৭ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৬  মঙ্গলবার ২১ মে ২০১৯ 

Menu Logo নির্বাচন ‘১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও #IPL12 ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

স্টাফ রিপোর্টার: ক্লাবের শতবর্ষ উপলক্ষে অনবদ্য প্রয়াস নিল ইস্টবেঙ্গল ক্লাব। এদিন কার্যকরী কমিটির মিটিংয়ে সদস্যরা সিদ্ধান্ত নিলেন, বিভিন্ন বছরের অধিনায়কদের সস্ত্রীক সংবর্ধনা দেওয়া হবে শতবর্ষের অনুষ্ঠানে। ১ আগস্ট থেকে শুরু হচ্ছে ইস্টবেঙ্গলের শতবর্ষের অনুষ্ঠান। তবে, তার এক সপ্তাহ আগে থেকেই শতবর্ষর অনুষ্ঠানে ঢাকে কাঠি পড়ে যাচ্ছে ক্লাবে। ঠিক হয়েছে, শতবর্ষর অনুষ্ঠান শুরু হওয়ার সাতদিন আগেই কুমোরটুলি পার্ক থেকে সকাল ১০ টায় এক বর্নাঢ্য র‌্যালি হবে ময়দানের ক্লাব পর্যন্ত। বলা যায়, সেই র‌্যালি দিয়েই শুরু হয়ে যাবে ক্লাবের শতবর্ষের অনুষ্ঠান।

[আরও পড়ুন: ইস্টবেঙ্গলের পর মোহনবাগানেও শুরু স্প্যানিশ জমানা, নাম ঘোষণা নয়া কোচের]

শতবর্ষ পালনে মাথায় রাখা হচ্ছে, ফুটবলারদের যেন যথাযথ সম্মান দেওয়া হয়। সেই ভাবনা থেকেই বিভিন্ন সময়ের অধিনায়কদের সস্ত্রীক সংবর্ধনা দেওয়ার পরিকল্পনা। তবে ফুটবলারদের কেন্দ্র করে আরও বিভিন্ন অনুষ্ঠান হবে ক্লাবে। প্রত্যেকবারই ভারত গৌরব এবং ক্লাবের দুই প্রাক্তন ফুটবলারকে জীবনকৃতি সম্মানে ভূষিত করা হয়। ভারত গৌরব কে হবেন, এদিনের মিটিংয়ে তা ঠিক হয়নি। তবে সংবাদ প্রতিদিনে আগেই প্রকাশিত হয়েছিল, শতবর্ষে জীবনকৃতি সম্মান দেওয়ার জন্য বেছে নেওয়া হবে দুই প্রাক্তন ফুটবলার মনোরঞ্জন ভট্টাচার্য এবং ভাস্কর গঙ্গোপাধ্যায়কে। এদিনের মিটিংয়ে সেই সিদ্ধান্তেই সরকারি ভাবে শিলমোহর দিলেন কার্যকরী কমিটির সদস্যরা। শতবর্ষের মরশুমে সংবর্ধনা দেওয়ার জন্য সেরা দুই সাংবাদিকের নামও এদিন ঠিক করে ফেলেন সদস্যরা। সংবাদ প্রতিদিনের যুগ্ম সম্পাদক গৌতম ভট্টাচার্য এবং প্রখ্যাত ধারাভাষ্যকার এবং ফুটবল লিখিয়ে নভি কাপাডিয়া। এই দুই বরেণ্য সংবাদিককে সম্মান জানানো হবে।

[আরও পড়ুন: ইগরকেই সুনীল ছেত্রীদের কোচ হিসাবে বেছে নিল টেকনিক্যাল কমিটি]

গত মরশুমের পারফরম্যান্সের ভিত্তিতে সেরা ফুটবলার কে হবেন, তা নিয়ে এদিন চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নিতে পারেননি কমিটির সদস্যরা। তবে দু’জন ফুটবলারের নাম ঠিক হয়ে গিয়েছে। চুলোভা এবং ধানমুইয়া। এই দু’জনের মধ্যে একজনকে বেছে নেওয়া হবে।

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং