BREAKING NEWS

৫ মাঘ  ১৪২৮  বুধবার ১৯ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

মাত্র কয়েক মিনিটেই অপরাধীদের গ্রেপ্তার পুলিশের, হারানো মোবাইল ফিরে পেলেন যুবক

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: January 30, 2021 7:46 pm|    Updated: January 30, 2021 8:49 pm

Parnasree PS arrested 3 snatchers within few minutes and rescued mobile phones |SangbadPratidin

অর্ণব আইচ: অভিযোগ পাওয়ার কয়েক মিনিটের মধ্যেই ছিনতাইয়ের কিনারা করে ফেলল পুলিশ। পর্ণশ্রী থানার এই সাফল্য আবারও কলকাতা পুলিশের দক্ষতাকে তুলে ধরল। ধৃতদের গ্রেপ্তার করে মহেশতলার এক যুবকের ছিনতাই হওয়া মোবাইল, পার্স তাঁকে ফিরিয়ে দিলেন পুলিশকর্মীরা। কলকাতা শহরে লাগাতার পুলিশের টহলদারির কারণেই কম সময়ের মধ্যে এই সাফল্য পাওয়া গেল বলে মনে করছেন পুলিশকর্তারা। এত দ্রুত হারানো মোবাইল ফিরে পেয়ে খুশি মহেশতলার ওই যুবকও।

ঘটনা বৃহস্পতিবার রাতের। রাত প্রায় ১০টা নাগাদ পর্ণশ্রী লেক এলাকার বনমালি নস্কর লেন দিয়ে যাচ্ছিলেন অভিজিৎ দাস নামে বছর চব্বিশের এক যুবক। আচমকাই তিন দুষ্কৃতী বাইকে চড়ে এসে চোখের নিমেষে তাঁর মোবাইল (Mobile), পার্স ছিনতাই (Snatchers) করে পালায়। এরপরই তিনি পর্ণশ্রী থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। সেসময় পুলিশের একটা দল টহল দিচ্ছিল ওই এলাকায়। অভিযোগ পেয়েই দুষ্কৃতীদের খোঁজে নামে পুলিশ। সতর্ক করে দেওয়া হয় আশেপাশের থানাগুলিকেও। ঠিক ৫ মিনিটের মধ্যে সাদাত হোসেন নামে এক যুবককে বাইক-সমেত আটক করে পুলিশ। বাইকে প্রতিরক্ষা মন্ত্রক অর্থাৎ ‘ডিফেন্স’-এর স্টিকার লাগানো। তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করে বাকিদের খোঁজ মেলে। দ্বিতীয় দুষ্কৃতীরও নাগাল পেতে ঠিক ৫ মিনিট সময় লাগে পুলিসের টহলদারি বাহিনীর। পর্ণশ্রী পল্লির সূর্য সংঘ ক্লাবের কাছ থেকে আটক করা হয় সুরেন্দ্রচন্দ্র নায়েককে। তার কাছ থেকে মোট পাঁচটি মোবাইল ফোন উদ্ধার হয়।

[আরও পড়ুন: কলকাতার ফুটপাথে মায়ের পাশ থেকে অপহরণ, পুলিশি তৎপরতায় ঘরে ফিরল খুদে]

পুলিশি জেরার মুখে তারা নিজেদের কুকীর্তির কথা স্বীকার করে। জানায়, শহরের বিভিন্ন প্রান্তে বাইক নিয়ে ঘুরে মোবাইল ছিনতাই করে থাকে তারা। এদের জিজ্ঞাসাবাদ করে আরেক সঙ্গীর খোঁজ পায় পুলিশ। পরেরদিন অর্থাৎ শুক্রবার একবালপুর এলাকা থেকে মহম্মদ সোহেল নামে আরেকজনকে গ্রেপ্তার করা হয়। ধৃত দ্বিতীয় ব্যক্তি সুরেন্দ্র নায়েকও একবালপুরের বাসিন্দা। আর প্রথমজন, সাদাত হোসেন ওয়াটগঞ্জের বাসিন্দা বলে জানা গিয়েছে। এদের তিনজনকে শনিবার আদালতে পেশ করে নিজেদের হেফাজতে নিয়েছে পুলিশ। টহলদারি বাড়ানোয় এত দ্রুত এর সমাধান সম্ভব হল বলে মত পুলিশ মহলের। এমনিতেই ভোটের আগে শহরের নিরাপত্তা বৃদ্ধিতে, যে কোনও অপরাধমূলক কাজ দমনে প্রত্যেকটা থানাকে আগাম সতর্ক করেছেন কলকাতা (Kolkata) পুলিশ কমিশনার অনুজ শর্মা। তাঁর নির্দেশমতো পুলিশ আরও তৎপর হয়ে কাজ শুরু করেছে, এই ঘটনাই তার প্রমাণ।

[আরও পড়ুন: ভোটের আগে কলকাতায় অস্ত্র পাচারের ছক রুখে দিল পুলিশ, বাবুঘাট থেকে গ্রেপ্তার এক মহিলা-সহ ২]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে