BREAKING NEWS

৪ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

শ্রীলঙ্কার গির্জা ও হোটেলে ধারাবাহিক বিস্ফোরণ, ক্রমশই বাড়ছে মৃতের সংখ্যা

Published by: Tanumoy Ghosal |    Posted: April 21, 2019 10:44 am|    Updated: April 21, 2019 1:44 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ইস্টারের প্রার্থনা চলাকালীন ধারাবাহিক বিস্ফোরণে কেঁপে উঠল শ্রীলঙ্কা। তিনটি চার্চ ও তিনটি হোটেল-সহ অন্তত  ছ’টি জায়গায় বিস্ফোরণ হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে বিস্ফোরণে মৃত্যুর সংখ্যা বাড়তে থাকে৷ এখনও পর্যন্ত পাওয়া খবর অনুযায়ী,মৃতের সংখ্যা ১৫৬ , যার মধ্যে ৩৫জন বিদেশি৷ আহত প্রায় তিনশো৷ এদিকে এই বিস্ফোরণে কোনও ভারতীয় আহত কিংবা নিহত হয়েছেন কিনা, তা খতিয়ে দেখা হচ্ছে বলে জানিয়েছেন বিদেশমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ। শ্রীলঙ্কার এই বিস্ফোরণের তীব্র নিন্দা করেছেন প্রধানমন্ত্রী রনিল বিক্রমসিংঘে৷ টুইট করে বিস্ফোরণে নিহতদের পরিবারকে সমবেদনা জানিয়েছেন নরেন্দ্র মোদি, রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ, মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

কলম্বোয় তখন সকাল পৌনে ন’টা। ইস্টার উপলক্ষে রবিবার গির্জায় প্রার্থনায় শামিল হয়েছিলেন বহু মানুষ। আমচকাই বিস্ফোরণের শব্দ শোনা যায় কলম্বোর সেন্ট অ্যান্টোনিও চার্চে। ঘটনার আকস্মিকতায় হতবাক হয়ে যান সকলেই। যাঁরা ওই গির্জায় প্রার্থনা করতে এসেছিলেন, তাঁরা আতঙ্কে ছোটাছুটি করতে শুরু করেন। এদিকে ততক্ষণে শহরের আরও দুটি চার্চে বিস্ফোরণ ঘটে গিয়েছে। অল্প কিছুক্ষণের মধ্যে কলম্বোর তিনটি হোটেলেও বিস্ফোরণের খবর আসে। চোখের নিমেষে শহরজুড়ে কার্যত হাহাকার পড়ে যায়। সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়েছে কলম্বো সেন্ট অ্যান্টোনিও চার্চে বিস্ফোরণের ছবি। পরিস্থিতি বুঝে উদ্ধারকাজে নামানো হয় সেনা৷ বিস্ফোরণস্থলগুলি ঘিরে রেখেছে পুলিশ৷ দেশজুড়ে জারি হয়েছে হাই অ্যালার্ট৷চালু হয়েছে বেশ কয়েকটি হেল্প লাইন নম্বর৷ ঘটনার বিস্তারিত জানতে ফোন করতে পারেন ৯৪৭৭৭৯০৩০৮২, ৯৪১১২২৭৮৮,৯৪১১২২৭৮৯৷

[আরও পড়ুন: চামড়াহীন শরীর নিয়ে জন্ম, বিরল রোগাক্রান্ত শিশুকে বাঁচানোর চ্যালেঞ্জ চিকিৎসকদের]

 আহতের সংখ্যা ইতিমধ্যেই তিনশো ছাড়িয়ে গিয়েছে। এখনও কোনও জঙ্গি সংগঠনই এই হামলার দায় স্বীকার করেনি। পরিস্থিতির ভয়াবহতা বুঝে জরুরি বৈঠক ডেকেছেন প্রধানমন্ত্রী রনিল বিক্রমাসিংঘে৷ এদিকে কর্মসূত্রে আবার শ্রীলঙ্কায় থাকেন বহু ভারতীয়। বিদেশমন্ত্রী সুষমা স্বরাজ জানিয়েছেন,  ‘’কলম্বোয় ভারতীয় হাই কমিশনের সঙ্গে প্রতিনিয়ত যোগাযোগ রাখছি।” টুইট করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও।

 

 

 

 

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement