২২  শ্রাবণ  ১৪২৯  সোমবার ৮ আগস্ট ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

আমেরিকার গর্ভপাত ক্লিনিকে গোপনীয়তা রক্ষায় বড় পদক্ষেপ গুগলের

Published by: Biswadip Dey |    Posted: July 2, 2022 5:11 pm|    Updated: July 2, 2022 5:12 pm

Google to delete users' location history on US abortion clinic। Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: গত সপ্তাহেই গর্ভপাতকে (Abortion) নিষিদ্ধ ঘোষণা করে রায় দিয়েছে মার্কিন সুপ্রিম কোর্ট (USA Supreme Court)। যার ফলে পাঁচ দশকের পুরনো আইনে এসেছে ঐতিহাসিক বদল। এই রায় নিয়ে আলোচনা চলছে সারা বিশ্বেই। এই পরিস্থিতিতে এবার বিশ্বের পয়লা নম্বর সার্চ ইঞ্জিন গুগল (Google) এক নতুন ঘোষণা করল। সেই ঘোষণায় জানিয়ে দেওয়া হয়েছে, গর্ভপাতের ক্লিনিকের মতো স্থানে কোনও ইউজার গেলে তাঁর ব্যক্তিগত গোপনীয়তাকে মান্যতা দেবে গুগল। সেক্ষেত্রে সেই ইউজারের লোকেশন হিস্ট্রি ডিলিট করে দেওয়া হবে।

গুগল কর্তা জেন ফিটজপ্যাট্রিক একটি ব্লগে এই প্রসঙ্গে লিখেছেন, ”যদি গুগল সিস্টেম জানতে পারে কোনও ব্যক্তি গর্ভপাতের ক্লিনিকে গিয়েছেন, তাহলে লোকেশন ও হিস্ট্রি ডিলিট করে দেবে।” সেই সঙ্গে তিনি এও জানিয়েছেন, গুগল কোনও প্রজনন কেন্দ্র, ওজন কমানোর ক্লিনিকের মতো স্থানে কোনও ইউজার গেলে সেই ডেটা সংরক্ষণ করে না।

[আরও পড়ুন: এখনও কার্যকর হয়নি কেন্দ্রের নয়া শ্রম আইন, কোন ফাঁসে আটকে নিয়মগুলি?]

গর্ভপাত নিয়ে ২৪ জুন প্রায় পাঁচ দশক পুরনো গর্ভপাত সংক্রান্ত আইন বাতিল করে দেয় আমেরিকার সুপ্রিম কোর্ট। আদালত সাফ জানায়, আমেরিকায় গর্ভপাত সাংবিধানিক অধিকার নয়। ফলে মার্কিন মুলুকে প্রায় লক্ষ লক্ষ মহিলা ‘রাইট টু অ্যাবর্ট’ বা গর্ভপাতের আইনি অধিকার থেকে বঞ্চিত হয়েছেন। তারপরই প্রতিবাদীদের ভিড় বাড়তে থাকে শীর্ষ আদালতের সামনে। শুধু আদালত চত্বর নয়, বিক্ষোভের ঢেউ ছড়িয়ে পড়েছে দেশের নানা প্রান্তেও। সুপ্রিম কোর্টের এই রায় নারী স্বাধীনতার বিরোধী বলে দাবি করেছেন বিক্ষোভকারীরা।

প্রতিবাদে শামিল হয়েছেন সেলেব্রিটি থেকে আমজনতা। কিন্তু এবার শীর্ষ আদালতের রায়ের বিরোধিতা করছে প্রাদেশিক আদালতগুলি। ফ্লোরিডা সার্কিট কোর্টের বিচারক জন কুপার জানিয়েছেন, গর্ভপাত (USA Abortion Protest) সমর্থনকারী দলগুলির কাছ থেকে পিটিশন চাওয়া হয়েছে। তার উপরে ভিত্তি করেই সাময়িকভাবে গর্ভপাতের উপর থেকে নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়া হবে। তবে গর্ভাবস্থার ১৫ সপ্তাহ কেটে গেলে তবেই গর্ভপাতের অনুমতি দেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন জন। কেন্টাকির বিচারপতির তরফে বলা হয়েছে, সাময়িকভাবে গর্ভপাতের উপর থেকে সব ধরনের নিষেধাজ্ঞা তুলে নেওয়া হচ্ছে।

[আরও পড়ুন: ভুল করে ভারতে ঢুকে দিশাহারা, কান্নায় অস্থির পাক শিশু, ঘরে ফেরাল মানবিক BSF]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে