BREAKING NEWS

১২ কার্তিক  ১৪২৭  শুক্রবার ৩০ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

জৈব সুরক্ষা বলয় ভাঙলে এবার আইপিএল থেকে বহিষ্কারও করা হতে পারে, কড়া নির্দেশ বোর্ডের

Published by: Abhisek Rakshit |    Posted: October 1, 2020 9:59 pm|    Updated: October 1, 2020 10:56 pm

An Images

ছবি: প্রতীকী

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক:‌ আইপিএলকে (IPL) করোনার কবল থেকে দূরে রাখতে কড়া বিসিসিআই (BCCI)। বোর্ডের তৈরি নিয়ম ভাঙলেই পেতে হবে কঠোর শাস্তি। কেউ যদি জৈব সুরক্ষা বলয় ভেঙে বাইরে বেরোন, তাহলে তাঁকে বড়সড় শাস্তির মুখে পড়তে হতে পারে। এছাড়া কোভিড (Covid-19) সংক্রান্ত অন্যান্য নিয়মাবলি না মানলেও করা হবে আর্থিক জরিমানা। এমনকী কোনও খেলোয়াড় বারবার একই ভুল করলে তাঁকে টুর্নামেন্ট থেকেও বহিষ্কার করা হতে পারে। শুধু খেলোয়াড়রা নন, নিয়ম মানতে হবে ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলোকেও। না হলে তাঁদের প্রায় ১ কোটি টাকা পর্যন্ত জরিমানা দিতে হতে পারে। এই মর্মে বৃহস্পতিবার আট দলের কাছে এসওপি’র একটা লম্বা লিস্টও পাঠিয়ে দিয়েছে বোর্ড। প্রসঙ্গত, এদিনই আবার চেন্নাইয়ের এক খেলোয়াড়ের বিরুদ্ধে জৈব সুরক্ষা বলয় ভেঙে বাইরে বেরোনোর অভিযোগ উঠেছিল। যদিও পরে চেন্নাই কর্তৃপক্ষ সেই অভিযোগ খারিজ করে দেয়।

[আরও পড়ুন:‌ জৈব সুরক্ষা ভাঙার অভিযোগ ক্রিকেটারের বিরুদ্ধে, ফের বিতর্কে ধোনির চেন্নাই]

বোর্ডের পাঠানো নির্দেশিকায় স্পষ্ট জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, বর্তমান পরিস্থিতিতে কোনও ক্রিকেটার যদি বায়ো–বাবল বা জৈব সুরক্ষা বলয় (Bio-Bubble) ভাঙেন তাহলে প্রথমবার তাঁকে সতর্ক করে ছেড়ে দেওয়া হবে। তবে ছ’‌দিনের কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে ওই ক্রিকেটারকে। দ্বিতীয়বার একই ভুল করলে এক ম্যাচের নির্বাসন এবং তৃতীয়বার একই কাজ করে বসলে টুর্নামেন্ট থেকেও তাঁকে বহিষ্কার করা হতে পারে। এছাড়া দৈনন্দিন করোনা সংক্রান্ত যে নিয়মাবলি রয়েছে সেগুলো এবং প্রত্যেক পাঁচদিনে করোনা পরীক্ষা করানো বাধ্যতামূলক। নিয়ম ভাঙলে ৬০ হাজার টাকা পর্যন্ত জরিমানা হতে পারে। তবে এই নিয়মকানুন শুধু ক্রিকেটার নয়, মানতে হবে সমস্ত সাপোর্ট স্টাফ, সঙ্গে আসা পরিবারের লোকজনদেরও। নির্দেশিকায় জানিয়েছে বোর্ড।

[আরও পড়ুন:‌ করোনা আবহেও বাতিল হচ্ছে না মহিলাদের আইপিএল! নভেম্বরে দুবাইয়ে আয়োজিত হবে টুর্নামেন্ট]

এদিকে, নিয়মভঙ্গ হলে জরিমানা হবে ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলোর। ফ্র্যাঞ্চাইজিগুলো কাউকে যদি সুরক্ষা বলয় ভেঙে ক্রিকেটার বা সাপোর্ট স্টাফদের সঙ্গে দেখা করার অনুমতি দেয় তাহলে তাঁদের জরিমানা করা হবে। প্রথমবার ১ কোটি টাকা। দ্বিতীয়বার এক পয়েন্ট এবং তৃতীয়বারও একই ভুল হলে একেবারে দু’‌পয়েন্ট কাটা যাবে। এছাড়া বারবার স্বাস্থ্যবিধি ভাঙলে কোনও ফ্র্যাঞ্চাইজির বিরুদ্ধে তদন্তও করতে পারে বোর্ড। এর পাশাপাশি নির্দেশিকায় আরও বলা হয়েছে, দুর্ভাগ্যবশত যদি দেখা যায় অসুস্থতার কারণে কোনও দলের সুস্থ ক্রিকেটারের সংখ্যা ১২ জনের কম, তাহলে ওই ম্যাচটি পিছিয়ে দিতে পারে বোর্ড। তবে একান্তই তা সম্ভব না হলে, বিপক্ষ দলকে জয়ী ঘোষণা করা হবে।‌‌

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement