২৬  শ্রাবণ  ১৪২৯  সোমবার ১৫ আগস্ট ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

শান্ত, সংযত, পরিণত…! হার্দিক রূপে নতুন ‘ধোনি’র জন্ম দিল আইপিএল ১৫

Published by: Sulaya Singha |    Posted: May 30, 2022 12:27 am|    Updated: May 30, 2022 12:37 am

IPL 2022 Final: Netizens amazed with Hardik Pandya's captaincy | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বছর কয়েক আগের কথা। বলিউড পরিচালক করণ জোহরের শো’য়ে গিয়ে এমন একটি মন্তব্য করেছিলেন হার্দিক পাণ্ডিয়া (Hardik Pandya), যা নিয়ে বিতর্কের ঝড় উঠেছিল। আট থেকে আশি, ভারতীয় অলরাউন্ডারের উপর ক্ষোভ উগরে দিতে ছাড়েননি কেউই। নিজের পারফরম্যান্স দিয়ে সেসব বিতর্কে ইতি টেনেছিলেন ঠিকই, কিন্তু এবারের আইপিএল যে পাণ্ডিয়াকে দেখল, তা একেবারে অন্যরকম।

প্লে অফ জিতে ফাইনালের (IPL 2022) টিকিট পাকা হতেই ব্যাট হাতে আনন্দে গর্জে উঠেছিলেন মিলার। কিন্তু উলটো দিকে পাণ্ডিয়াকে দেখিয়েছিল বড়ই শান্ত, সংযত, পরিণত। প্রথমবার দল চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পরও ছবিটা বদলালো না। মাত্রাতিরিক্ত উচ্ছ্বাস দেখালেন না হার্দিক। করলেন না উগ্র চিৎকার। আগুনে আস্ফালন আর প্রতিপক্ষের বিরুদ্ধে আগ্রাসী মনোভাবটা সীমাবদ্ধ রইল কেবল ২২ গজে ব্যাট আর বল হাতেই। গুজরাট চ্যাম্পিয়ন হতেই শান্তভাবে শুধু ডাগআউট থেকে বেরিয়ে মুঠো বন্ধ হাত দুটি আকাশের দিকে তুলে ধরলেন। নিঃশব্দে বুঝিয়ে দিলেন, “আমরা পেরেছি।”

[আরও পড়ুন: অবশেষে মুক্তি! দক্ষিণ আফ্রিকা সিরিজ থেকেই উঠে যাচ্ছে জৈব বলয়, জানালেন জয় শাহ]

শুভমান গিল, মিলাররা তখন আনন্দে আত্মহারা। সতীর্থরা ছুটে গিয়েছেন ঐতিহাসিক মুহূর্ত সেলিব্রেট করতে। কিন্তু এ কোন হার্দিক? তিনি একেবারে শান্তভাবে অভিনন্দন জানালেন প্রত্যেককে। ভারতীয় অধিনায়কদের মধ্যে যে মহেন্দ্র সিং ধোনিকেই চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পরও এতটা সংযত থাকতে দেখা গিয়েছে। রিয়ালিটি শো’য়ে ‘ম্যায় আজ কারকে আয়া’ বলে বিতর্ক তৈরি করা ছেলেটার এহেন পরিবর্তন সত্যিই বিস্মিত করে ক্রিকেটপ্রেমীদের। একই সঙ্গে গর্বিতও করে। 

প্লে অফেই স্বাভাবিক ভাবে প্রশ্নটা ছুটে এসেছিল হার্দিকের দিকে। এমন বদল কীভাবে ঘটল? কোনও রাখঢাক না রেখেই হার্দিক জানিয়েছিলেন, স্ত্রী নাতাশা এবং ছেলেই জীবনটা পালটে দিয়েছে। মধ্যরাত পর্যন্ত পার্টি করতে ভালবাসা ছেলেটি এখন শুধুই ক্রিকেটে ফোকাস করতে আগ্রহী। আর তাঁর এই একাগ্রতারই যেন পুরস্কার পেলেন তিনি। কার্যত আনকোড়া ক্যাপ্টেন হয়েই দলকে ট্রফি জেতালেন। পাশাপাশি ঝুলিতে ভরলেন ৪৮৩ রান ও ১০টি উইকেট। সেই সঙ্গে অধিনায়ক হিসেবে জাতীয় নির্বাচকদেরও দিয়ে রাখলেন আগাম নীরব বার্তা।

ম্যাচ শেষে নাতাশাকে জড়িয়ে ধরে আনন্দের বহিঃপ্রকাশ ঘটল হার্দিকের। স্ত্রীর সঙ্গে তুললেন সেলফিও। ঠিক যেমন গত মরশুমে চ্যাম্পিয়ন হওয়ার পর দেখা গিয়েছিল ধোনি ও সাক্ষীকে। বেটারহাফ নাতাশাই যেন কোন জাদুকাঠি বুলিয়ে চঞ্চল হার্দিককে ধীর স্থির, পরিণত করে দিয়েছেন। তাই নরেন্দ্র মোদি স্টেডিয়ামে আজ ধোনি না থাকলেও হার্দিক রূপেই নতুন ধোনিকে পেলেন দর্শকরা।          

[আরও পড়ুন: এই নিয়ে ১৪ বার, ফের উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগে রিয়াল মাদ্রিদের জয়ধ্বজা]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে