Advertisement
Advertisement
স্লোগান

নির্বাচনী মরশুমে বামেদের প্রচারে মাঠ কাঁপাবেন ‘স্লোগান-কন্যা’ রিয়া

এসএফআই নেত্রীকে তালিম দিচ্ছে মেদিনীপুরের সিপিএম নেতৃত্ব৷

Slogan girl Riya Maity bats for CPM this Lok Sabha Poll
Published by: Sucheta Sengupta
  • Posted:March 27, 2019 1:55 pm
  • Updated:March 27, 2019 1:55 pm

ক্ষীরোদ ভট্টাচার্য : বিমান বসু নন। নন সূর্যকান্ত মিশ্র। ভোটে বামেদের সমাবেশ বা প্রচার মিছিলে এই দুই প্রবীণ নেতার থেকে ঢের এগিয়ে পশ্চিম মেদিনীপুরের নারায়ণগড়ের বাখরাবাঁধ গ্রামের এক তরুণী। তিনি রিয়া মাইতি। এগিয়ে তাঁর স্লোগানের গুণে৷ রিয়া একেবারেই নূতন যৌবনের দূত৷ বিদ্যাসাগর বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাণীবিদ্যা বিভাগের প্রথম বর্ষের ছাত্রী। নিতান্তই মধ্যবিত্ত ছাপোষা পরিবারের এই তরুণী স্লোগানের গুনে এখন ‘সিপিএমের নয়নের মণি’। কারণ তাঁর বাচনভঙ্গি। কারণ তাঁর স্লোগান দেওয়ার স্টাইল ভরসা জুগিয়েছে সিপিএমকে।

         [ আরও পড়ুন : প্রার্থী না পেয়ে গরু ধরে টানাটানি বিজেপির! জামুড়িয়ার দেওয়ালে ব্যঙ্গচিত্র]

সিঙ্গুর থেকে রাজভবন, বামেদের মিছিলে শাসক তৃণমূলকে কটাক্ষ করে রিয়ার স্লোগান ভাইরাল হয়েছে। ইউটিউবে শেয়ার হয়েছে। এসএফআই রাজ্য নেতৃত্ব দাবি করেছে মুখে মুখে সেই ছড়া তৈরি করেছেন হলদিয়া ও পূর্ব বর্ধমানের দুই সদস্য সুমিত জানা ও সন্দীপ চট্টোপাধ্যায়। তবে খড়্গপুর কলেজের প্রাক্তনী রিয়া মাইতি সেই স্লোগানকে ছড়িয়ে দিয়েছেন গোটা রাজ্যে। ভোটের প্রচারে এমন স্লোগান দেখা যাচ্ছে অন্য দলেও।

Advertisement

সোশ্যাল মিডিয়ায় তাঁর স্লোগান দেখে উৎসাহী রাজ্য সম্পাদক সূর্যকান্ত মিশ্র। ক’দিন আগে জেলায় কর্মিসভায় গিয়ে রিয়ার সঙ্গে আলাদা করে কথা বলেছেন। খুঁটিয়ে খুঁটিয়ে জিজ্ঞেস করেছেন কেন তিনি বামপন্থী রাজনীতিতে আগ্রহী। বাড়িতে কে কে আছেন? পরিবারের কেউ বাম রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত কি না? দলের রাশভারী নেতা সূর্যকান্ত মিশ্র তাঁকে বলেছেন, রাজনীতি অবশ্যই করবে তবে লেখাপড়াতেও সমান গুরুত্ব দিতে হবে। আর শুধু স্লোগান নয়, ভাল করে বক্তৃতা দিতেও শিখতে হবে। জেলা সম্পাদক তরুণ রায়কে দায়িত্ব দিয়েছেন রিয়ার বক্তৃতার তালিম দিতে। তাঁকে গড়েপিটে নিতে। প্রবীণ তরুণবাবুর কথায়, “এবার নতুন দায়িত্ব।”

Advertisement

                                      [ আরও পড়ুন : পোড়খাওয়া মুখ নেই! বহরমপুরে দিলীপ ঘোষের পুরোহিতকেই প্রার্থী করল বিজেপি়]

জেলা সিপিএমের এক সদসে্যর কথায়, “আগামী এক মাস তুমুল ব্যস্ত রিয়া। দিনে অন্তত দু’টি করে মিছিল বা সমাবেশে থাকতে হচ্ছে। জেলা ছাড়িয়ে গোটা রাজ্যেই বাম প্রার্থীদের সমাবেশে হাজির থাকার জন্য ফি দিন আবেদন আসছে। ২ এপ্রিল কলেজ স্ট্রিটে এসএফআইয়ের সমাবেশে ফের তাঁকে হাত উঁচিয়ে স্লোগান দিতে দেখা যাবে। সেখানেই থাকবেন প্রাক্তন ছাত্র নেতা বামফ্রন্ট চেয়ারম্যান বিমান বসু। এ ছাড়াও কলকাতায় যতগুলি বড় মিছিল হবে প্রায় প্রতে্যকটিরই পুরোভাগে দেখা যাবে রিয়া মাইতিকে।

মা,বাবার একমাত্র সন্তান রিয়া। বাবা চন্দন মাইতি ছোট ব্যবসায়ী। পরিবারে কেউ বাম রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত নন। উল্টে তাঁদের দুই প্রতিবেশী শাসক দলের দাপুটে নেতা। পঞ্চায়েতে ভোটেও লড়েছেন। জিততে পারেননি। তবে মেয়ের রাজনীতি করা নিয়ে কেউ বাধা দেননি। রিয়া মাইতি বিদ্যাসাগর বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্র সংগঠনের ইউনিট সেক্রেটারি। রাতারাতি ‘সেলেব’ হয়ে যাওয়া রিয়া বলেছেন,“স্লোগানের  শব্দ বদলেছে। তৃণমূল বিরোধী, বিজেপি বিরোধী স্লোগান উঠছে ‘‘আর না।”  আগামী ক’দিন এভাবেই বামেদের পক্ষে স্লোগান দেবেন  রিয়া ও তাঁর সঙ্গীরা৷ 

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ