১৫ অগ্রহায়ণ  ১৪২৭  শনিবার ৫ ডিসেম্বর ২০২০ 

Advertisement

মণ্ডপে ‘নো এন্ট্রি’, বাড়িতে বসে মোবাইল অ্যাপেই প্রতিমা দর্শনের ব্যবস্থা প্রশাসনের

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: October 20, 2020 4:33 pm|    Updated: October 20, 2020 5:07 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ব্যুরো: অন্য বছরের মতো সদলবলে দুর্গাপুজোর (Durga Puja) দিনগুলোয় বেরিয়ে ঠাকুর দেখার রুটিনে এবার ছেদ। কলকাতা হাই কোর্ট (Calcutta HC) স্পষ্ট রায় ঘোষণা করে দিয়েছে, মণ্ডপে কোনও দর্শনার্থীকে প্রবেশ করতে দেওয়া যাবে। এবছর সম্পূর্ণ দর্শকহীন পুজো করতে হবে। এতে অনেকেরই মনখারাপ। কিন্তু আমজনতা যাতে পুজোর আনন্দ থেকে বিন্দুমাত্র বঞ্চিত না হন, তার জন্য মহাপঞ্চমী থেকে ঘরে বসেই পুজো পরিক্রমার ব্যবস্থা করেছে প্রশাসন। চালু হচ্ছে নির্দিষ্ট অ্যাপ (App)। যা মোবাইলে ইনস্টল করে সহজেই যে কোনও সময়ে ঠাকুরের মুখ দেখতে পাবেন বাসিন্দারা। গত সপ্তাহে নিউটাউন কর্তৃপক্ষের তরফে বিশেষ অ্যাপ চালু করা হয়েছিল। আর মঙ্গলবার বারুইপুর (Baruipur) জেলা পুলিশ উদ্বোধন করল বিশেষ অ্যাপের।

মঙ্গলবার সোনারপুরের জয় হিন্দ অডিটোরিয়ামে পুজোর গাইড ম্যাপ ও অনলাইন পুজো পরিক্রমার আনুষ্ঠানিক শুভ সূচনা করা হয় পুলিশের তরফে। সেখানেই উদ্বোধন করা হয় অ্যাপের। অ্যান্ড্রয়েড মোবাইলে অ্যাপটি ইনস্টল করলে বাড়ি বসে অঞ্জলি থেকে আরতি – সবই দেখা যাবে। এদিন এই গাইড ম্যাপ ও অ্যাপস উদ্বোধন অনুষ্ঠানে বিধানসভার স্পিকার তথা স্থানীয় বিধায়ক বিমান বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, “মানুষ মণ্ডপে যেতে পারবেন না। অ্যাপেই পুজো দেখতে হবে। কিন্তু প্যান্ডেলে মায়ের সামনে দাঁড়িয়ে অঞ্জলি দিলে আত্মিক শান্তি হয়,  যা অ্যাপের মাধ্যমে হবে না। ঘরে বসে ঠাকুর দেখতে হবে আর প্রতিমাকে মনে মনে স্থান দিতে হবে। এই মহামারী সময় সকলকে সচেতন থাকতে হবে।”

[আরও পড়ুন: আজ হচ্ছে না ‘ফোরাম ফর দুর্গোৎসবে’র আরজির শুনানি, পুজো নিয়ে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত পঞ্চমীতে]

বারুইপুর জেলা পুলিশের তৈরি অ্যাপে বারুইপুরের আটটি বড় পুজো মণ্ডপ ছাড়াও ক্যানিং, সোনারপুর ও নরেন্দ্রপুরের পুজোগুলি দেখা যাবে। জেলার পুলিশ সুপার কামনাশিস সেন বলেন, “আগামী দু – তিন  দিনে আরও বেশকিছু পুজোকে এই অ্যাপসের মধ্যে অন্তর্ভুক্ত করা হবে। যেখানে ইন্টারনেট ব্যবস্থা ভাল পাওয়া যাবে সেখানকার পুজোগুলি এই অ্যাপের তালিকাভুক্ত হবে।” বুধবার থেকে চালু হয়ে যাবে অ্যাপটি।

Durga Puja

অন্যদিকে, গত সপ্তাহেই বাড়িতে বসে নির্বিঘ্নে পুজো দেখার জন্য বেসরকারি ইঞ্জিনিয়ারিং কলেজ পড়ুয়াদের তৈরি বিশেষ অ্যাপের ব্যবস্থা করেছিল নিউটাউন (New Town) কর্তৃপক্ষ। অ্যাপের একটি বিশেষত্ব হলো, তা অনেকটা সোশ্যাল মিডিয়ার মত কাজ করবে। নিউটাউনের কোনও কমিটি চাইলে তাদের পুজোর ছবি এই অ্যাপটিতে পোস্ট করতে পারবেন। এর পাশাপাশি কোনও বাসিন্দাও চাইলে পোস্ট করতে পারেন তাঁর নিজস্ব মতামত।

[আরও পড়ুন: মণ্ডপে নো এন্ট্রি, পুজোর পাস কিনে থাকলে টাকা ফেরত পাবেন? জেনে নিন]

নিউটাউনে যখন এই অ্যাপ চালু নিয়ে পরিকল্পনা চলছে, তখনও কিন্তু হাই কোর্টের দর্শকশূন্য পুজোর রায় হয়নি। কিন্তু করোনা পরিস্থিতিতে অনেকেই যে ভিড় এড়াতে মণ্ডপ দর্শনে বেরবেন না, তা বুঝেই এনকেডিএ (NKDA) কর্তৃপক্ষ অ্যাপের ব্যবস্থা করেছিল। এই অ্যাপে শুধু নিউটাউনের পুজোগুলোই নয়, কলকাতার বেশ কিছু নামকরা পুজো দর্শনের সুযোগ পাবেন বাসিন্দারা। গুগল প্লে স্টোর থেকে এই অ্যাপ ডাউনলোড করা যাবে বলে জানানো হয়েছে এনকেডিএ’র তরফে।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement