BREAKING NEWS

২৪ বৈশাখ  ১৪২৮  শনিবার ৮ মে ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

করোনা রুখতে কড়া পদক্ষেপ, চার রাজ্য থেকে বাংলায় প্রবেশে লাগবে নেগেটিভ রিপোর্ট

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: April 14, 2021 1:26 pm|    Updated: April 14, 2021 1:26 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ক্রমশ ভয়াবহ হচ্ছে দেশের করোনা (Coronavirus) পরিস্থিতি। হু হু করে বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা। একই অবস্থা পশ্চিমবঙ্গের। তাই পরিস্থিতি আয়ত্তে আনতে এবার কড়া হচ্ছে রাজ্য। চার রাজ্য অর্থাৎ মহারাষ্ট্র, কর্নাটক, কেরল এবং তেলেঙ্গানা থেকে বাংলায় প্রবেশ করতে লাগবে কোভিড নেগেটিভ রিপোর্ট। যাত্রা শুরুর ৭২ ঘণ্টা আগে টেস্ট করা হলে সেই রিপোর্ট গ্রহণযোগ্য হবে। 

দেশের বর্তমান করোনা পরিস্থিতি এতটাই ভয়াবহ যে তা আমেরিকাকেও কার্যত চ্যালেঞ্জ করছে। গত বছর সবচেয়ে ভয়াবহ সময়েও এই পরিস্থিতির ধারেকাছে ছিল না ভারত। বুধবার সকালে স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রকের (Ministry of Health and Family Welfare) দেওয়া পরিসংখ্যান বলছে, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে ১ লক্ষ ৮৪ হাজার ৩৭২ জন করোনা (Coronavirus) আক্রান্ত হয়েছেন। যা আগের দিনের থেকে প্রায় ২৩ হাজার বেশি। এই সংখ্যাটা দেশের সর্বকালের সর্বোচ্চ। আপাতত দেশে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ১ কোটি ৩৮ লক্ষ ৭৩ হাজার ৮২৫ জন। স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রকের দেওয়া পরিসংখ্যান অনুযায়ী, আপাতত মৃতের সংখ্যা ১ লক্ষ ৭২ হাজার ৮৫ জন। এর মধ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যু হয়েছে ১ হাজার ২৭ জনের। যা সাম্প্রতিক অতীতে সর্বোচ্চ।

[আরও পড়ুন: মমতার সভার আগেই করোনা আক্রান্ত জলপাইগুড়ির প্রার্থী, সতর্ক হচ্ছে সব দলই]

করোনার দ্বিতীয় ঢেউয়ে সবচেয়ে খারাপ পরিস্থিতি মহারাষ্ট্রে (Maharashtra)। ইতিমধ্যেই সেখানে ১৫ দিনের জনতা কারফিউ (Janta Curfew) ঘোষণা করা হয়েছে। মহারাষ্ট্রের করোনা পরিস্থিতি নিয়ে আশঙ্কায় গোটা দেশ। মার্চ মাস থেকে মহারাষ্ট্রে অক্সিজেনের চাহিদা প্রচণ্ডভাবে বেড়েছে। এতে চিন্তা জাহির করেছেন পুণের অক্সিজেন সিলিন্ডারের ব্যবসায়ীরা। হাসপাতালগুলিতে ৯৫ শতাংশ অক্সিজেনের জোগান দেন তাঁরা। কিন্তু এই বাড়তি চাহিদা মেটাতে হিমশিম খেতে হচ্ছে তাঁদের। জটিল কর্নাটক, কেরল এবং তেলেঙ্গানার পরিস্থিতিও।

[আরও পড়ুন: দার্জিলিংয়ের চিড়িয়াখানায় নতুন অতিথি, ৩ ফুটফুটে সন্তানের জন্ম দিল স্নো লেপার্ড]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement