৫ মাঘ  ১৪২৭  মঙ্গলবার ১৯ জানুয়ারি ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

শিশিরেও ভরসা নেই? তড়িঘড়ি পূর্ব মেদিনীপুরে সংগঠনে রদবদল করল তৃণমূল শীর্ষ নেতৃত্ব

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: December 5, 2020 12:56 pm|    Updated: December 5, 2020 1:00 pm

An Images

ধ্রুবজ্যোতি বন্দ্যোপাধ্যায়: পূর্ব মেদিনীপুরের (East Midnapore) সংগঠনে বদল করল তৃণমূল (TMC) শীর্ষ নেতৃত্ব। শুক্রবার সন্ধেবেলা দলীয় বৈঠকে এই দায়িত্ব কাঁথির বর্ষীয়ান সাংসদ শিশির অধিকারীর (Sisir Adhikary) উপর দিয়েছিলেন তৃণমূল সুপ্রিমো মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। কিন্তু তাঁর কাজের অপেক্ষা না করে শনিবার সকালেই কালীঘাট থেকে নতুন নেতাদের দায়িত্ব দিয়ে সাংগঠনিক বদলের কথা জানানো হল।

শুভেন্দু অধিকারী মন্ত্রিত্ব ত্যাগ এবং অন্যান্য সরকারি দায়িত্ব ছাড়ার পর তাঁর গড় নিয়ে অতি সাবধানী তৃণমূল নেতৃত্ব। যদিও পূর্ব মেদিনীপুর ছাড়াও অন্যান্য জেলায় শুভেন্দুর সমর্থনে ‘দাদার অনুগামী’ পোস্টারের বাড়বাড়ন্ত কম নয়। তা সত্ত্বেও পূর্ব মেদিনীপুরের সংগঠনের খোলনলচে বদলাতে সর্বাধিক গুরুত্ব দিয়েছেন তৃণমূল সুপ্রিমো। শুক্রবার দলের বৈঠকে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee) নিজেই শুভেন্দু-পিতা শিশির অধিকারীকে বলেন, ”নন্দীগ্রাম, কাঁথিতে প্রয়োজনে ব্লক সভাপতিদের বদলে দিন। যাঁরা দলবিরোধী কাজের সঙ্গে যুক্ত, এক মুহূর্ত সময় নষ্ট না করে তাঁদের বের করে দিন এখনই।”

[আরও পড়ুন: এবার ‘বেসুরো’ অতীন ঘোষও, দলের প্রতি অসন্তোষ প্রকাশ করায় চিন্তার ভাঁজ শীর্ষ নেতাদের কপালে]

এরপর শুধু রাতটা কেটেছে। শিশির অধিকারী কী পদক্ষেপ নেন, সে অপেক্ষায় বসে না থেকে কলকাতা থেকেই পূর্ব মেদিনীপুরের সাংগঠনিক নেতৃত্ব বদলে ফেলা হল –

  • নন্দীগ্রাম ব্লক ১’এর সভাপতির পদ থেকে সরানো হল মেঘনাথ পালকে, নতুন সভাপতি স্বদেশরঞ্জন দাস।
  • ভগবানপুর ব্লক ২’এর সভাপতি হলেন শশাঙ্কশেখর জানা।

শীর্ষ নেতৃত্ব এও জানিয়েছে, দল থেকে কাউকে তাড়িয়ে দেওয়া হবে না। যাদের নিয়ে দলে দ্বন্দ্ব তৈরি হচ্ছে, বিরোধিতার সুর শোনা যাচ্ছে, শুধু সেখানে নতুন নেতাদের দায়িত্বে আনা হচ্ছে। শিশির অধিকারীকে এই বদল করে দেওয়ার কথা জানানো হয়েছিল। কিন্তু তিনি কতটা কী করবেন, সেই ভরসায় না থেকে কলকাতা থেকে আগেই পদক্ষেপ করায় প্রশ্নও উঠছে। শুক্রবারের বৈঠকে যাঁরা দলের সঙ্গে রয়েছেন বলে দাবি করেছেন, তাঁরা যেন স্থানীয়ভাবে সাংবাদিক বৈঠক করে নিজেদের অবস্থান আরও স্পষ্ট করেন, সেই নির্দেশও দেওয়া হয়েছে।

[আরও পড়ুন: ‘অনেকে আমার মৃত্যু চায়’, মমতার কথা শুনেই কেঁদে ফেললেন সুব্রত বক্সি]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement