BREAKING NEWS

২১ আষাঢ়  ১৪২৭  সোমবার ৬ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

করোনার কবলে রাখাল, কোয়ারেন্টাইনে ঠাঁই হল ৫০টি ছাগল ও ভেড়ার

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: June 30, 2020 9:14 pm|    Updated: June 30, 2020 9:18 pm

An Images

ছবিটি প্রতীকী

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনাসুরের তাণ্ডবে বিশ্বজুড়ে হাহাকার উঠেছে। যে এই মারণ ভাইরাসে আক্রান্ত হচ্ছে তার সঙ্গে সঙ্গে দুর্ভোগ পোয়াতে হচ্ছে তার ঘনিষ্ঠদেরও। তাদের শরীরে করোনার জীবাণু না থাকা সত্ত্বেও পাঠানো হচ্ছে কোয়ারেন্টাইনে। মানুষ তাও প্রিয়জনের কথা মাথায় রেখে এই দুর্ভোগ পোয়াতে রাজি হচ্ছে। কিন্তু, যদি কোনও মানুষের জন্য অবলা পশুদের সেই দুর্ভোগ সামলাতে হয়, তাহলে কীরকম লাগে! বিষয়টি শুনে অবাক লাগলেও এই ঘটনাই ঘটেছে কর্ণাটকের টুমাকুরু (Tumakuru) জেলার গোদেকেরে গ্রামে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, টুমাকুরু জেলার গোদেকেরে গ্রামের কয়েকটি ভেড়া ও ছাগলের শ্বাসকষ্ট হচ্ছে সন্দেহ হয় স্থানীয় বাসিন্দাদের। সঙ্গে সঙ্গে আতঙ্কিত তাঁরা স্থানীয় পশুপালন দপ্তরের আধিকারিকের সঙ্গে দেখা করে বিষয়টির কথা জানান। চারিদিকে যেভাবে করোনার সংক্রমণ ছড়াচ্ছে তাতে ওই পশুগুলিরও করোনা হয়েছে বলে সন্দেহ প্রকাশ করেন। পরে জানা যায়, ওই ভেড়া ও ছাগলগুলিকে যে দেখাশোনা করে সেই রাখাল (shepherd ) – এরও শ্বাসকষ্ট হচ্ছে।

[আরও পড়ুন: প্রতিবন্ধকতাকে হার মানিয়ে ইচ্ছেশক্তির জয়, পা দিয়েই ছবি এঁকে উদাহরণ গড়ল ভিলাইয়ের যুবক]

ওই পশুগুলি ও তাদের রাখালের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়। ফলাফল এলে জানা যায়, রাখাল যুবকের শরীরে করোনার জীবাণু পাওয়া গেলেও পশুগুলি তাতে আক্রান্ত হয়নি। তবে তাদের ছাগলের যে প্লেগ হয় তা হয়েছে। যেটা সংক্রমিত রোগ বলেই পরিচিত। তাই রাখালকে হাসপাতালে ভরতি করার পাশাপাশি ৫০টি ছাগল ও ভেড়াকে কোয়ারেন্টাইনে পাঠানো হয়েছে।

[আরও পড়ুন: কাজের ফাঁকে লতা মঙ্গেশকরের গান গাইছে পাঞ্জাবের কৃষক দম্পতি, ভাইরাল ভিডিও]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement