BREAKING NEWS

১৭ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৭  সোমবার ১ জুন ২০২০ 

Advertisement

‘ভারতের বিরুদ্ধে হারের পর আত্মহত্যা করতে চেয়েছিলাম’, বিস্ফোরক পাক কোচ

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: June 25, 2019 12:37 pm|    Updated: June 25, 2019 12:37 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বিশ্বকাপে ভারতের বিরুদ্ধে হার যেন পাক শিবিরে বিনা মেঘে বজ্রপাত। ধাক্কাটা এতটাই গভীর যে পাকিস্তানের কোচ মিকি আর্থার নাকি ভারত ম্যাচের পর আত্মহত্যা করতে চেয়েছিলেন। এক সংবাদসংস্থাকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে মিকি নিজেই একথা জানিয়েছেন। তিনি বলেন, “একটা হারের ধাক্কা সামলে ওঠার আগেই আর একটা হার। বিশ্বকাপের মতো মঞ্চে যে কোনও দলের জন্যই এটা বড় ধাক্কা। সমর্থকদের প্রত্যাশা, মিডিয়ার চাপ, এসবের মধ্যে নিজের অস্তিত্ব টিকিয়ে রাখাই কঠিন। রবিবার ভারতের বিরুদ্ধে হারের পর আত্মহত্যা করতে ইচ্ছে করছিল।”

[আরও পড়ুন: বিশ্বকাপে নেই রাসেল, ভারতের বিরুদ্ধে নামার আগে চিন্তায় ক্যারিবিয়ানরা]

উল্লেখ্য, ২০০৭ সালে ওয়েস্ট ইন্ডিজে বিশ্বকাপ চলাকালীনই রহস্যজনকভাবে মৃত্যু হয় তৎকালীন পাক কোচ বব উলমারের। যা নিয়ে রীতিমতো আলোড়ন পড়ে যায় ক্রিকেটবিশ্বে। অস্বস্তিতে পড়ে যায় পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডও। মৃত্যুর আগে উলমার প্রবল পেশাগত চাপের মধ্যে ছিলেন। এবারেও কার্যত একই পরিস্থিতি পাকিস্তানের। বিশ্বকাপের গ্রুপ পর্ব পেরিয়ে পরবর্তী রাউন্ডে যাওয়াটা রীতিমতো অনিশ্চিত। এখানেই প্রশ্ন উঠছে, তবে কী উলমারের মতোই প্রবল চাপে রয়েছেন আর্থারও। যদিও, পাকিস্তান কোচ এসব কিছু বলেননি। তিনি নিজের বক্তব্যের যুক্তি হিসেবে দেখিয়েছেন পরপর হারের হতাশাকেই।

[আরও পড়ুন: ব্যাটে-বলে ইতিহাস গড়লেন শাকিব, একপেশে ম্যাচে ধরাশায়ী আফগানরা]

আর্থার বলেন, “ভারতের বিরুদ্ধে হারের পরে মানসিকভাবে এতটাই ভেঙে পড়েছিলাম যে, মনে হয়েছিল আত্মহত্যা করি।” আসলে, পাকিস্তানের কোচ যে দেশীয় সংবাদমাধ্যম ও বিশেষজ্ঞদের ভূমিকায় একেবারেই সন্তুষ্ট নন, সেকথা তাঁর এই বক্তব্যেই স্পষ্ট। আসলে, পাকিস্তান বোর্ডও আর্থারের ভূমিকায় একেবারেই সন্তুষ্ট নয়। শোনা যাচ্ছে বিশ্বকাপ শেষ হলেই তাঁকে সরিয়ে দেওয়া হতে পারে। তাঁর সঙ্গে চুক্তি নবীকরণ করার কোনও ইচ্ছাই নেই পাক বোর্ডের। তাছাড়া, পাক ক্রিকেট মহলও আর্থারের ভূমিকায় সন্তুষ্ট নয়। তবে, আর্থার এখন নিজের ভবিষ্যতের কথা ভাবছেন না। আপাতত তাঁর লক্ষ্য পাকিস্তানকে বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে তোলা। দক্ষিণ আফ্রিকাকে হারিয়ে এখনও শেষ চারে যাওয়ার আশা বাঁচিয়ে রেখেছেন সরফরাজরা।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement