BREAKING NEWS

১৪ আশ্বিন  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ১ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

তৃণমূলের কর্মিসভায় কাউন্সিলরের পাশে বসে পুলিশ আধিকারিক, কমিশনে সিপিএম

Published by: Tanujit Das |    Posted: April 21, 2019 5:30 pm|    Updated: April 23, 2019 5:52 pm

An Images

সুদীপ বন্দ্যোপাধ্যায়, দুর্গাপুর: মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ধরনামঞ্চে কলকাতা পুলিশ ও রাজ্য পুলিশের শীর্ষকর্তাদের উপস্থিতি নিয়ে কম বিতর্ক হয়নি৷ এরই মধ্যে আবারও তৃণমূলের কর্মিসভায় পুলিশের সাব-ইন্সপেক্টরের উপস্থিতি চোখে পড়ল৷ এবং যে ঘটনাকে কেন্দ্র করে শনিবার থেকে দুর্গাপুর জুড়ে তুঙ্গে রাজনৈতিক তরজা৷ নির্বাচন কমিশনের কাছে ঘটনার অভিযোগ দায়ের করেছে সিপিএম৷ সমগ্র বিষয়টি খতিয়ে দেখে উপযুক্ত ব্যবস্থা নেওয়ার আশ্বাস দিয়েছে নির্বাচন কমিশন।

[ আরও পড়ুন: বিরল লঙ্গুর ও বিন্টুরঙের খোঁজ মিলল বক্সা ব্যাঘ্র প্রকল্পের জঙ্গলে ]

জানা গিয়েছে, শনিবার দুর্গাপুরের ১৩ নম্বর ওয়ার্ডের লিংক পার্কে একটি কর্মিসভার আয়োজন করে স্থানীয় তৃণমূল কংগ্রেস নেতৃত্ব৷ যেখানে উপস্থিত ছিলেন ওই ওয়ার্ডের কাউন্সিলার ধর্মেন্দ্র যাদব-সহ তৃণমূল শ্রমিক সংগঠনের শীর্ষ নেতারা। কেবল শাসকদলের নেতা-কর্মীরাই নন, সিপিএমের অভিযোগ সেখানে দেখা গিয়েছে দুর্গাপুর থানার ওয়ারিয়া ফাঁড়ির সাব-ইন্সপেক্টর প্রশান্ত মাঝিকে। কেবল সভাতে উপস্থিত থাকাই নয়, কাউন্সিলরের পাশের চেয়ারে বসে সভা উপভোগ করতেও দেখা গিয়েছে তাঁকে৷ আধ ঘণ্টারও বেশি সময় ধরে স্থানীয় তৃণমূল নেতৃত্বের বক্তব্য শোনেন তিনি। সিপিএম নেতৃত্বের দাবি, সভার শেষের দিকে চক্ষুলজ্জার খাতিরে তাঁকে চেয়ার ছেড়ে উঠে যেতে বলেন স্থানীয় তৃণমূল নেতারা৷ তখন অনিচ্ছা সত্ত্বেও সভা ছাড়েন দুর্গাপুর থানার ওয়ারিয়া ফাঁড়ির সাব-ইন্সপেক্টর।

[ আরও পড়ুন: রয়্যাল বেঙ্গল টাইগারের মৃত্যুর তদন্তে গিয়ে আক্রান্ত ডিএফও-সহ ৮ বনকর্মী ]

যথারীতি এই ঘটনাকে কেন্দ্র করে পুলিশের নিরপেক্ষতা নিয়ে প্রশ্ন তুলতে শুরু করেছে বিরোধীরা। শাসকদলের কর্মিসভায় পুলিশের উপস্থিতি সম্পর্কে সিপিএমের জেলা সম্পাদকমণ্ডলীর সদস্য পঙ্কজ রায় সরকার বলেন, “এটা নতুন কিছু নয়। পুলিশ শাসকদলের দলদাসে পরিণত হয়েছে, এই অভিযোগ আমরা প্রথম থেকেই করে আসছি। ভোট যত এগিয়ে আসছে প্রভুর প্রতি পুলিশের দাসত্ব ততই বাড়ছে। সাধারণ মানুষ সব দেখছে। ইভিএমেই তার জবাব পাবে তৃণমূল।” সূত্রের খবর, ওই কর্মিসভা নিয়ে নির্বাচন কমিশনের কাছেও অভিযোগ দায়ের করেছে সিপিএম। দুর্গাপুর মহকুমার রিটার্নিং অফিস সূত্রে খবর, বিষয়টিকে খতিয়ে দেখা হচ্ছে৷ অভিযোগ গুরুতর প্রমাণিত হলে উপযুক্ত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। এই বিষয়ে জানার জন্য অভিযুক্ত সাব-ইন্সপেক্টর প্রশান্ত মাঝির সঙ্গে যোগাযোগ করার চেষ্টা করা হলেও, তা সম্ভবপর হয়নি৷

ছবি: উদয়ন গুহরায়

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement