২২ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  বৃহস্পতিবার ৯ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

OMG! আস্ত একটা মোবাইল গিলে ফেলল যুবক, তারপর…

Published by: Sayani Sen |    Posted: September 6, 2021 3:53 pm|    Updated: September 6, 2021 3:55 pm

Man swallows entire mobile set, undergoes surgery to remove it । Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ভিন্ন ভিন্ন মানুষের খাবার খাওয়ার অভ্যাসও আলাদাই হয়। খাবারের ক্ষেত্রে না হয় সে বৈপরীত্য মেনে নেওয়া গেল। কিন্তু আস্ত মোবাইল (Mobile) গিলে ফেলার কথা শুনেছেন কখনও? ভাবছেন তা আবার হয় নাকি? আপনি অবাক হলেও এমনই কাণ্ড ঘটল প্রিস্টিনায়।

জানা গিয়েছে নোকিয়া ৩৩১০ (Nokia 3310) সেটটি খেয়ে ফেলেছে সে। আস্ত মোবাইল গিলে খেয়ে ফেলা ওই যুবকের কী দশা হল, তা নিশ্চয়ই এবার জানতে ইচ্ছা করছে। চলুন তবে গোটা ঘটনা খোলসা করা যাক। সেপ্টেম্বরের একেবারে শুরুতে এক যুবক হাসপাতালে ভরতি হন। তাঁর সমস্যা একটাই অত্যধিক পেটে যন্ত্রণা হচ্ছে। চিকিৎসকদের সমস্যা জানান তিনি। কী কারণে যন্ত্রণা হচ্ছে তা খুঁজে বের করার পন্থা পরীক্ষা নিরীক্ষা করানো। সেই মতো ওই যুবকের এক্স রে, এন্ডোস্কোপি করানোর পরামর্শ দেন চিকিৎসক। পরীক্ষা করানো হয়। আর তাতেই সামনে এল আসল ঘটনা।

[আরও পড়ুন: কুকুরের সঙ্গে উদ্দাম যৌনতা! বিপাকে তরুণী, হতে পারে জেলও]

পরীক্ষায় স্পষ্ট বেশ আয়তনে বড় কোনও সামগ্রী গিলে ফেলেছে সে। আর সে কারণে পেটে যন্ত্রণা হচ্ছে। তড়িঘড়ি অস্ত্রোপচার না করলে ওই রোগীকে বাঁচানো সম্ভব নয় বলেই সাফ জানিয়ে দেন চিকিৎসক। সেই অনুযায়ী তাঁর অস্ত্রোপচার করা হয়। কয়েক ঘণ্টার চেষ্টায় মোবাইলটি উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে। আপাতত সুস্থ রয়েছেন তিনি। চিকিৎসকের মতে, সামান্য সময় নষ্ট হলে ওই যুবকের মৃত্যু হতে পারত। মোবাইলের ব্যাটারি বিস্ফোরণের ফলেও প্রাণহানির আশঙ্কা ছিল।

কী কারণে ওই যুবক আচমকা মোবাইল গিলে খেয়ে ফেলল, তা এখনও স্পষ্ট নয়। ওই যুবক কি আদতে মানসিক ভারসাম্যহীন, এই ঘটনাটি সামনে আসার পর থেকে সে প্রশ্নও ক্রমশ জোরাল হচ্ছে। যদিও চিকিৎসকদের মতে, এ ঘটনা নতুন নয়। এর আগেও ২০১৪ এবং ২০১৯ সালেও একইরকম ঘটনা ঘটে। অস্ত্রোপচারের সাহায্যেই তাঁদের প্রাণ বাঁচাতে সমর্থ হন চিকিৎসকরা।

[আরও পড়ুন: NEET 2021 পরীক্ষা স্থগিত করার আবেদন খারিজ করল সুপ্রিম কোর্ট]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে