২ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

‘রাজ্যবাসী কি রাতারাতি বড়লোক হয়ে গিয়েছে?’, রেশনের চাল কমানো নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীকে খোঁচা দিলীপের

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: August 9, 2020 4:42 pm|    Updated: August 9, 2020 4:45 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: একবছর রাজ্যবাসীকে ফ্রি রেশন বিলির প্রতিশ্রুতি বজায় রাখলেও কমিয়ে দেওয়া হয়েছে বরাদ্দ চালের পরিমাণ। সেই প্রসঙ্গেই এবার মুখ্যমন্ত্রীকে আক্রমণ করলেন রাজ্য বিজেপির সভাপতি দিলীপ ঘোষ (Dilip Ghosh)। ব্যঙ্গাত্মক সুরে বললেন, “রাজ্যের মানুষ কি আচমকা বড়লোক হয়ে গেলেন?”

করোনার (Corona Virus) কারণে চলতি বছরের মার্চ থেকে লকডাউন (Lockdown) জারি হওয়ায় সাধারণ মানুষের সুবিধার্থে ফ্রি রেশন বিলির সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছিল প্রশাসনের তরফে। পরবর্তীতে জুন মাসে কেন্দ্রের তরফে জানানো হয়েছিল আরও ৬ মাস বিনামূল্যে রেশন পাবে দেশবাসী। এরপরই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee) জানিয়েছিলেন যে, আগামী বছর জুন পর্যন্ত রাজ্যবাসীকে বিনামূল্যে রেশন দেওয়া হবে। কিন্তু সম্প্রতি RKSY II রেশন কার্ডে মাসিক চালের বরাদ্দ ৫ কেজি থেকে কমিয়ে এককেজি করা হয়েছে। এখানেই শুরু বিতর্ক। রাজ্য সরকারের এই সিদ্ধান্তের নিন্দা করে এদিন বিজেপি সাংসদ দিলীপ ঘোষ বলেন, “করোনা কালে প্রত্যেকে সমস্যায়। কিছুটা সুরাহা করতে কেন্দ্র বিভিন্ন রকম সাহায্য করছে, গ্যাস ফ্রি দিচ্ছে, চাল-ডাল-তেল-নুন, রেশন ফ্রি দিচ্ছে, বাজার করার জন্য হাতে ৫০০ টাকা করে দিচ্ছে, তখন রেশনে চালের বরাদ্দ কমাটা দুর্ভাগ্যজনক।”

[আরও পড়ুন: করোনায় আক্রান্ত মেডিক্যাল কলেজের চিকিৎসককে হেনস্তা, পাড়া ছাড়া করার হুমকি পড়শিদের]

এরপরই মুখ্যমন্ত্রীর উদ্দেশে প্রশ্ন ছুঁড়ে দিয়ে তিনি বলেন, “রাজ্যর যে বিপুল সংখ্যক মানুষের RKSY II কার্ড রয়েছেন তাঁরা কি রাতারাতি বড়লোক হয়ে গিয়েছেন?” দিলীপের কথায়, কেন্দ্রকে টেক্কা দিতেই ফ্রি রেশন বিলির কথা ঘোষণা করেছিলেনন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কিন্তু আদতে প্রত্যেকে রেশন পাননি। কুপন সিস্টেম চালুর কথা ঘোষণা করা হলেও তা আদৌ ফলপ্রসূ হয়নি বলেই দাবি বিজেপি সাংসদের। “মু্খ্যমন্ত্রীর সবটাই সংবাদমাধ্যমের সামনে ভাষণবাজি”, এদিন এহেন মন্তব্যও করেন রাজ্য বিজেপির সভাপতি।

[আরও পড়ুন: NGO’কে সাহায্য করতেই মহিলা মোর্চার হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে শাড়ির ছবি পাঠিয়েছি: অগ্নিমিত্রা]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement