BREAKING NEWS

১৩  আষাঢ়  ১৪২৯  বুধবার ২৯ জুন ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

আরিয়ানের মতোই ফাঁসানো হয়েছিল, মাদক মামলায় ফের তদন্তের দাবি রিয়া চক্রবর্তীর আইনজীবীর

Published by: Biswadip Dey |    Posted: May 29, 2022 9:32 am|    Updated: May 29, 2022 9:35 am

Lawyer Satish Maneshinde wants fresh probe in Rhea Chakraborty's case। Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: মাদক মামলায় ক্লিনচিট দেওয়া হয়েছে শাহরুখপুত্র আরিয়ান খানকে। শুধুই আরিয়ান খান (Aryan Khan) নয়, মাদক মামলায় অভিযুক্ত আরও ৫ জনকেও ক্লিনচিট দিয়েছে NCB। এবার আরিয়ানের আইনজীবী সতীশ মানেশিন্ডে দাবি করলেন, যেভাবে ফাঁসানো হয়েছিল আরিয়ানকে, সেইভাবেই ফাঁসানো হয়েছে রিয়া চক্রবর্তীকেও (Rhea Chakraborty)। অবিলম্বে রিয়ার বিরুদ্ধে দায়ের হওয়া মাদক সংক্রান্ত তিনটি মামলার নতুন করে তদন্তের দাবি তুললেন তিনি। প্রসঙ্গত, আরিয়ানের মতোই রিয়া ও তাঁর ভাই সৌভিকেরও আইনজীবী সতীশই।

এমনিতে আরিয়ান ক্লিনচিট পাওয়ার পরই বিপাকে সমীর ওয়াংখেড়ে। তাঁর বিরুদ্ধে সঠিকভাবে তদন্ত না করার অভিযোগ উঠেছে। সেই অভিযোগে নয়া মাত্রা দিল সতীশের দাবি। এক সর্বভারতীয় সংবাদমাধ্যমের সঙ্গে কথা বলার সময় তিনি জানিয়েছেন, ”রিয়া চক্রবর্তী ও তাঁর ভাই সৌভিকের মামলাটিরও নতুন করে তদন্ত হওয়া দরকার। ওঁদের ক্ষেত্রেও কিন্তু কোনও মাদক পাওয়া যায়নি। কোনও পরীক্ষাই করা হয়নি। আরিয়ান খানের মামলা দেখিয়ে দিয়েছে, তাঁর বিরুদ্ধে মিথ্যে অভিযোগ আনা হয়েছিল। রিয়া চক্রবর্তী সময় থেকেই এটা হয়ে আসছে। তাই নতুন করে তদন্ত করা একান্তই দরকার।”

[আরও পড়ুন: গুমনামী বাবাই নেতাজি! নিরপেক্ষ তদন্ত চেয়ে পরিবারের একাংশের চিঠি মোদিকে]

সতীশের আরও দাবি, বলিউডের তারকাদের বিরুদ্ধে যেভাবে মাদক নেওয়ার অভিযোগ আনা হয়েছে তা কেবল তাঁদের জনপ্রিয়তাকে নষ্ট করার উদ্দেশ্যেই করা হয়েছে। কেননা কোনও তারকাই মাদক নেন না, তাঁদের ফিটনেস নষ্ট হওয়ার ভয় থাকে বলে।

২০২০ সালের জুন মাসে ১৪ জুন সুশান্ত সিং রাজপুতের ঝুলন্ত দেহ উদ্ধারের পরে রীতিমতো কেঁপে যায় বলিউড। রিয়া-সহ একাধিক ব্যক্তির বিরুদ্ধে মামলা করেছিল সুশান্তের পরিবার। পরে মাদক মামলায় গ্রেপ্তার করা হয় রিয়াকে। প্রায় এক মাস বাইকুল্লা জেলে কাটিয়েছিলেন রিয়া। অনেকেই সুশান্তের মৃত্যুর জন্য তাঁকে দায়ী করেছিলেন। পরে জামিনে ছাড়া পান রিয়া। সতীশের দাবি, রিয়ার কাছ থেকে কোনও মাদক উদ্ধার করতে পারেনি এনসিবি। কেবল মাত্র হোয়াটসঅ্যাপ চ্যাটের ভিত্তিতেই মামলা সাজানো হয়েছিল।

[আরও পড়ুন: অনুমতি মিলল প্রশাসনের, দ্রুত খুলে যেতে পারে দেশের সর্ববৃহৎ ‘স্বর্ণভাণ্ডার’, কমবে সোনার দাম]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে