১ আষাঢ়  ১৪২৬  রবিবার ১৬ জুন ২০১৯ 

Menu Logo বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

মাসুদ আহমেদ, শ্রীনগর: পুলওয়ামা হামলার মাস চারেক পর, ফের শহিদের রক্তে রক্তাক্ত কাশ্মীর। ফের সেনা জওয়ানদের উপর হামলা চালাল জেহাদিরা। কাশ্মীরের অনন্তনাগে সেনার টহলদারি চলাকালীন জঙ্গি হানায় এখনও পর্যন্ত ৫ সেনা জওয়ানের মৃত্যুর খবর মিলেছে। একজন পুলিশ আধিকারিক এবং এক সাধারণ নাগরিকও প্রাণ হারিয়েছেন বলে জানা গিয়েছে। আহত হয়েছেন আরও পাঁচজন।

[আরও পড়ুন: চাঁদের উদ্দেশে পাড়ি দিতে প্রস্তুত ‘চন্দ্রযান-২’, উৎক্ষেপণের দিন ঘোষণা ইসরোর  ]

বুধবার দক্ষিণ কাশ্মীরের অনন্তনাগে সেনা টহলদারি চলাকালীন হামলা হয়। সেনা সূত্রে খবর, এদিন অন্যদিনের মতোই, ব্যস্ত কেপি চক বাসস্ট্যান্ডের কাছে টহল দিচ্ছিলেন সিআরপিএফ জওয়ানরা। আচমকা মোটরবাইকে করে সেখানে হাজির হয় দুই জঙ্গি। মুখে কালো কাপড় জড়িয়ে এলোপাথাড়ি সেনা জওয়ানদের উপর গুলি চালাতে থাকে জেহাদিরা। ছোঁড়া হয় গ্রেনেড। দুই জঙ্গির কাছে অত্যাধুনিক স্বয়ংক্রিয় রাইফেল ছিল বলে জানা গিয়েছে। আচমকা হামলা হওয়ায় অপ্রস্তুতে পড়ে যান জওয়ানরা। ৫ জন সিআরপিএফ জওয়ান ইতিমধ্যেই শহিদ হয়েছেন। পাঁচজন আহত। পালটা জওয়ানদের গুলিতে নিকেশ হয়েছে এক জঙ্গি।

[আরও পড়ুন: পাকিস্তানের আকাশ এড়াতে ঘুরপথে বিশকেক যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি]

কাশ্মীরের কুখ্যাত জঙ্গি মুস্তাক আহমেদ জারগার নেতৃত্বাধীন পাকিস্তানি জঙ্গি সংগঠন আল-উমর মুজাহিদিন এই হামলার দায় স্বীকার করেছে বলে জানিয়েছে কাশ্মীরের স্থানীয় সংবাদ সংস্থা গ্লোবাল নিউজ সার্ভিস (জিএনএস)। এই মুস্তাক আহমেদ একসময় মাসুদ আজহারের ছায়াসঙ্গী ছিল। কান্দাহার বিমান ছিনতাইয়ের সময় মাসুদের পাশাপাশি মুস্তাককেও ছাড়তে বাধ্য হয় ভারত সরকার। এবারেও মাসুদের জঙ্গি সংগঠনের ভঙ্গিতেই হামলা চালাল আল-উমর-মুজাহিদিন। পুলওয়ামার মতো ভয়াবহ না হলেও অনন্তনাগের দাগও যে ভারতীয়দের মন থেকে সহজে মুছবে না, সেকথা বলাই বাহুল্য।

 

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং