BREAKING NEWS

২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ২২ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

সংসদের গুরুত্বপূর্ণ আলোচনায় মন নেই, মোবাইলে নীল ছবি দেখতে মগ্ন সাংসদ!

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: September 18, 2020 6:05 pm|    Updated: September 18, 2020 9:04 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনা কালে অনেক প্রতিকূলতা পেরিয়ে, হাজারও সুরক্ষার ঘেরাটোপে শুরু হয়েছে সংসদ। চলছে বাজেট অধিবেশন। ফলে সকলের উপস্থিতি কাম্য। অধিবেশন কক্ষে হাজির সব সংসদ সদস্য। কিন্তু ক’জন আর মন দিয়ে বাজেট শুনছেন? মোবাইলে লাস্যময়ী তরুণীর খোলামেলা ছবি চোখের সামনে, নীরস বাজেট শুনতে কি আর মন চায়? মন চায়নি থাইল্যান্ডের (Thailand) এমপি রনথেপ অনুওয়াতের। তিনি তাই বাজেটের মাঝেও মন দিয়েছিলেন মোবাইলে। দেখে যাচ্ছিলেন একের পর এক নীল ছবি (Adult contents)। সিসিটিভিতে সেই ফুটেজ ধরা পড়তেই নিমেষে ভাইরাল।

থাইল্যান্ডের সংসদ কক্ষে বাজেট অধিবেশন চলাকালীন সাংসদ মোবাইলে নীল ছবি দেখতে মগ্ন হওয়ার সেই ছবি ভাইরাল হতেই অবশ্য বিন্দুমাত্র কুণ্ঠিত হননি এমপি (Member of Parliament) রনথেপ। তিনি উলটে সাফাই দিচ্ছেন, কোনও এক মহিলা তাঁকে ওই সব ছবি পাঠিয়েছেন। তিনি বিপদে পড়ে রনথেপের সাহায্য চাইছেন, তাই ছবি পাঠিয়েছেন। এও জানালেন যে তিনি ছবিগুলো মন দিয়ে দেখছিলেন, কারণ, তাঁর মনে হচ্ছিল যে মহিলা খুব বিপদে রয়েছেন। কতটা বিপদে, তা বোঝার জন্যই মন দিয়ে ছবিগুলো দেখছিলেন তিনি। অথচ বাস্তবে দেখা যাচ্ছে, মোটেই সেসব বিপদে পড়ার কোনও ছবি। খাঁটি নীল ছবি।

[আরও পড়ুন: চিনের ল্যাব থেকে এবার ব্যাকটেরিয়ার সংক্রমণ, বন্ধ্যাত্বের মুখে কয়েক হাজার পুরুষ!]

ফলে এমপি রনথেপের এহেন যুক্তি মোটেই ধোপে টেকেনি। সিসিটিভি ফুটেজ ভাইরাল হতেই সংবাদমাধ্যমের নিশানায় তিনি। তাতেও অবশ্য তাঁর কিছু যায়, আসে না। বলছেন, তিনি মোবাইলে কী ছবি দেখবেন, কী দেখবেন না – সেটা সম্পূর্ণ তাঁর ব্যক্তিগত বিষয়। ঘটনা বুঝেশুনে এমপির জবাব তলব করেছে থাইল্যান্ড সরকার। তবে তাঁর বিরুদ্ধে কোনও ব্যবস্থা নেওয়া যাবে কি না, সন্দেহ রয়েছে তা নিয়ে। কারণ, থাইল্যান্ডের আইনে সংসদ কক্ষে বসে নীল ছবি দেখলে কোনও শাস্তি হয় কি না, তার কোনও নিদান নেই। ফলে এ যাত্রা হয়তো শাস্তির কোপ থেকে বেঁচে যাবেন রনথেপ। তবে সংবাদমাধ্যম এবং বিরোধীদের তীব্র সমালোচনার মুখে পড়ে চক্ষুলজ্জার খাতিরে পরবর্তী সময়ে তিনি কী করবেন, সেটা দেখার বটে।

[আরও পড়ুন: UAE ও বাহরিনের সঙ্গে চুক্তির ফল! নোবেল শান্তি পুরস্কারের জন্য মনোনীত ইজরায়েলের প্রধানমন্ত্রী]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement