BREAKING NEWS

১৩ কার্তিক  ১৪২৭  শুক্রবার ৩০ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

‘করোনায় মৃত্যু নিয়ে ভারত-চিন সঠিক তথ্য দিচ্ছে না’, পিঠ বাঁচাতে বিতর্কসভায় দাবি ট্রাম্পের

Published by: Paramita Paul |    Posted: September 30, 2020 10:30 am|    Updated: September 30, 2020 10:33 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: প্রথম প্রেসিডেন্সিয়াল বিতর্কে নিজের পিঠ বাঁচাতে ‘পরম বন্ধু’ ভারতকে ঢাল করলেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প (Donald Trump)। মার্কিন মুলুকের করোনা পরিস্থিতি নিয়ে প্রতিপক্ষ জো বিডেনের আক্রমণের কার্যত ধরাশায়ী হন তিনি। ঠিক সেই মুহূর্তে ভারত-চিন-রাশিয়ার বিরুদ্ধে করোনা সংক্রান্ত তথ্য গোপনের অভিযোগ আনলেন ট্রাম্প।

নির্বাচন মার্কিন মুলুকে অথচ বারবার নাম জড়াচ্ছে ভারতের। কখনও প্রেসিডেন্টের প্রচারের ভিডিওতে স্থান পেয়েছেন ভারতীয় প্রধানমন্ত্রী, তো কখনও ভাইস প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থী কমলা হ্যারিসের স্মৃতিচারণায় উঠে এসেছে ভারতের নাম। দেশের প্রথম প্রেসিডেন্সিয়াল বিতর্কেও ভারতকে টেনে আনলেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। সরাসরি বিতর্কসভায় ডেমোক্র্যাট প্রার্থী জো বিডেন (Joe Biden) বলেন, “আমেরিকায় ৭০ লাখ মানুষ করোনা ভাইরাসের কবলে। মহামারী রুখতে প্রেসিডেন্টের কোনও পরিকল্পনাই নেই।” ট্রাম্পকে মিথ্যেবাদী তকমা দিয়ে বিডেন বলেন, “ট্রাম্প যা বলছেন সব কিছু মিথ্যে। সবাই জানেন উনি মিথ্যেবাদী। আপনাদের মধ্যে কতজন আজ সকালে উঠে দেখেছেন, ঘরের একটা চেয়ার খালি কারণ কেউ কোভিডে মারা গিয়েছেন?”

[আরও পড়ুন : ফের হামলার আশঙ্কা, মার্কিন হেফাজতে ট্রাম্পকে বিষাক্ত চিঠি পাঠানোয় অভিযুক্ত মহিলা]

এই আক্রমণের জবাব দিতে গিয়েই চিরাচরিতভাবে চিনকে টেনে আনেন ট্রাম্প। তবে এবার একই আসনে বসালেন ভারত ও রাশিয়াকেও। বললেন, “এটা চিনের দোষ। চিন (China), ভারত (India) কোনও দিন আপনাকে সঠিক তথ্য দেবে না। আপনি জানেন না চিনে কোভিডে কতজনের মৃত্যু হয়েছে।” ট্রাম্পের ব্যাখ্যা, এই দুই দেশ তথ্য গোপন করেছে বলে আমেরিকার মৃত্যুর সংখ্যা এত বেশি বলে মনে হচ্ছে। তবে শুধু করোনা (Corona Virus) নিয়ে নয়, জলবায়ু পরিবর্তনের বিষয় বলতে গিয়েও ভারতের কথা টানলেন ট্রাম্প। মার্কিন প্রেসিডেন্টের অভিযোগ, চিন-রাশিয়া-ভারত বাতাসকে দূষিত করছে।

নভেম্বরে ভোটের আগে তিনদফায় সরাসরি বিতর্কে অংশ নেবেন প্রেসিডেন্ট ও ভাইস প্রেসিডেন্ট পদপ্রার্থীরা। ভারতীয় সময় বুধবার সকাল সাড়ে ছ’টা নাগাদ প্রথমবার বিতর্কে মুখোমুখি হলেন রিপাবলিকান প্রার্থী ডোনাল্ড ট্রাম্প ও ডেমোক্র্যাট প্রার্থী জো বিডেন। মোট ছটি ইস্যুতে বিতর্ক হয়। এর মধ্যে রয়েছে, দু’জনের কাজের খতিয়ান, সুপ্রিম কোর্ট, কোভিড-১৯, দেশের অর্থনীতি, বর্ণবিদ্বেষ ও হিংসা এবং ভোটে কারচুপি। উত্তপ্ত বিতর্ক সভায় ট্রাম্পকে মিথ্যেবাদি, জোকার বলে কটাক্ষ করেন বিডেন। পালটা রাশিয়ার হাতের পুতুল বলে ডেমোক্র্যাট প্রার্থীর বিরুদ্ধে তোপ দাগেন ট্রাম্প। বিতর্কে উঠে আসে মার্কিন প্রেসিডেন্টের কর ফাঁকি প্রসঙ্গও। অভিযোগ খণ্ডন করে তাঁর দবি, তিনি লক্ষ-লক্ষ টাকা কর মিটিয়েছেন। বরং বিডনের ছেলের বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ আনলেন ট্রাম্প। সবমিলিয়ে প্রথম বিতর্কসভাই ছিল উত্তপ্ত। যা দেখে নভেম্বরে ভোটের আঁচ এখনই টের পাওয়া যাচ্ছে।

[আরও পড়ুন :‘লাদাখকে ভারতের অংশ বলে মানেই না চিন’, নয়া প্ররোচনা বেজিংয়ের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement