০৫ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  রবিবার ২২ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

করোনার টিকা নিতে নারাজ জকোভিচকে অস্ট্রেলিয়ায় ঢুকতেই দিল না প্রশাসন, তুঙ্গে বিতর্ক

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: January 6, 2022 11:32 am|    Updated: January 6, 2022 11:56 am

Tennis star Novak Djokovic denied entry to Australia, visa cancelled | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: নিজের যুক্তিতে অনড় নোভাক জকোভিচ (Novak Djokovic)। কিছুতেই করোনার টিকা তিনি নেবেন না। আর নোভাকের এই জেদের জন্যই আজ বেনজির বিতর্কের সামনে দাঁড়িয়ে টেনিস বিশ্ব। এই মুহূর্তে বছরের প্রথম গ্র্যান্ড স্লাম অস্ট্রেলীয় ওপেন (Australian Open) খেলতে গিয়ে মেলবোর্ন বিমানবন্দরে আটকে রয়েছেন জকোভিচ। টিকাকরণ সম্পূর্ণ না হওয়ায় বিশ্বের এক নম্বর টেনিস তারকাকে অস্ট্রেলিয়ার মাটিতে ঢুকতেই দিতে চায় না সেদেশের প্রশাসন।

Tennis star Novak Djokovic denied entry to Australia, visa cancelled

জকোভিচের টিকাকরণ (Corona Vaccination) না হওয়া সত্ত্বেও বিশেষ ছাড় দিয়েছে অস্ট্রেলিয়ান ওপেন কর্তৃপক্ষ। সেই বিশেষ ছাড়পত্র নিয়েই বুধবার সন্ধেয় মেলবোর্ন বিমানবন্দরে পৌঁছান সার্বিয়ার টেনিস তারকা। কিন্তু সেখানে তাঁকে আটকে দেওয়া হয়। প্রশাসনের তরফে জানানো হয়, সার্বিয়ার তারকার ভিসার আবেদনপত্রে ভুল থাকায় তাঁকে বিমানবন্দর থেকে বেরোনোর অনুমতি দেওয়া হয়নি। কী ভুল? প্রশাসনের দাবি, টিকা নেওয়া না থাকলেও কীসের ভিত্তিতে তিনি বিশেষ মেডিক্যাল প্যানেলের ছাড়পত্র পেলেন, তার কোনও স্পষ্ট উত্তর নাকি তিনি দিতে পারেননি। অস্ট্রেলিয়ার প্রধানমন্ত্রী স্কট মরিসনের (Scott Morrison) বক্তব্য, আইন সবার জন্য এক। তাই জকোভিচকেও আইন মানতে হবে।

[আরও পড়ুন: করোনায় আক্রান্ত নাদাল, সোশ্যাল মিডিয়ায় নিজেই জানালেন টেনিস তারকা]

কিন্তু জকোভিচও টিকা নিতে নারাজ। এর আগে একাধিকবার তিনি জানিয়েছেন, “আমি টিকার বিরুদ্ধে নই। টিকা নিয়ে সামান্য পার্শ্ব প্রতিক্রিয়ায় যদি রোগ ভাল হয়, সেটা হতেই পারে। কিন্তু আমার বক্তব্য হল, আমার ইচ্ছার বিরুদ্ধে কেউ আমার শরীরে কোনও পদার্থ ঢুকিয়ে দিক সেটা আমি চাই না। জোকারের এই অনড় মনোভাবের জন্য বিপাকে পড়েছে টেনিস বিশ্ব।

[আরও পড়ুন: পাক চ্যালেঞ্জ উড়িয়ে এশিয়ান চ্যাম্পিয়ন্স ট্রফিতে ব্রোঞ্জ জিতল ভারতের হকি দল]

অস্ট্রেলিয়া সরকার জানিয়ে দিয়েছে, জকোভিচের ভিসা বাতিল করা হয়েছে। আপাতত তাঁকে বিমানবন্দরেই রাখা হয়েছে। বৃহস্পতিবার তাঁকে দেশে ফিরে যেতে হবে। যদিও প্রশাসনের সিদ্ধান্ত মানতে নারাজ সার্বিয়ার টেনিস তারকা। তিনি ইতিমধ্যেই ভিসা বাতিলের সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে অস্ট্রেলিয়ার আদালতে আবেদন করেছেন। জকোভিচের বাবা আবার জানিয়ে দিয়েছেন, তাঁর ছেলে রাজনীতির শিকার। কোনওভাবে যদি বিশ্বের এক নম্বর টেনিস তারকাকে অজি ওপেন না খেলে দেশে ফিরতে হয়, তাহলে সে নায়কের সংবর্ধনা পাবে।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে