×

৫ চৈত্র  ১৪২৫  বৃহস্পতিবার ২১ মার্চ ২০১৯   |   শুভ দোলযাত্রা।

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও #IPL12 ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ছোট থেকে বড়৷ সকলেই কাজের ফাঁকে বেশিরভাগ সময়ই ব্যস্ত থাকেন স্মার্টফোন নিয়ে৷ সকালে ঘুম থেকে ওঠা থেকে রাতে ঘুমোতে যাওয়া পর্যন্ত  স্মার্টফোনই সঙ্গী জেনওয়াইয়ের৷ সারাক্ষণ হোয়াটস অ্যাপ, ফেসবুকের মতো সোশ্যাল সাইটে ব্যস্ত প্রত্যেকেই৷ সমীক্ষা করে দেখা গিয়েছে, হাতের কাছে স্মার্টফোন না থাকলে, অনেকেই নাকি মানসিকভাবে দুর্বল হয়ে পড়েন৷ আবার কারও কারও দৈনন্দিন কাজেও  প্রভাব পড়ে যথেষ্ট৷ কিন্তু জানেন কি, অতিরিক্ত স্মার্টফোনের ব্যবহারই বাড়িয়ে দিচ্ছে আপনার ত্বকের বয়স৷ এমনকী, কমে যেতে পারে আপনার আয়ু৷ বিপদ এড়াতে তাই প্রয়োজন ছাড়া অতিরিক্ত স্মার্টফোনের ব্যবহার কমান আজই৷   

[চিকিৎসায় মিলতে পারে লক্ষ্মী ট্যারা থেকে অব্যহতি]

অন্ধকার ঘরে রাতে শুতে গিয়েও স্মার্টফোন ঘাঁটাঘাঁটির অভ্যাস থাকে অনেকেরই৷ স্মার্টফোন থেকে নির্গত আলোয় আপনার সবচেয়ে বেশি ক্ষতি হয় চোখের৷ অকালে হারাতে পারেন দৃষ্টিশক্তি৷ এই আলোয় ক্ষতি হতে পারে  ত্বকেরও৷ সমীক্ষা বলছে, সূর্যে অতিবেগুনি রশ্মি আমাদের ত্বকের জন্য যতটা ক্ষতিকর, ঠিক ততটাই ক্ষতি করতে পারে স্মার্টফোনের আলোও৷  মুখে যেহেতু সরাসরি স্মার্টফোনের আলো পড়ে, তাই সবচেয়ে বেশি ক্ষতি হয় ওই অংশের ত্বকের৷ তাই শোওয়ার ঘরে স্মার্টফোন না নিয়ে ঢোকার চেষ্টা করুন৷ তাতেই বাঁচবে আপনার চোখ ও মুখের ত্বক৷ হতে পারে ত্বকের ক্যানসারও৷  

[ব্যথা হলেই পেইনকিলার নয়, ভরসা রাখুন ঘরোয়া টোটকায়]

সমীক্ষা বলছে, সাধারণ মানুষের ব্যবহৃত শৌচালয়ের তুলনায় বেশি অপরিচ্ছন্ন হয় স্মার্টফোনের স্ক্রিন৷ মোবাইল স্ক্রিনে ক্রমাগত হাত দিচ্ছি আমরা৷ আবার সেই হাতই লাগছে আমাদের ত্বকে৷ এই অভ্যাস থাকলে ব্যাকটেরিয়া আক্রমণের হাত থেকে কেউই বাঁচাতে পারবে না আপনাকে৷ তাই স্মার্টফোন ব্যবহারের পর হাত ধুয়ে তবেই সেই হাত মুখে লাগান৷ নইলে হতে পারে চরম বিপদ৷

[ফের পোকার বিষে ধুম জ্বর শিশুদের, শহরে উদ্বেগ বাড়াচ্ছে ‘স্ক্রাব টাইফাস’]

বেশিক্ষণ ধরে নিচের দিকে তাকিয়ে স্মার্টফোন ব্যবহারের ফলে আপনার গলা ও চিবুকে বলিরেখাও দেখা দিতে পারে৷ এই সমস্যা থেকে রেহাই পেতে আজই কমিয়ে ফেলুন স্মার্টফোনের ব্যবহার৷

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং