BREAKING NEWS

২৬ শ্রাবণ  ১৪২৭  মঙ্গলবার ১১ আগস্ট ২০২০ 

Advertisement

শরীরে ম্যাজমেজে ভাব-প্রচণ্ড ক্লান্তি! করোনার নয়া উপসর্গ নিয়ে চিন্তায় চিকিৎসকরা

Published by: Subhamay Mandal |    Posted: April 28, 2020 4:31 pm|    Updated: April 28, 2020 4:31 pm

An Images

রূপায়ণ গঙ্গোপাধ‌্যায়: শরীর ম্যাজম্যাজ করছে। সারাদিন শুয়ে থাকতে ইচ্ছে করছে। গোটা শরীরজুড়ে অসম্ভব একধরনের ক্লান্তি। ইচ্ছে নেই কোনও কাজেও। এমন উপসর্গ নিয়ে করোনা আক্রান্ত সন্দেহে এ রাজ্যে ভর্তি হচ্ছেন অনেকেই। সোয়াব টেস্টের (Swab Test) পর তাঁদের একাধিকজনের আবার করোনা পজিটিভও এসেছে। অথচ চিকিৎসকরা বলছেন, করোনা রোগীদের ক্ষেত্রে সাধারণ যে উপসর্গগুলি দেখা যায়, অর্থাৎ জ্বর-সর্দি-কাশি সেগুলি কিছুই নেই।

এমন উপসর্গ নিয়ে গত কয়েকদিনে অনেক রোগী ভর্তি হয়েছে রাজ্যের করোনা হাসপাতালগুলিতে। যেমন বেনিয়াপুকুর অঞ্চলের ষাটোর্ধ্ব এক বৃদ্ধ। গত রবিবার এমআর বাঙ্গুরে ভর্তি হয়েছিলেন। তাঁর শরীরে করোনার সাধারণ উপসর্গ জ্বর-সর্দি-কাশি ছিল না। যেটা ছিল সেটা হচ্ছে নতুন এই উপসর্গগুলি। অর্থাৎ শরীরে ম্যাজমেজে ভাব, প্রচণ্ড ক্লান্তি। ওই বৃদ্ধের করোনা রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। কাজেই এই নতুন উপসর্গ নিয়ে চিকিৎসকদের মধ্যে ধোঁয়াশা সৃষ্টি হয়েছে। নতুন করে ভাবতে হচ্ছে রাজ্যের স্বাস্থ্যকর্তাদের।

[আরও পড়ুন: করোনার আরও ছয় নয়া উপসর্গ! মার্কিন গবেষকদের নতুন দাবিতে চাঞ্চল্য]

বারবার উপসর্গ বদলে মানব শরীরে আঘাত হানছে করোনা ভাইরাস। এর প্রমাণ ইতিমধ্যেই মিলেছে। শুরুতে জ্বর-সর্দি-কাশির সঙ্গে গলাব্যথা ও প্রবল শ্বাসকষ্টই ছিল লক্ষণ। কিন্তু এখন একাধিক নতুন উপসর্গ দেখা দিচ্ছে করোনা আক্রান্তদের শরীরে। ইতিমধ্যেই গবেষণায় দেখা গিয়েছে, ফুসফুস ছাড়াও মস্তিষ্ক, চোখ, নাক, হৃদযন্ত্র, লিভার ও কিডনিতেও আক্রমণ করতে পারে করোনা ভাইরাস। বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকরা পরামর্শ দিচ্ছেন, শরীরে এধরনের নতুন উপসর্গ দেখা দেওয়া মাত্রই করোনা পরীক্ষা করানো প্রয়োজন। কারণ নতুন উপসর্গ থাকায় আগেভাগে সন্দেহ হচ্ছে না সেই ব্যক্তি করোনা আক্রান্ত বলে।

যেমন, ইউনাইটেড স্টেটস সেন্টারস ফর ডিজিজেস কন্ট্রোল অ্যান্ড প্রিভেনশন (USCDCP) জানাচ্ছে, একাধিক কোভিড (Covid) রোগীকে পর্যবেক্ষণ করে বেশ কিছু নতুন উপসর্গ খুঁজে পাওয়া গিয়েছে। সেগুলির মধ্যে শীত শীত ভাব, শীতের সঙ্গে শরীরে কাঁপুনি, পেশিতে ব্যথা, মাথার যন্ত্রণা, গলায় খুশখুশে ভাব এবং স্বাদ ও গন্ধ না পাওয়া। আবার গত সপ্তাহে বিশেষজ্ঞরা কোভিড আক্রান্ত শিশুদের নতুন উপসর্গের সন্ধান পেয়েছিলেন। চিকিৎসা পরিভাষায় যেটাকে বলা হচ্ছে ‘কোভিড টো’। শিশুদের পায়ের পাতা ফুলে যেতে পারে, সেই সঙ্গে পায়ের চামড়ার স্বাভাবিক রংও পাল্টে যেতে পারে। অনেকটা বরফে অনেকক্ষণ অনাবৃত থাকার পর ফ্রস্টবাইট হওয়ার মতো। আবার ত্বকেও করোনার লক্ষণ দেখা যাচ্ছে! এছাড়া, মানবদেহের শরীরের ত্বকের লালচে র‌্যাশও কি করোনা ভাইরাসের সংক্রমণের লক্ষণ! সম্প্রতি ইটালিতে বেশ কয়েকজনের শরীরে এই ধরনের লক্ষণ দেখা দিয়েছে। এটা নিয়েও গবেষণা চলছে।

[আরও পড়ুন: আইসোলেশনের ভয়ে উপসর্গ গোপনেই বাড়ছে করোনার আশঙ্কা, মত বিশেষজ্ঞদের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement