৭  আশ্বিন  ১৪২৯  রবিবার ২৫ সেপ্টেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

ধর্ষণের অভিযোগে আরও বিপাকে বিজেপি নেতা শাহানওয়াজ হুসেন, মামলার অনুমতি আদালতের

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: August 19, 2022 12:32 pm|    Updated: August 19, 2022 12:32 pm

Delhi High Court rejects BJP leader Shahnawaz Hussain's plea, allows rape case to be filed | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ধর্ষণের অভিযোগে আরও বিপাকে বিজেপির সংখ্যালঘু নেতা তথা বিহারের প্রাক্তন মন্ত্রী শাহানওয়াজ হুসেন (Shahnawaz Hussain)। বিহারের এই প্রাক্তন মন্ত্রীর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করার অনুমতি দিল দিল্লি হাই কোর্ট। মামলাটি খারিজ করার দাবিতে দিল্লি হাই কোর্টে আরজি জানিয়েছিলেন হুসেন। সেই আবেদন খারিজ করে দিল হাই কোর্ট।

শাহানওয়াজের বিরুদ্ধে এই ধর্ষণের অভিযোগটি পুরনো। বছর চারেক আগে অর্থাৎ ২০১৮ সালে প্রথম শাহানওয়াজের বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগটি আনেন এক মহিলা। অভিযোগ ছিল বিজেপি (BJP) নেতা ছাত্তারপুরের একটি খামারবাড়িতে ডেকে নিয়ে গিয়ে নেশার সামগ্রী খাইয়ে তাঁকে ধর্ষণ করেন। ওই মহিলার অভিযোগ, তিনি স্থানীয় থানায় অভিযোগ জানাতে গেলে, পুলিশ সেই অভিযোগ নেয়নি। বাধ্য হয়ে মহিলা দিল্লির সাকেত আদালতে মামলা দায়ের করেন তিনি। মহিলার আরজি ছিল, আদালত পুলিশকে FIR দায়ের করার নির্দেশ দিক।

[আরও পড়ুন: স্বেচ্ছায় সহবাস করে ধর্ষণের মামলা করা যায় না, যৌন নির্যাতন মামলায় পর্যবেক্ষণ সুপ্রিম কোর্টের]

আদালতে পুলিশ জানায়, ওই মহিলার অভিযোগে কোনও সত্যতা মেলেনি। প্রশ্ন ওঠে, এফআইআর দায়ের না করে, মামলার তদন্ত না করে কীভাবে পুলিশ বলে দিল যে মহিলার অভিযোগে সত্যতা নেই। মামলা গড়ায় দিল্লি হাই কোর্ট পর্যন্ত। বৃহস্পতিবার দিল্লি হাই কোর্ট (Delhi High Court) শাহানওয়াজের আরজি খারিজ করে দিয়ে পুলিশকে মামলা দায়েরের নির্দেশ দেয়। সঙ্গে সঙ্গে অবশ্য সুপ্রিম কোর্টে গিয়েছিলেন বিজেপি নেতা। তাঁর সামাজিক এবং রাজনৈতিক সম্মানের কথা মাথায় রেখে এই মামলার দ্রুত শুনানির আরজি জানান তিনি। কিন্তু সেখানেও তাঁর আরজি খারিজ হয়ে যায়।

[আরও পড়ুন: দেশে ফের দৈনিক আক্রান্ত ১৫ হাজার, কোভিড এখনও বিদায় নেয়নি, ফের সতর্কবার্তা WHO’র]

শাহানওয়াজের বিরুদ্ধে ওঠা এই অভিযোগ, বিজেপিকে কিছুটা হলেও ব্যাকফুটে ফেলল। শাহানওয়াজ বিজেপির প্রথম সারির সংখ্যালঘু নেতা। কিছুদিন আগে পর্যন্ত তিনি বিজেপির কেন্দ্রীয় নির্বাচন কমিটির সদস্য ছিলেন। ছিলেন বিহারের জেডিইউ-বিজেপি জোট সরকারের মন্ত্রীও। এবার তাঁকে আদালতে নিজেকে নির্দোষ বলে প্রমাণ করতে হবে।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে