৪ শ্রাবণ  ১৪২৬  শনিবার ২০ জুলাই ২০১৯ 

Menu Logo বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: রবিবার সপ্তম দফা অর্থাৎ লোকসভা নির্বাচনের শেষ দফার ভোটগ্রহণ। রাজ্যের মোট ৯ টি লোকসভা আসনে ভোট হবে এদিন। ইতিমধ্যেই বুথে পৌঁছে গিয়েছেন ভোটকর্মী, আধাসেনা বাহিনী। ভোটের প্রভাব পড়েছে শহরবাসীর উপরেও। কারণ, ভোটের কাজে ব্যবহারের জন্য ইতিমধ্যেই শহরের বহু বাস ও গাড়ি রাস্তায় নেই। ফলে সপ্তাহের শেষে প্রবল সমস্যায় শহরবাসী। 

[আরও পড়ুন: শেষ দফার আগেও রাজনৈতিক উত্তেজনা, শাসকদলের সন্ত্রাসের শিকার বিরোধীরা]

শুক্রবার রাত থেকেই রাস্তায় কমতে শুরু করেছে গাড়ির সংখ্যা। অফিস থেকে ফেরার পথে ঘণ্টার পর ঘণ্টা দাঁড়িয়ে থেকেও মেলেনি বাস। রাস্তায় বাসের সংখ্যাও কম থাকায় বাড়ি ফিরতে অগত্যা ক্যাবের দিকেই ঝুঁকতে হয়েছে অনেককেই। কিন্তু সেক্ষেত্রেও সমস্যা। সুযোগ বুঝে শুক্রবার রাত থেকেই অ্যাপ-ক্যাবের ভাড়ার হারও এক লাফে অনেকটা বাড়ানো হয়েছে। তবে ছবিটা আরও খারাপ হতে শুরু করেছে শনিবার সকাল থেকে। জানা গিয়েছে, শনিবার বিকেল চারটের পর থেকে বাসের পাশাপাশি শহরের রাস্তায় বন্ধ হয়ে যেতে পারে ট্যাক্সি চলাচলও। ফলে বাস-ট্যাক্সির অভাবে প্রবল সমস্যার সম্মুখীন হতে হবে নিত্য যাত্রীদের।

[আরও পড়ুন: অশরীরীর দাপটে অসংলগ্ন আচরণ! ‘ভূত’ তাড়াতে তরুণীকে ওঝার প্রহার ঘিরে চাঞ্চল্য]

প্রসঙ্গত, সপ্তম দফার নির্বাচনের আগে ভোটকর্মীদের যাতায়াতের জন্য বিপুল সংখ্যায় সরকারি-বেসরকারি বাস-মিনিবাস এবং কমারশিয়াল কার ভাড়া নেওয়া হয়েছে। জানা গিয়েছে, সবমিলিয়ে কম বেশি ৫০০০ যানবাহন রয়েছে এই তালিকায়। আর তাতেই চরম দুর্ভোগের শিকার নিত্যযাত্রীরা। শনিবার সকালের দিকে রাস্তায় কিছু বাস চলাচল করলেও দুপুরের পর থেকে সেই সংখ্যাটা অনেকটাই কমে গিয়েছে। রবিবার এমনিতেই রাস্তায় যানবাহনের সংখ্যা অনেক কম থাকে। তাঁর মধ্যে ভোটের জন্য এই রবিবার পথে বেরিয়ে আরও বেশি সমস্যার সম্মুখীন হতে হবে বলেই মনে করছেন সকলে। তবে সোমবার সকাল থেকেই পরিস্থিতি স্বাভাবিক হবে বলে মনে করা হচ্ছে।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং