BREAKING NEWS

১২ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

‘জয়ের জন্য আগ্রাসী নই’, মনোনয়ন জমা দিয়ে সৌজন্যের নজির দেবের

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: April 20, 2019 3:12 pm|    Updated: April 20, 2019 3:12 pm

An Images

সম্যক খান, মেদিনীপুর: ‘যাকে যথাযোগ্য মনে হয়, ভোট দিন৷ আমি ভোটে জেতার জন্য আগ্রাসী নই৷ চাই ঘাটালবাসী, পশ্চিমবঙ্গবাসীর পাশে থাকতে৷’ শনিবার মেদিনীপুর কালেক্টরেট অফিসে মনোনয়ন জমা দিয়ে এসব কথায় ফের সৌজন্যের নজির গড়লেন ঘাটালে তৃণমূলের তারকা প্রার্থী দেব ওরফে দীপক অধিকারী৷ প্রতিপক্ষ বিজেপি প্রার্থী ভারতী ঘোষকে আবারও শুভেচ্ছা জানিয়ে বোঝালেন, সুস্থ রাজনীতি বজায় রাখা কঠিন কিছু নয়৷

[ আরও পড়ুন : ‘জেতার জন্য বাংলাদেশি এনে প্রচার’, ফিরদৌস-নূর প্রসঙ্গে কটাক্ষ মোদির]

শনিবার তাঁর জন্মবার৷ ২০১৯এ দিল্লির লড়াইয়ে আরেকধাপ এগোতে তাই এই দিনটাকেই বেছে নিলেন দেব৷ ঘাটালের তৃণমূল প্রার্থী হিসেবে মনোনয়ন জমা দিলেন শনিবারেই৷ এদিন বেলার দিকে মেদিনীপুর শহরের রবীন্দ্রনগরের ফেডারেশন অফিসে নিজের গাড়িতে পৌঁছান দেব৷ সেখান থেকে শুরু করেন রোড শো৷ হুডখোলা জিপে কর্মী, সমর্থকদের সঙ্গে নিয়ে যান কালেক্টরেট অফিসে৷ দুপুর ১টা নাগাদ অফিসে ঢুকে মনোনয়নপত্র জমা দেন৷ সঙ্গে ছিলেন রাজ্যের মন্ত্রী সৌমেন মহাপাত্রও৷ আগামী ১২ মে, ষষ্ঠ দফায় ঘাটালে ভোট৷ তার আগে নির্ধারিত দিনে মনোনয়ন পেশ করলেন দেব৷ এদিনই মনোনয়ন দেওয়ার কথা মেদিনীপুরের বিজেপি প্রার্থী দিলীপ ঘোষেরও৷

dev road show

মনোনয়ন দিয়ে কালেক্টরেট অফিস থেকে বেরোনোর মুখেই দেবকে ঘিরে ধরেন সাংবাদিকরা৷ শুরু করেন প্রশ্ন৷ জয় নিয়ে কতটা আত্মবিশ্বাসী? প্রতিপক্ষ ভারতী ঘোষকে কতটা কঠিন বলে মনে হচ্ছে? এমনই নানা প্রশ্ন আসতে শুরু করেন৷ বিদায়ী সাংসদ, তারকা প্রার্থী সেসব বেশ ভালভাবেই সামলালেন৷ তাঁর সাফ কথা, ‘ঘাটালের মানুষের সঙ্গে ৫ বছর ছিলাম৷ সৎভাবে মানুষের কাজ করার চেষ্টা করেছি৷ তাঁরা যদি মনে হয় যে আমি কাজ করতে সমর্থ, তাহলে আমাকেই ভোট দেবেন৷’ ঘাটালে এখনও অনেক কাজ বাকি বলে উল্লেখ করেন দেব৷ ঘাটাল মাস্টার প্ল্যান, যা নিয়ে লোকসভায় সরব হতেও দেখা গিয়েছে তাঁকে, ফের সাংসদ হয়ে এলে সেই কাজ শেষ করতে চান বলে জানিয়েছেন তৃণমূলের তারকা প্রার্থী৷

[আরও পড়ুন : বিরোধী এজেন্টরা যেন বুথে বসতে না পারে, হুমকি ভাঙড়ের তৃণমূল নেতার]

নির্বাচনী প্রচারের মধ্যেই ঘাটালের বিজেপি প্রার্থী ভারতী ঘোষকে সিআইডি-র জেরার মুখে পড়তে হয়েছে৷ তিনি অভিযোগ করেছেন রাজ্য সরকারের মদতে এমনটা ঘটেছে৷ এ নিয়ে দেবের প্রতিক্রিয়া কী? সাংবাদিকদের এই প্রশ্নের উত্তরে দেব স্পষ্ট জানান, ‘উনি ওনার কাজ করছেন, আমরা আমাদেরটা করছি৷ উনিও প্রচারের জন্য খুব খাটছেন দেখতে পাচ্ছি৷ তবে আমার দল বেশি খাটছে৷ এখন মানুষ যাঁকে বেশি যোগ্য মনে করবেন, তাঁকেই ভোট দেবেন৷’ এরপর দেব আরও বলেন, ‘আমি কাদা ছোঁড়াছুড়ি করতে পারব না৷ কারণ, এমনিই রাজনীতির প্রতি মানুষের আগ্রহ কমছে৷ আমরা যদি এটা করি, তাহলে সাধারণ মানুষের আর বিশ্বাস থাকবে না৷ আমি মনে করি রাজনীতিতে সৌজন্য বজায় রাখাটা খুব জরুরি৷ শান্তিশৃঙ্খলা থাকুক৷’

[আরও পড়ুন : ৪৮ ঘণ্টা পরও খোঁজ নেই নোডাল অফিসারের, মানসিক অবসাদের তত্ত্ব খারিজ স্ত্রী’র]

ফের ঘাটালের প্রার্থী নির্বাচিত হওয়ার পর এই বার্তাই বরাবর দিয়ে এসেছেন দেব ওরফে দীপক অধিকারী৷ বিপক্ষের প্রতি কোনওরকম কটাক্ষ, আক্রমণের পথে না হেঁটে একেবারেই ব্যতিক্রমীভাবে নিজের প্রচার চালিয়ে গিয়েছেন৷ নির্বাচনী লড়াইয়ের শেষ পর্যন্ত তিনি এই সৌজন্য বজায় রেখেই রাজনৈতিক জগতে ভিন্ন নজির রাখবেন বলে মনে করছেন বিশেষজ্ঞরা৷

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement