BREAKING NEWS

১২ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  রবিবার ২৯ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

স্প্যানিশ ফুটবলে বিরাট গড়াপেটা চক্র, গ্রেপ্তার এটিকের প্রাক্তন অধিনায়ক

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: May 29, 2019 4:25 pm|    Updated: May 29, 2019 4:25 pm

Former ATK player Borja Fernandez detained for match fixing in Spain

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: এটিকের হয়ে দু’বার আইএসএল জিতেছেন তিনি। বোরহা ফার্নান্ডেজ। সেই বোরহাই কেলেঙ্কারিটা ঘটিয়ে ফেললেন। ভ্যালেন্সিয়ার আগামী বছর চ্যাম্পিয়ন্স লিগে খেলা নিশ্চিত করতে তাদের বিরুদ্ধে রিয়াল ভায়াদালিদ দুই গোলে হারল। যাতে বড় ভূমিকা থাকল ক্যাপ্টেন বোরহার। এক কথায় যাকে বলে গড়াপেটা। যার জন্য মঙ্গলবারই তাঁকে গ্রেপ্তার করেছে স্পেনের পুলিশ।

লা লিগায় বেটিংয়ের তদন্তে নেমে হঠাৎই বিশাল ‘ফিক্সিং র‌্যাকেট’-এর খোঁজ পেয়েছে স্প্যানিশ পুলিশ। যাতে নাম উঠে এসেছে বোরহা ফার্নান্ডেজের। অভিযোগ, ভ্যালেন্সিয়ার কাছে ভায়াদালিদের হার নিশ্চিত করার জন্য বেটিং সিন্ডিকেটের থেকে ভাল পরিমাণ ইউরো পেয়েছেন বোরহা। যেহেতু তিনি অধিনায়ক। এবং, মাত্র দশ দিন আগে হওয়া ওই ম্যাচের পরই তিনি অবসর নেন। স্পেন ফুটবলে গড়াপেটার ওই ঘটনাটাই নাকি সাম্প্রতিকতম। পুলিশি ভাষায় যাকে বলে হচ্ছে ‘ফাইনাল ট্রিগার’।

[আরও পড়ুন: পারফরম্যান্স দিয়েই সমর্থকদের গর্বিত করতে চান মোহনবাগানের নয়া কোচ]

একা বোরহা নন। তদন্তের ফল বলছে, অন্তত এগারো জন বর্তমান ও প্রাক্তন প্রথম ডিভিশনের ফুটবলার এই কেলেঙ্কারিতে যুক্ত। যার মাথা প্রাক্তন রিয়াল মাদ্রিদ তারকা রাউল ব্রাভো। পুলিশের ভাষায় ‘রিং-লিডার’। তাঁরই নেতৃত্বে নাকি স্প্যানিশ ফুটবলে গড়াপেটার সংগঠন চলছে। বেটিং সিন্ডিকেটের সঙ্গে যার সরাসরি যোগসাজশ আছে। তদন্তে নাম উঠে এসেছে গেটাফের স্যামুয়েল সেইজেরও। আসলে পুলিশ কর্তৃপক্ষের নজরে প্রাথমিকভাবে এসেছিলেন স্যামুয়েলই। তাঁর ক্ষেত্রে তদন্তে নেমেই এত বড় চক্রের সন্ধান মেলে। মঙ্গলবার স্পেন পুলিশ কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, অভিযুক্ত এগারো জন ফুটবলারকেই গ্রেপ্তার করা হতে পারে।

[আরও পড়ুন: আইএসএল ছেড়ে ফের আই লিগে, মোহনবাগানে ফিরতে চলেছেন ধনচন্দ্র]

বোরহা-সহ যাঁদের মঙ্গলবার গ্রেপ্তার করা হল তাঁরা রাউল ব্রাভো, ইনিগো লোপেজ এবং কার্লোস আরান্ডা। স্যামুয়েল সেইজকে আগেই গ্রেপ্তার করেছিল পুলিশ। ভায়াদালিদের অফিস থেকেই গ্রেপ্তার করা হয় বোরহাকে। স্বভাবতই সব অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। গ্রেপ্তার হতেও অস্বীকার করেছিলেন প্রথমে। কিন্তু, পরে আইনজ্ঞের পরামর্শে পুলিশকে সহযোগিতা করতে রাজি হন। শুধু প্রথম ডিভিশন নয়, দ্বিতীয় ডিভিশনেও গড়াপেটার আঁচ মিলেছে। যিনি এই গড়াপেটা কান্ডের খবরটা প্রথম ‘ব্রেক’ করেন, তিনি স্পেনের ক্রাইম রিপোর্টার নাকো আবাদ। তিনিই তিন জনের নাম জানিয়েছেন। যে দলে বোরহাও আছেন। নাকো বলেছেন, “ক্যাপ্টেন (বোরহা) নিজে বেটিং সিন্ডিকেটের সঙ্গে যুক্ত। প্রমাণাদি সেদিকেই ইঙ্গিত করে। তবে এর মানে এই নয় যে গোটা দলটাই গড়াপেটায় নেমেছিল। পুলিশ ব্যাপারটা দেখছে।”

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে