত্বর সকাল থেকেই নিরাপত্তার বলয়ে ঘিরে রাখা হয়েছে৷

[আরও পড়ুন: কাদের হাতে চূূর্ণ বিদ্যাসাগর মূর্তি? ভাইরাল ভিডিও-তে স্পষ্ট গেরুয়াধারীদের তাণ্ডব]

অন্যদিকে,বুধবার ঘটনার প্রতিবাদ জানাতে রাজ্যপালের দ্বারস্থ হতে চলেছে রাজ্য বিজেপি নেতৃত্ব৷ রাজ্যের শাসকদলের বিরুদ্ধে অভিযোগ জানাবেন নেতারা৷ আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির অবনতি এবং অমিত শাহর রোড শো ঘিরে পুলিশের ভূমিকার কঠোর নিন্দা ইতিমধ্যেই জানিয়েছেন বিজেপি রাজ্যস্তরের নেতারা৷ সেসবই ফের রাজ্যপালের দরবারে তাঁরা তুলে ধরতে পারেন বলে সূত্রের খবর৷  

গতকাল কলেজ স্ট্রিট থেকে অমিত শাহর রোড শো বিধান সরণির দিকে এগোতেই  বিদ্যাসাগর কলেজের সামনে ধুন্ধুমার বেঁধে যায় টিএমসিপি সদস্যদের সঙ্গে মিছিলে অংশগ্রহণকারী বিজেপি কর্মী, সমর্থকদের৷ কলেজের সান্ধ্যকালীন ক্লাস চলাকালীন ভিতরে ঢুকে দুষ্কৃতীরা ভাঙচুর চালায়৷ দরজা, জানলা, ক্লাসরুমের ক্ষতি করার পাশাপাশি ভেঙে টুকরো করে ফেলা হয় ঐতিহ্যবাহী ঈশ্বরচন্দ্র বিদ্যাসাগরের মূর্তিটি৷ আর এসবের পিছনে অমিত শাহর রোড শো-কেই দায়ী করছে তৃণমূল ছাত্র পরিষদ৷ তাঁদের অভিযোগ, বিজেপি সর্বভারতীয় সভাপতির সামনেই এমন তাণ্ডব চালিয়েছে বিজেপি কর্মী, সমর্থকরা৷ তিনি নীরব ছিলেন৷ তাই তাঁর বিরুদ্ধেই অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে৷

[আরও পড়ুন: ‘বিজেপির কাজে আমরা লজ্জিত, ক্ষমাপ্রার্থী’, বিদ্যাসাগরের মূর্তি ভাঙা নিয়ে তীব্র শ্লেষ মমতার]

এদিকে বিদ্যাসাগরের মূর্তি ভাঙার প্রতিবাদে আজ বিকেলে ধিক্কার মিছিলে হাঁটবেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ বেলেঘাটার গান্ধী ভবন থেকে সিমলা স্ট্রিটে বিবেকানন্দের বাড়ি হয়ে শ্যামবাজার পর্যন্ত পদযাত্রা হবে৷ সাড়ে চারটে নাগাদ শুরু হওয়া মিছিলে বিভিন্ন মনীষীর ছবি হাতে হাঁটবেন মুখ্যমন্ত্রী৷ ইতিমধ্যেই জেলায় জেলায় তৃণমূলের তরফে ধিক্কার মিছিল শুরু হয়েছে৷ অপরদিকে, ঘটনার তীব্র ধিক্কার জানিয়েছে রাজ্য বামফ্রন্টও৷ বুধবার সকালে এনিয়ে পথে নেমেছেন বিমান বসু, সীতারাম ইয়েচুরিরা৷ কলেজ স্কোয়ারে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের সামনে প্রতিবাদে সরব হন তাঁরা৷ বিমান বসুর কথায়, ‘বহু ইতিহাস, সংস্কৃতি বিজড়িত কলেজে ভাঙচুর, মূর্তি ভাঙার পিছনে কারা দায়ী, তা স্পষ্ট নয়৷ ঘটনার প্রকৃত, নিরপেক্ষ তদন্ত হওয়া উচিত৷’ সবমিলিয়ে, শেষ দফায় শহরে ভোটের আগে বিদ্যাসাগর মূর্তি চুরমার হওয়ার ঘটনায় নতুন করে রাজনৈতিক পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে উঠেছে৷ 

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং