BREAKING NEWS

২ মাঘ  ১৪২৮  রবিবার ১৬ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

একের পর এক গন্ডার-হাতির রহস্যমৃত্যু, জলদাপাড়া অভয়ারণ্যে ছড়াল অ্যানথ্র্যাক্স আতঙ্ক

Published by: Sayani Sen |    Posted: February 20, 2020 2:34 pm|    Updated: February 20, 2020 2:34 pm

Elephant, rhino die in Jaldapara National Park, anthrax suspected

রাজ কুমার, আলিপুরদুয়ার: মাত্র চব্বিশ ঘণ্টায় দু’টি গন্ডার এবং একটি হাতির অস্বাভাবিক মৃত্যু ঘিরে জলদাপাড়া অভয়ারণ্যে ছড়াল আতঙ্ক। কী কারণে বন্যপ্রাণীদের মৃত্যু হয়েছে, তা এখনও বোঝা যায়নি। অনেকেই বলছেন, অ্যানথ্র্যাক্সের জেরে মৃত্যু হচ্ছে বন্যপ্রাণীদের। তবে এখনও সে বিষয়ে নিশ্চিত করে বনদপ্তরের তরফে কিছুই জানানো হয়নি। বন্যপ্রাণীদের মৃত্যুর কারণ সম্পর্কে জানতে ইতিমধ্যেই বনাধিকারিকদের সঙ্গে কলকাতায় বৈঠকে বসেছেন বনমন্ত্রী রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়।

বুধবার জলদাপাড়া অভয়ারণ্য ছেড়ে নিজের শাবককে সঙ্গে নিয়ে লোকালয়ে চলে আসে মা গন্ডার। কিছুক্ষণ পর রহস্যজনকভাবে মারা যায় গন্ডারটি। আরেকটি গন্ডারেরও দেহ উদ্ধার করা হয়েছে। ছ’টি হাতি এবং দুটি ক্রেনের সাহায্যে গন্ডারটির দেহ উদ্ধার করা হয়। কী কারণে গন্ডারটির মৃত্যু হল, সে বিষয়ে এখনও কিছু জানা যায়নি।

Rhino

এদিকে, জলদাপাড়া জঙ্গল লাগোয়া এলাকায় একটি হাতিরও মৃতদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। বনকর্মীদের দাবি, তার দেহে মিলেছে একাধিক ক্ষতচিহ্ন। মনে করা হচ্ছে, হাতির দেহাংশে পচন ধরে গিয়েছে।

Elephant

ডিএফও কুমার বিমল বলেন, “বুধবার গন্ডারের দেহ উদ্ধার করতে অনেক দেরি হয়ে যাওয়ায়, তার দেহ ময়নাতদন্তে পাঠানো সম্ভব হয়নি। বৃহস্পতিবার গন্ডারের দেহ পাঠানো হয়েছে ময়নাতদন্তে। তার দেহাংশের নমুনা পাঠানো হয়েছে কলকাতায়। মোটামুটি ২৪ ঘণ্টা পর বোঝা যাবে কী কারণে মৃত্যু হয়েছে ওই গন্ডারের।”

[আরও পড়ুন: মনুয়া কাণ্ডের ছায়া মালদহে, প্রেমিকের সঙ্গে মিলে স্বামীকে পুড়িয়ে খুনের চেষ্টা মহিলার]

এদিকে, গন্ডার এবং হাতির অস্বাভাবিক মৃত্যুর জেরে অনেকের মনে উঁকি দিচ্ছে অ্যানথ্র্যাক্স আতঙ্ক। কেউ কেউ মনে করছেন, এই রোগের জেরে মৃত্যু হচ্ছে বন্যপ্রাণীদের। যদিও এ ব্যাপারে বনদপ্তরের তরফে এখনও নিশ্চিত করে কিছুই বলা হয়নি। তবে বন্যপ্রাণীদের রহস্যমৃত্যু ভাবাচ্ছে বনাধিকারিকদেরও। বন্যপ্রাণীদের আচমকা মৃত্যুর কারণের খোঁজে ইতিমধ্যেই কলকাতায় বনাধিকারিকদের সঙ্গে বৈঠকে বসেছেন বনমন্ত্রী রাজীব বন্দ্যোপাধ্যায়। আপাতত জলদাপাড়া অভয়ারণ্যে থাকা বন্যপ্রাণীদের পর্যবেক্ষণে রাখা হয়েছে।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে