BREAKING NEWS

৪ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

ডেনমার্কের নাগরিক দীপিকা! মুম্বইয়ে কীভাবে ভোট দিলেন অভিনেত্রী?

Published by: Sandipta Bhanja |    Posted: April 29, 2019 7:33 pm|    Updated: April 29, 2019 7:33 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সোমবার চতুর্থ দফা লোকসভা ভোট উপলক্ষে দেশের আর ৯টি রাজ্যের মধ্যে এদিন মুম্বইবাসীও ভোট দিলেন। বলি সেলেবরা মাতলেন গণতন্ত্রের উৎসবে। সকাল থেকেই পাপারাজিদের ক্যামেরায় ধরা পড়েছে মুম্বইয়ের বিভিন্ন জায়গার বুথে সেলেবরা পৌঁছে গিয়েছেন ভোট দিতে। সস্ত্রীক আমির খান, অজয়, কাজল, নবাব বেগম করিনা কাপুর খান, প্রিয়াঙ্কা চোপড়া, আর মাধবন, সোনালি বেন্দ্রে-সহ আরও অনেকেই। তবে দিন কয়েক আগেই শোনা গিয়েছিল বলিপাড়ার বেশ ক’জন সেলেব্রিটিদের নাম, যাঁরা ভোট দিতে পারবেন না। এই তালিকায় নাম ছিল অভিনেত্রী দীপিকা পাড়ুকোন থেকে আলিয়া ভাটেরও। ‘কলঙ্ক’ অভিনেত্রী আলিয়া যে ভোট দিতে পারবেন না, তা তিনি নিজেই নিশ্চিত করেছেন। তবে, এপ্রসঙ্গে এযাবৎকাল মুখ খুলতে দেখা যায়নি দীপিকাকে। আজ যাবতীয় ধোঁয়াশা পরিষ্কার করলেন রণবীর-পত্নী।

 [আরও পড়ুন:  মানবিক বরুণ, বৃদ্ধাকে ভোটকেন্দ্রের সিঁড়ি দিয়ে উঠতে সাহায্য করলেন অভিনেতা]

অভিনেত্রী তাঁর ভারতীয় নাগরিকত্ব নিয়ে ওঠা নানা প্রশ্নের জবাব দিয়েছিলেন। দীপিকার জন্ম হয়েছিল ডেনমার্কে। আর সেই সূত্রেই অভিনেত্রীর নাকি ডেনমার্কের নাগরিকত্বের সঙ্গে রয়েছে ড্যানিশ পাসপোর্টও। এমনটাই শোনা গিয়েছিল। এত জল্পনার মাঝেই এক সাক্ষাৎকারে দীপিকা জানিয়েছিলেন, তাঁর ভারতীয় পাসপোর্ট রয়েছে। আর তিনি ভারতীয় হিসেবে ভীষণ গর্ববোধ করেন। তাই ২৯ এপ্রিল তিনিও যে ভোট দিচ্ছেন, তেমনই শোনা গিয়েছিল। প্রসঙ্গত, ভারতীয় নাগরিকত্ব গ্রহণ করতে হলে প্রথমে ছাড়তে হবে অন্য দেশের নাগরিকত্ব। আর ভারতীয় নাগরিকত্ব গ্রহণের জন্য দীপিকাও বোধহয় তাই করেছেন। 

 [আরও পড়ুন:  ভোট দিতে গিয়ে বিস্ফোরক কঙ্গনা, ‘ইতালিয়ান’ বলে কটাক্ষ সোনিয়াকে]

এবার তার প্রমাণ মিলল সোশ্যাল মিডিয়ায়। ড্যানিশ নাগরিকত্বের যাবতীয় জল্পনা উড়িয়ে সোমবার ‘ছপাক’ অভিনেত্রী ভোট দিলেন। আর সেই ছবি শেয়ার করলেন নিজের টুইটারে। সঙ্গে বন্ধ করলেন নিন্দুকদের মুখ। তাঁর ভারতীয় নাগরিকত্ব নিয়ে ওঠা প্রশ্নের কড়া সমালোচনা করে তিনি ক্যাপশনে লেখেন- “আমি কে, কী আমার পরিচয় বা আমি কোথাকার… তা নিয়ে আমার মনে কোনওদিনই সন্দেহ ছিল না। তাই যারা আমার নাগরিকত্ব নিয়ে সন্দেহ প্রকাশ করেছেন, তাদের বলি, দয়া করে করবেন না! জয় হিন্দ!” তিনি যে গর্বিত ভারতবাসী, সেই সম্পর্কীয় ট্যাগও ব্যবহার করেন ক্যাপশনে।

 

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement