BREAKING NEWS

১২ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  শনিবার ২৮ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

শাস্ত্রী জমানা শেষ? ভারতীয় দলের কোচ নিয়োগের বিজ্ঞাপন দিল বিসিসিআই

Published by: Sulaya Singha |    Posted: July 16, 2019 3:31 pm|    Updated: July 16, 2019 3:31 pm

Team India coach Ravi Shastri likely to be removed

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ভারতীয় দলে শাস্ত্রী জমানা শেষ? চাকরি খোয়াতে চলেছেন হেড স্যর রবি শাস্ত্রী? বদলে যাবে ব্যাটিং, বোলিং, ফিল্ডিং কোচও! একদিকে মহেন্দ্র সিং ধোনির অবসর নিয়ে যখন জল্পনা তুঙ্গে, ঠিক তখনই টিম ইন্ডিয়ার কোচ ও সাপোর্ট স্টাফদের নিয়ে বড়সড় সিদ্ধান্ত নিয়ে ফেলল সিওএ। জানিয়ে দেওয়া হল, দলে তাঁদের সময় ফুরিয়ে এসেছে।

[আরও পড়ুন: বিশ্বকাপের সেরা একাদশ ঘোষণা আইসিসির, ঠাঁই পেলেন দুই ভারতীয়]

নিউজিল্যান্ডের কাছে হেরে বিশ্বকাপের সেমিফাইনাল থেকে বিদায় নিয়েছিল ভারত। প্রশ্ন উঠেছে দলের ব্যাটিং অর্ডার নিয়ে। কেন গোটা টুর্নামেন্টে চার নম্বর ব্যাটসম্যানই ঠিক করে উঠতে পারল না ম্যানেজমেন্ট? শেষ চারের লড়াইয়ে ধোনিকে সাত নম্বরে নামানো নিয়েও সমালোচনা হয়েছে। এমন পরিস্থিতিতে সুপ্রিম কোর্ট নিযুক্ত বিসিসিআইয়ের প্রশাসনিক কমিটি (সিওএ) সাফ জানিয়ে দিল, এবার দলে কিছু পরিবর্তনের সময় এসেছে। মঙ্গলবার সিওএ-র তরফে একটি বিজ্ঞাপন দেওয়া হয়। যেখানে টিম ইন্ডিয়ার জন্য সাপোর্ট স্টাফ নেওয়ার কথাও বলা হয়েছে। একটি মেলে সিওএ লিখেছে, “ভারতীয় সিনিয়র দলের জন্য নিম্নলিখিত পদে প্রার্থী চাইছে বিসিসিআই। আগ্রহীরা আগামী ৩০ জুলাই বিকেল ৫টার মধ্যে আবেদন জানাতে পারেন। [email protected] মেল আইডি-তে পাঠাতে হবে বায়োডেটা।” হেড কোচ, ব্যাটিং-বোলিং-ফিল্ডিং কোচ, ফিজিও, স্ট্রেন্থ অ্যান্ড কন্ডিশনিং কোচ ও প্রশাসনিক ম্যানেজার পদের জন্য আবেদন জানানো যাবে।

[আরও পড়ুন: ২০২৩ বিশ্বকাপ জিতবে ভারত? পরিসংখ্যান বলছে সে কথাই]

ভারতীয় দলের কোচ হিসেবে বিশ্বকাপ পর্যন্তই চুক্তি ছিল রবি শাস্ত্রীর। তবে কোচ এবং বাকি সাপোর্ট স্টাফদের অতিরিক্ত ৪৫ দিন সময় দেওয়া হয়েছে। তবে নিয়োগ প্রক্রিয়ায় বর্তমান কোচ এবং সাপোর্ট স্টাফরাও সরাসরি অংশ নিতে পারবেন। যদিও নিয়োগের ক্ষেত্রে বিসিসিআইয়ের সিদ্ধান্তই হবে চূড়ান্ত। বিশ্বকাপ থেকে ছিটকে যাওয়ার পর বিরাট কোহলির নেতৃত্ব নিয়েও উঠেছে প্রশ্ন। অনেক প্রাক্তনই রোহিতকে সীমিত ওভারের অধিনায়ক করার দাবি তুলেছেন। এই বিষয়েও আলোকপাত করার কথা বিসিসিআইয়ের। বিশ্বকাপে বিপর্যয়ের পরও শোনা গিয়েছিল এখনই শাস্ত্রীর চাকরি যাচ্ছে না। তবে সিওএর বিজ্ঞাপনই ইঙ্গিত দিয়ে দিল যে শাস্ত্রীর জমানা শেষ হতে চলেছে। ২০১৩ চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফির পর থেকে আর কোনও আইসিসি টুর্নামেন্ট জেতেনি ভারত। তাই এবার গোটা ব্যাপারটা কড়া হাতেই সামলাতে চাইছে প্রশাসক কমিটি।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে