১৭  আষাঢ়  ১৪২৯  রবিবার ৩ জুলাই ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

চরমে বিজেপির গোষ্ঠীদ্বন্দ্ব, বিষ্ণুপুরের নয়া যুব সভাপতির বিরুদ্ধে পড়ল পোস্টার

Published by: Paramita Paul |    Posted: May 29, 2022 1:50 pm|    Updated: May 29, 2022 1:53 pm

Postering against newly selected BJP youth secretary at Bishnupur, Clash inside party | Sangbad Pratidin

টিটুন মল্লিক, বাঁকুড়া: ফের প্রকাশ্যে বিজেপির (BJP) অন্তর্দ্বন্দ্ব। সম্প্রতি বিজেপির বিষ্ণুপুর সাংগঠনিক জেলা যুব মোর্চার সভাপতি বদল হয়েছে। আর এই রদবদল ঘিরেই তুলকালাম বাঁকুড়ায় (Bankura)। নয়া যুব সভাপতিকে পদ থেকে সরিয়ে দেওয়ার দাবিতে পোস্টার পড়ল সেই জেলায়। যদিও গেরুয়া শিবিরের দাবি, দলের কেউ এমন পোস্টার দেয়নি। তৃণমূলের (TMC) তরফে এই ঘটনা ঘটানো হয়েছে। যদিও সেই অভিযোগ সম্পূর্ণ অস্বীকার করেছে ঘাসফুল শিবির।

সম্প্রতি বিজেপির বিষ্ণুপুর সাংগঠনিক জেলা যুব মোর্চার সভাপতি পদ থেকে সুশান্ত দাঁকে সরিয়ে আবিরলাল মুখোপাধ্যায়কে বসানো হয়েছে। এর পরই নয়া সভাপতির বিরুদ্ধে পোস্টার পড়ল বিষ্ণুপুরে। দলীয় কার্যালয়ের দেওয়ালে সাঁটানো পোস্টারে লেখা হয়েছে, “যাঁকে যুব মোর্চার সভাপতি করা হয়েছে দলের কোনও অনুষ্ঠানে তাঁকে দেখতে পাওয়া যায়নি। তা সত্বেও তাঁকে সভাপতি করা হল কেন, জেলা সভাপতি জবাব দাও।” আরেকটি পোস্টারে লেখা হয়েছে, “বিষ্ণুপুর থেকে বিজেপিকে বঞ্চিত করা হচ্ছে কেন, বিষ্ণুপুর জেলা সভাপতি জবাব দাও।” এধরনের একাধিক পোস্টার পড়েছে বিষ্ণুপুরের বিভিন্ন অঞ্চলে। তবে কে বা কারা এই ঘটনার সঙ্গে যুক্ত তা এখনও স্পষ্ট নয়।

[আরও পড়ুন: ২৯ মে-৪ জুনের Horoscope: মিথুন রাশির জাতকদের লক্ষ্মীলাভের যোগ, কী রয়েছে আপনার ভাগ্যে?]

বিজেপির বিষ্ণুপুর সাংগঠনিক জেলা সভাপতি বিল্লেশ্বর সিংহের দাবি এই পোস্টারের পিছনে তৃণমূলের চক্রান্ত রয়েছে। সাংবাদিকদের উদ্দেশে তিনি বলেন,”আপনাদের কাছ থেকেই প্রথম শুনলাম। বিজেপির তরফে এ ধরণের কোনও পোস্টার দেওয়া হয়নি। সব তৃণমূলের চক্রান্ত।” একইসঙ্গে বিল্লেশ্বরবাবুর সাফাই, “যিনি যুব মোর্চার সভাপতি হয়েছেন তিনি বাঁকুড়া-২ পঞ্চায়েত সমিতির বিরোধী দলনেতা, ওন্দা বিধানসভার কনভেনর ও শিক্ষক। দীর্ঘদিন দলের সঙ্গেও যুক্ত। দলের মধ্যে ভাঙন ধরাতেই তৃণমূল এসব করছে।”

অভিযোগ অস্বীকার করে তৃণমূলের বিষ্ণুপুর সাংগঠনিক জেলার সভাপতি বিধায়ক অলোক মুখোপাধ্যায় বলেন, “বিজেপি সভাপতির বিরুদ্ধেই ক্ষোভ। পাঁচিলে, দেওয়ালে পোস্টার পড়েছে। বিজেপি যতই অভিযোগ করুক আমাদের তো খেয়ে দেয়ে কাজ নেই যে পোস্টার লাগাব। দিদির উন্নয়নের জোয়ারে বিজেপি দলটাই উঠে যাবে। বিজেপির দুর্দিন চলছে মানুষ বুঝে গিয়েছে।”

[আরও পড়ুন: আন্দোলনের আঁতুরঘর যাদবপুরের পড়ুয়াদেরই পছন্দ, ১০ জনকে কোটি টাকা চাকরির প্রস্তাব]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে