৭ আশ্বিন  ১৪২৭  শুক্রবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

করোনার প্রকোপ ঠেকাতে মরিয়া চেষ্টা! এভারেস্ট অভিযান বন্ধ করল নেপাল

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: March 13, 2020 1:16 pm|    Updated: March 13, 2020 2:25 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনা ভাইরাসের জেরে বিশ্বজুড়ে আতঙ্কের পরিবেশ তৈরি হয়েছে। প্রতিদিনই বাড়ছে মৃতের সংখ্যা। পরিস্থিতির ভয়াবহতা দেখে গত বুধবার এই মারণ ভাইরাসের সংক্রমণকে বিশ্বব্যাপী মহামারি বলে ঘোষণা করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (WHO)। এর ফলে সংকট তৈরি হয়েছে অর্থনীতিতেও। অবস্থা দেখে ২০০৮ সালের মতো আর্থিক মন্দার পরিস্থিতি তৈরি হতে পারে বলে আশঙ্কা করছেন বিশেষজ্ঞরা। ইতিমধ্যে বিভিন্ন দেশের সরকার বিদেশিদের প্রবেশের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করেছে। ফলে সবথেকে ক্ষতিগ্রস্ত হয়ে পড়েছে পর্যটন ব্যবসা। করোনার প্রকোপ থেকে বাঁচতে এবার বিশ্বের সর্বোচ্চ পর্বতশৃঙ্গ মাউন্ট এভারেস্টের দরজা বন্ধ করল নেপাল।

শুক্রবার নেপালের প্রশাসনের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে, বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার পক্ষ থেকে করোনা ভাইরাসকে বিশ্বব্যাপী মহামারি ঘোষণার পরেই গতকাল চিন তাদের দিক থেকে এভারেস্টে পর্বতারোহণের উপর নিষেধাজ্ঞা জারি করে। এরপরই নেপালের মন্ত্রিসভায় এই বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। নেপাল থেকে শুরু হওয়া মাউন্ট এভারেস্টের সমস্ত অভিযান বন্ধ রাখার পক্ষে সায় দেন সবাই। এরপরই এখান থেকে এভারেস্টের ওঠার সমস্ত রাস্তা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে। বিদেশি কোনও পর্যটককেই আর ভিসা দেওয়া হচ্ছে না।

[আরও পড়ুন: ইটালিতে করোনায় মৃতের সংখ্যা ছাড়াল হাজার, বন্ধ রোমের চার্চগুলিও]

এপ্রসঙ্গে নেপালের সংস্কৃতি, পর্যটন ও অসামরিক বিমান মন্ত্রকের মন্ত্রী যোগেশ ভট্টরাই বলেন, করোনা ভাইরাসের কারণে বসন্তকালে হওয়া এভারেস্টের সমস্ত অভিযান বাতিল করা হয়েছে। এই মাসে গোটা বিশ্বের পরিস্থিতির দিকে নজর রেখেই এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। আগামীতে পরিস্থিতি ফের খতিয়ে দেখে এই সিদ্ধান্ত পুর্নবিবেচনা করা হবে।

[আরও পড়ুন: করোনায় আক্রান্ত কানাডার প্রধানমন্ত্রীর স্ত্রী, কোয়ারেন্টাইনে জাস্টিন ট্রুডোও]

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, বসন্তকাল অর্থাৎ এপ্রিলের মাঝামাঝি থেকে মে মাসের শেষ পর্যন্ত বিশ্বের নানা প্রান্ত থেকে প্রচুর মানুষ এভারেস্টে পর্বতারোহণ করতে আসেন। গত বছরের এই সময় রেকর্ড গড়ে ৮৮৫ জন পর্বতারোহী এভারেস্টে উঠেছিলেন। এর মধ্যে নেপালের দিক থেকে গিয়েছিলেন ৬৪৪ জন ও তিব্বতের দিক থেকে উঠেছিলেন ২৪১ জন।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement