BREAKING NEWS

৯ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২৮ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

‘হারাতঙ্ক রোগে ভুগছেন’, প্রধানমন্ত্রীকে নজিরবিহীন আক্রমণ মমতার

Published by: Sayani Sen |    Posted: April 20, 2019 3:10 pm|    Updated: April 20, 2019 3:11 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: চার দশক পর প্রধানমন্ত্রী হিসেবে শনিবারই বুনিয়াদপুরে সভা করে গিয়েছেন নরেন্দ্র মোদি৷ মঞ্চ থেকে মমতাকে কড়া ভাষায় আক্রমণ করেন তিনি৷ জেতার জন্য মমতা সব কিছুই করতে পারেন বলে কটাক্ষ শোনার গিয়েছে মোদির গলায়৷ আর তাঁর  সভার কয়েকঘণ্টা পরই নদিয়ার কালীগঞ্জ থেকে মোদিকে চাঁচাছোলা ভাষায় পালটা আক্রমণ করলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ পাগলা কুকুরের কামড়ে জলাতঙ্কের সঙ্গে তুলনা করে তাঁর কটাক্ষ, ‘হারাতঙ্কে’ ভুগছেন মোদি৷

[ আরও পড়ুন: ‘জেতার জন্য বাংলাদেশি এনে প্রচার’, ফিরদৌস-নূর প্রসঙ্গে কটাক্ষ মোদির]

রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে প্রার্থীদের হয়ে প্রচার করছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ উত্তরবঙ্গের পর শনিবার নদিয়ার কালীগঞ্জে কৃষ্ণনগরের প্রার্থী মহুয়া মৈত্রর সমর্থনে জনসভা করেন তিনি৷ অনুষ্ঠানের শুরুতেই সামান্য বিশৃঙ্খলা তৈরি হয়৷ ভিড় সামলানো গিয়ে গন্ডগোলের জেরে বেশ কিছুক্ষণ বক্তব্য রাখাও বন্ধ করে দেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ এদিন বক্তৃতার শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত একাধিক ইস্যুতে মোদিকে কড়া ভাষায় আক্রমণ করেন তৃণমূল সুপ্রিমো৷ ধর্মীয় ভেদাভেদের অভিযোগে আগেও বারবার বিজেপির বিরুদ্ধে সুর চড়িয়েছেন তিনি৷ বিজেপি আলাদা হিন্দু ধর্ম তৈরি করেছে বলেও এদিনের সভা থেকে তোপ দাগেন মুখ্যমন্ত্রী৷ এনআরসি ইস্যুকে হাতিয়ার করে তাঁর তোপ, ‘‘এনআরসি করে অসমে ২২ লক্ষ বাঙালির নাম বাদ দিয়েছে৷ বাংলায় এনআরসি করতে দেব না৷’’ নোটবাতিল ইস্যুতেও এদিন মোদিকে তোপ দাগেন মমতা৷ সাধারণ মানুষের উদ্দেশ্যে তাঁর একটাই বার্তা, ‘‘নোটবন্দির বিরুদ্ধে জবাব হিসাবে তৃণমূলকে ভোট দিন৷ তবেই তা বিজেপির কাছে থাপ্পড়ের মতো  হবে৷’’ দেশজুড়ে দুর্যোধন-দুঃশাসনের রাজত্ব চলছে বলেও কটাক্ষ করেন  মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ কালীগঞ্জের বগুলার সভায় মুখ্যমন্ত্রী  কৃষ্ণগঞ্জের নিহত বিধায়ক সত্যজিৎ বিশ্বাসের হত্যাকারীদের চরম ধিক্কার জানান৷ তাঁর স্ত্রী রানাঘাটের দলীয় প্রার্থী৷ সেই রূপালী বিশ্বাসের হয়েও প্রচার করেন মমতা৷ 

[ আরও পড়ুন: ‘সব থেকে বড় কয়লা মাফিয়া বাবুল’, মুনমুনের প্রচারসভায় তোপ অরূপের]

এদিনের সভায় মোদিকে আক্রমণের পাশাপাশি সিপিএম-কংগ্রেসের বিরুদ্ধেও সুর চড়ান তিনি৷ বুনিয়াদপুরের সভা থেকে রাজ্যে কর্মসংস্থানের অভাব রয়েছে বলেই অভিযোগ করেছিলেন মোদি৷ জেলার উন্নয়নের খতিয়ান তুলে ধরার মাধ্যমেও এদিন তার পালটা জবাব দিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ তিনি বলেন, ‘‘হরিচাঁদ-গুরুচাঁদ কলেজ তৈরি হয়েছে৷ এইমস তৈরি হচ্ছে নদিয়ায়৷ ৬৪ লক্ষ টাকা ব্যয়ে মসলিন হাব তৈরি হয়েছে৷’’ বিজেপি রাজ্যে ভাল ফল করবে বলেই আত্মপ্রত্যয়ের সুর ছিল মোদির গলায়৷ পালটা জনসভায় তার চেয়েও বেশি আত্মবিশ্বাসের সুর মমতার৷ রাজ্যের ৪২টি আসনেই তৃণমূল জিতবে বলেই আশাবাদী তিনি৷

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement