১ আষাঢ়  ১৪২৬  রবিবার ১৬ জুন ২০১৯ 

Menu Logo বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সাধের বাড়িতে বাসা বেঁধেছে উই? বইয়ের তাক, শোবার ঘরের বিছানা, সিঁড়ির তলা সব জায়গাতেই ছড়িয়েছে উইয়ের জাল। একটু স্যাঁতস্যাতে পরিবেশ হলে তো কথাই নেই, জাকিয়ে বসবে উইপোকার দল। অতঃপর উইপোকার উপদ্রবে টেকা দায় হয়ে পড়ে। তবে, জানেন কি আপনার হাতের কাছেই রয়েছে এমনকিছু টোটকা, যেটা দিয়ে সহজেই তাড়াতে পারেন উই। জেনে নিন সম্পূর্ণ ঘরোয়া উপায়ে উইপোকা নির্মূল করার পদ্ধতি।

[আরও পড়ুন:  বাথরুমে বৈচিত্র্য, নতুনভাবে সাজিয়ে তুলুন আপনার স্নানঘর]

১) মা-ঠাকুমাকে অনেক সময়েই দেখেছেন শাড়ির ভাঁজে নিম পাতা শুকিয়ে রাখতে। যাতে পোকা শাড়ি না কেটে ফেলে। নিম পাতার গন্ধ কেরামতি দেখাতে পারে উই নিধনের কাজেও। প্রথমে নিমপাতা শুকিয়ে গুঁড়ো করে নিন। এবার বইয়ের তাকে, কাঠের আলমারি বা অন্যান্য আসবাবপত্রের কোণায় কোণায় ছড়িয়ে দিন গুঁড়ো করা নিম। প্রতি সপ্তাহে একবার করে নিমপাতা গুঁড়ো ছড়ালেই ফল পাবেন হাতেনাতে।

২) ন্যাপথলিনের বল রেখে দিন আসবাবের কোণায়। কাঠের আলমারিতে জামা-কাপড়ের ভাজে ভাজে রাখুন। বক্স খাটের ভিতরেও রাখতে পারেন। ন্যাপথলিনের কড়া গন্ধে উইপোকা আসবাবপত্রের ধারে কাছেও ঘেঁষবে না।

৩) রান্না করার মশলাও কিন্তু রান্নাতেই ম্যাজিক দেখায় না শুধু। তা কাজে লাগতে পারে আপনার বাড়ির উই নিধন যজ্ঞেও। কালো জিরে সবার বাড়ির রান্নাঘরেই থাকে। আর এই কালো জিরে হল যে কোনও পোকা-মাকড় তাড়ানোর অব্যর্থ টোটকা। রোদে কালো জিরে শুকোতে দিন। এরপর সেটা একটা কাপড়ের পুটলিতে বেঁধে যেখানে যেখানে উই বাসা বেঁধেছে, তার আশেপাশে রেখে দিন। উইপোকা ধারে-কাছেও ঘেঁষবে না।

৪) কর্পূরের গন্ধও উইপোকা সহ্য করতে পারে না। কাজেই কর্পূর গুঁড়ো করে তরল প্যারাফিনের সঙ্গে মিশিয়ে ঘরের দেওয়ালে ও আসবাবের গায়ে দিয়ে দিন। উইপোকার উপদ্রব কমতে বাধ্য।

[আরও পড়ুন:  অতিথিদের চমকে দিতে চান? এভাবেই সাজিয়ে ফেলুন বাড়ির সদর দরজা]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং