৮ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ২৩ মে ২০১৯ 

BREAKING NEWS

Menu Logo নির্বাচন ‘১৯ দেশের রায় LIVE রাজ্যের ফলাফল LIVE বিধানসভা নির্বাচনের রায় মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার
নির্বাচন ‘১৯

৮ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ২৩ মে ২০১৯ 

BREAKING NEWS

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: এবার কি শুরু হবে মহাকাশ যুদ্ধ? সম্প্রতি, আমেরিকা ও রাশিয়ার মধ্যে চলা চাপানউতোরে উঠছে এমন প্রশ্নই।পাশাপাশি, এশিয়া মহাদেশে মার্কিন আধিপত্যকে চ্যালেঞ্জ জানিয়ে তাতে নয়া মাত্র যোগ দিয়েছে চিন। এহেন পরিস্থিতিতে ফের চাঞ্চল্যকর অভিযোগ জানিয়েছে রুশ সেনা। তাদের দাবি, মহাকাশ থেকে আগাম হামলা চালিয়ে চিন ও রাশিয়ার মিসাইল ভাণ্ডার খতম করার প্রস্তুতি নিচ্ছে আমেরিকা। 

[নিরাপত্তায় গলদ, পদ খোয়ালেন শ্রীলঙ্কার প্রতিরক্ষা সচিব ও পুলিশ প্রধান]

রুশ সেনার ডেপুটি চিফ অফ জেনারেল স্টাফ অপারেটিভ কমান্ড লেফটেন্যান্ট জেনারেল ভিক্তর পোজনিকির দাবি, ১৯৮০’র ‘মহাকাশ যুদ্ধে’র কর্মসূচি পুনরায় চালু করছে আমেরিকা। বিশ্বজুড়ে কৌশলগত আধিপত্য বজায় রাখতেই এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে ওয়াশিংটন। তিনি আরও দাবি করেন, সম্প্রতি ইউরোপে মিসাইল ডিফেন্স সিস্টেম মোতায়েন করে পরোক্ষে যুদ্ধের ইঙ্গিত দিয়েছে আমেরিকা। রাশিয়া ও চিনকে পরাস্ত করতে আগাম হামলার পরিকল্পনা করছে আমেরিকা। এই নয়া মার্কিন রণনীতি অনুযায়ী, শত্রুর তৎপরতা অংকুরেই বিনষ্ট করতে হবে। অর্থাৎ উৎক্ষেপণের আগেই বা ভূ-গর্ভস্থ অবস্থায় রাশিয়া ও চিনের পারমাণবিক অস্ত্র বহনে সক্ষম ব্যালিস্টিক মিসাইল ধ্বংস করে দেওয়ার ছক কষছে মার্কিন সেনা। এই হামলার জন্য ‘স্টার ওয়ার’-এর কায়দায় মহাকাশে ক্ষেপণাস্ত্র মোতায়েন করতে চলেছে মার্কিন সেনা। মোতায়েন করার পর পৃথিবীর চারপাশে কক্ষপথে ঘুরবে ওই মিসাইলগুলি। তারপর নির্দেশ পাওয়া মাত্রই মহাকাশ থেকে শত্রুরু অস্ত্রাগারে আছড়ে পড়বে সেগুলি।   

উল্লেখ্য, ১৯৮০ সালে মহাকাশ যুদ্ধের পরিকল্পনা নিয়েছিলেন তৎকালীন মার্কিন প্রেসিডেন্ট রোনাল্ড রেগান। সোভিয়েত ইউনিয়ন ভেঙে যাওয়ার পর হিমঘরে চলে যায় সেই উদ্যোগ। গত বছরের জুন মাসে ফের ‘স্টার ওয়ার’-এর সূচনা করেন ডোনাল্ড ট্রাম্প। ইতিমধ্যেই একটি বিশেষ ‘মহাকাশ বাহিনী’ও গঠন করে ফেলেছে আমেরিকা। প্রতিরক্ষা বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন, এই নয়া রণনীতি অনুযায়ী, মহাকাশে মিসাইল ইন্টারসেপ্টর মোতায়েন করবে আমেরিকা। এর ফলে মাঝ আকাশেই শত্রুর ছোঁড়া মিসাইল ধ্বংস হয়ে যাবে। পাশাপাশি মহাকাশ থেকেই মিসাইল ছুঁড়ে প্রতিপক্ষের অস্ত্রাগার বিশেষ করে পারমাণবিক মিসাইল নষ্ট করে দেওয়া যাবে।         

                                   [ইস্টার হামলার জের, শ্রীলঙ্কায় নিষিদ্ধ হতে পারে বোরখা]                                       

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং