২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২০ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

করোনা আক্রান্ত কলকাতা জিপিও’র পদস্থ কর্মী, বন্ধ দপ্তরের কাজকর্ম

Published by: Subhamay Mandal |    Posted: June 18, 2020 4:55 pm|    Updated: June 18, 2020 4:55 pm

An Images

ক্ষীরোদ ভট্টাচার্য: এবার করোনার থাবা ডাক ও তার বিভাগে। কলকাতা জিপিও’র এক পদস্থ কর্মীর শরীরে মিলেছে মারণ ভাইরাস। তাই আজ, বৃহস্পতি ও আগামীকাল শুক্রবার জিপিও’র সমস্ত কাজ বন্ধ রাখা হয়েছে। জিপিও’র কলকাতা শাখার মুখ্য আধিকারিক অমিতাভ সিংহ এদিন জানিয়েছেন, ওই আক্রান্ত আধিকারিক হাসপাতালে ভরতি। তাঁর অবস্থা স্থিতিশীল। তবে করোনা সংক্রমণের জন্য গোটা জিপিও জীবাণুমুক্ত করা হবে। সেই জন্য স্বাভাবিক সমস্ত কাজ বন্ধ রাখা হবে।

প্রসঙ্গত, বুধবার রাজ্যের স্বাস্থ্যদপ্তরের দেওয়া তথ্য অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে এই মারণ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৩৯১ জন। অর্থাৎ সংক্রমিতের সংখ্যা গতকালের তুলনায় খানিকটা কম। রাজ্যে এখনও পর্যন্ত সংক্রমিত ১২ হাজার ৩০০ জন। তবে স্বস্তির ব্যাপার হল, রোজই কমছে অ্যাকটিভ কেসের সংখ্যা। ২৪ ঘণ্টায় ১২৫টি অ্যাকটিভ কেস কমায় বর্তমানে রাজ্যে করোনা অ্যাকটিভ ৫,২৬১ জন। যদিও রাজ্যের অন্যান্য জেলার থেকে কলকাতায় সংক্রমণের সংখ্যা অনেকটাই বেশি। একদিনে এ শহরে আক্রান্ত ১৪৩ জন। এখনও পর্যন্ত কলকাতায় ৪ হাজার ৮৯ জনের শরীরে থাবা বসিয়েছে করোনা। মোট মৃতের সংখ্যা ৩০৮।

[আরও পড়ুন: কোভিড রিপোর্ট নেগেটিভ হলে দেওয়া যাবে ICSE-ISC পরীক্ষা, কলকাতার স্কুলের নোটিসে বিতর্ক]

তবে রাজ্যে সংক্রমিতের তুলনায় প্রতিদিনই বাড়ছে করোনাজয়ীদের সংখ্যা। ২৪ ঘণ্টায় ৫০৫ জন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরলেন। যাঁদের মধ্যে ৫০ জনই কলকাতাবাসী। রাজ্যে এখনও পর্যন্ত সুস্থ হয়ে উঠেছেন ৬ হাজার ৫৩৩ জন। ৫৩.১১ শতাংশ COVID-19 রোগী এই মারণ ভাইরাসের বিরুদ্ধে যুদ্ধে জয়ী হয়েছেন। এদিকে, গত ২৪ ঘণ্টায় রাজ্যে করোনার বলি ১১ জন। স্বাস্থ্যদপ্তর নয়া তথ্য বলছে, এখনও পর্যন্ত রাজ্যে মোট ৫০৬ জন COVID-19 রোগীর মৃত্যু হয়েছে।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement