১২ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  সোমবার ২৯ নভেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

ভাষণ নিয়ে জট কাটার আগেই নয়া সংঘাত, এবার বাজেটের নথি দেখতে চাইলেন রাজ্যপাল

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: February 6, 2020 9:01 am|    Updated: February 6, 2020 9:11 am

Fresh clash between Govt. and Governor as he wants to see the budget documents

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: রাজ্য বাজেট নিয়ে ফের সংঘাতের পথে রাজ্য-রাজ্যপাল। আগামী ৭ তারিখ বিধানসভার বাজেট অধিবেশনের সূচনায় রাজ্যের খসড়া করে দেওয়া ভাষণই রাজ্যপাল পড়বেন কি না, তা ঘিরে সংশয় দেখা গিয়েছিল আগেই। এবার তাতে যুক্ত হল বাজেটের পূর্ণাঙ্গ নথি রাজ্যপালের দেখতে চাওয়ার দাবি।

সূত্রের খবর, আসন্ন অধিবেশনে কী কী বিল পেশ হবে, তার বিস্তারিত নথি দেখতে চেয়েছেন জগদীপ ধনকড়। কিন্তু রাজ্যের পালটা যুক্তি, বাজেটের নথি অত্যন্ত গোপনীয়। শুধুমাত্র বিশেষ কয়েকটি গুরুত্বপূর্ণ বিল ছাড়া বাজেট পেশের আগে খুঁটিনাটি দেখানো যায় না। বাজেটের প্রয়োজনীয় অংশ রাজ্যপালকে দেখানোর প্রস্তাব দিয়েছিলেন মুখ্যসচিব। কিন্তু তাতে নারাজ ধনকড়। জানা গিয়েছে, অর্থবিল বিস্তারিত দেখার দাবি করে তিনি জানতে চান, বিভিন্ন প্রকল্পে বরাদ্দ অর্থের সংস্থান কোথা থেকে হবে, তার কী উৎস, এসব খুঁটিনাটিও। যা নিয়ে বাড়ছে জটিলতা।

[আরও পড়ুন: লাগাতার ঘেরাওয়ে অসুস্থ প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য, ভরতি হাসপাতালে]

তবে তার চেয়ে অধিকতর গুরুত্বপূর্ণ আলোচ্য বিষয় এই মুহূর্তে, বাজেটের সূচনা ভাষণে কি সরকারের প্রশংসায় পঞ্চমুখ হবেন রাজ্যপাল? রাজ্যের পরিস্থিতি নিয়ে ইতিমধ্যে বেশ কয়েকবার সরকারের সমালোচনায় যেভাবে সরব হয়েছেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়, রাজভবনের লনে দাঁড়িয়ে এই নিয়ে যে গুরুত্বপূর্ণ ইঙ্গিত তিনি দিয়েছেন, তার ভিত্তিতেই এই জল্পনা বাড়ছে। ফলত, ৭ ফেব্রুয়ারি বিধানসভার বাজেট অধিবেশনে তিনি সরকারের প্রশংসা করেন কি না, সেদিকে তাকিয়ে রাজনৈতিক মহল, রাজ্যবাসীও।

শুক্রবার থেকে বিধানসভায় শুরু হচ্ছে চলতি বছরের বাজেট অধিবেশন। রাজ্যপালের ভাষণ দিয়ে এই বাজেট অধিবেশন শুরু হয়, এটাই রীতি। সাধারণত দেখা যায়, রাজ্য সরকারের প্রকল্প, কর্মসূচি, পরিকল্পনা, বরাদ্দ, উন্নয়ন সংক্রান্ত বিভিন্ন বিষয় উঠে আসে রাজ্যপালের বক্তব্যে। সেক্ষেত্রে রাজ্য সরকারের কাজ নিয়ে ইতিবাচক ভাষণই দিয়ে থাকেন রাজ্যপাল। সরকারের তরফে এই ভাষণের একটি খসড়া রাজভবনে পাঠানো হয়। যা রাজ্যপাল বিধানসভার অধিবেশনে পড়ে থাকেন, এটাই পরিচিত ছবি। প্রশ্ন হল, এবার কী হবে? ইতিমধ্যে রাজ্যপালের ভাষণের একটি খসড়া সরকারের পক্ষ থেকে রাজভবনে পাঠানোও হয়েছে। সূত্রের খবর, তাতে আইনশৃঙ্খলা-সহ বেশ কয়েকটি ক্ষেত্রে আপত্তি রয়েছে রাজভবনের। অধিবেশন পর্বে কী হবে, সেটা নিয়ে কৌতূহল শাসক-বিরোধী বিধায়কদের। বুধবার রাজ্যপাল জানান, যে খসড়া বক্তব্যটি তাঁর কাছে পাঠানো হয়েছে, প্রয়োজন মনে করলে তিনি সেই বক্তব্যে সংযোজন-বিয়োজন করবেন। তিনি রাজ্যের উন্নয়ন চান, চান রাজ্যের মানুষের উন্নতি।

[আরও পড়ুন: সিসিটিভি ফুটেজের সূত্র ধরে হদিশ মিলল ট্যাংরা কাণ্ডের ঘাতক অ্যাম্বুল্যান্সের, ধৃত ২]

রাজ্যপালের এই বক্তব্য নিয়ে কটাক্ষ করেছেন রাজ্যের পরিষদীয় মন্ত্রী তথা তৃণমূলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায়। তাঁর বক্তব্য, রাজ্যপাল নিজেকে রাষ্ট্রপতি ভাবছেন। বাংলায় একটা নির্বাচিত সরকার রয়েছে। বিধানসভা সূত্রে খবর, ৭ ফেব্রুয়ারি রাজ্যপালের ভাষণ দিয়ে অধিবেশন শুরু হবে। ১০, ১১, ১২ রাজ্যপালের ভাষণের উপর আলোচনা হবে। আর ১৩ ফেব্রুয়ারি বিধানসভায় রাজ্য বাজেট পেশ হবে।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে