BREAKING NEWS

০৯  আষাঢ়  ১৪২৯  শনিবার ২৫ জুন ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

বারাকপুর কেন্দ্রে গেরুয়া শিবিরে অন্তর্কলহ, ভাইরাল মুকুল-দিলীপ অনুগামীদের হাতাহাতি

Published by: Sayani Sen |    Posted: March 31, 2019 11:21 am|    Updated: April 17, 2019 4:14 pm

Mukul Roy and Dilip Ghosh's followers allegedly beaten each other

আকাশনীল ভট্টাচার্য, বারাকপুর: গেরুয়া শিবিরে অন্তর্কলহ৷ যুযুধান দু’পক্ষ – মুকুল রায় এবং দিলীপ ঘোষ৷ দু’পক্ষের অনুগামীদের হাতাহাতির ঘটনায় সরগরম বারাকপুর কেন্দ্র৷ পলতার শান্তিনগরের এই হাতাহাতির ছবি এখন ভাইরাল সোশ্যাল মিডিয়ায়৷ যদিও গেরুয়া শিবিরের দাবি, এই ছবিগুলির কোনও সত্যতা নেই, সম্পূর্ণ ভিত্তিহীন৷ ভুয়ো খবর প্রচারের অভিযোগ প্রশাসনের দ্বারস্থ হওয়ার চিন্তাভাবনা করছে জেলা বিজেপি নেতৃত্ব৷

[ আরও পড়ুন: ‘দেশে এমন চৌকিদারের দরকার নেই’, সরাসরি মোদিকে আক্রমণ অভিষেকের]

এক সময়ে একই দলের সৈনিক ছিলেন মুকুল রায় এবং অর্জুন সিং৷ ঘাসফুল শিবির ছেড়ে অনেক আগেই গেরুয়া শিবিরে নাম লিখিয়েছেন মুকুল রায়৷ দক্ষ সাংগঠনিকের ঘাড়ে দলীয় কর্মী,সমর্থকদের সামলানোর ভার তুলে দিয়েছে বিজেপি শীর্ষ নেতৃত্ব৷ সেই কাজে তিনি আংশিক সফল, বলাই যায়৷ দীর্ঘ টানাপোড়েনের পর সদ্যই তৃণমূল ছেড়েছেন অর্জুন সিংও৷ দলত্যাগের পর বিজেপির তরফে উপহার হিসাবে পেয়েছেন লোকসভা নির্বাচনে লড়াইয়ের টিকিট৷ নিজের ইমেজকে কাজে লাগিয়ে এবার বিজেপি প্রার্থী হিসাবে ভোট বৈতরণী পার হওয়াই বড় চ্যালেঞ্জ তাঁর কাছে৷ তাই ভোটের আগে জনসংযোগকেই হাতিয়ার করেছেন অর্জুন৷ দিনভর জোরকদমে প্রচারে ব্যস্ত তিনি৷ শুধু অর্জুনই নন, তাঁর হয়ে প্রচারের দায়িত্বও কাঁধে তুলে নিয়েছেন মুকুল রায়৷দলীয় নেতাকর্মী থেকে সাধারণ ভোটার – সকলের কাছে অর্জুনের গ্রহণযোগ্যতা বাড়াতে বিভিন্ন জায়গায় সভার আয়োজন করেছেন তিনি৷ শনিবার পলতার শান্তিনগরেও কর্মিসভার আয়োজন করেন মুকুল রায়

[ আরও পড়ুন: দলের ভরসা হারাচ্ছেন সব্যসাচী, সরলেন বিধাননগরে প্রচারের দায়িত্ব থেকেও]

ভোটের আবহে ঝড় বইয়ে দিয়েছে এই কর্মিসভা৷ অভিযোগ, ওই সভায় মুকুল রায় এবং দিলীপ ঘোষ গোষ্ঠীর অনুগামীদের মধ্যে হাতাহাতি হয়েছে৷ মারধরের পাশাপাশি চেয়ার ছোঁড়াছুঁড়ি শুরু হয়৷ এই ঘটনায় বেশ কয়েকজন জখম হয়েছেন৷ শুভজিৎ বন্দ্যোপাধ্যায় নামে এক ব্যক্তি গন্ডগোলের ছবি পোস্ট করেন৷ সেই ছবি ভাইরাল হয়ে গিয়েছে নেটদুনিয়ায়৷ যদিও গেরুয়া শিবিরের দাবি, এই ছবিগুলি অন্য কোনও ঘটনার৷ পলতার কর্মিসভায় কোনও অশান্তি হয়নি বলেই দাবি বিজেপির৷ জেলা নেতৃত্বের দাবি, অন্য কোনও ঘটনার ছবি দিয়ে ভোটের আবহে বিজেপির নামে কুৎসা রটানো হচ্ছে৷ সোশ্যাল মিডিয়ায় ভুয়ো ছবি আপলোডের অভিযোগ তুলে প্রশাসনের দ্বারস্থ হওয়ার চিন্তাভাবনা করছে গেরুয়া শিবির৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে