BREAKING NEWS

০৯  আষাঢ়  ১৪২৯  শনিবার ২৫ জুন ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

বাড়ছে স্বার্থের সংঘাত, কাশ্মীরে দ্বিধাবিভক্ত হিজবুল-লস্কর-আইএস

Published by: Tanujit Das |    Posted: June 30, 2019 4:53 pm|    Updated: June 30, 2019 4:53 pm

Hizbul Mujahideen chief calls for truce as infighting among terror groups

ছবি: প্রতীকী

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দিন দিন বাড়ছে দূরত্ব! এবার নিজেদের মধ্যেই বিবাদে জড়িয়ে পড়ছে জম্মু-কাশ্মীরে আত্মগোপন করে থাকা বিভিন্ন জঙ্গি সংগঠনগুলি৷ স্বার্থের সংঘাত এতটাই প্রখর হয়েছে যে, একে অপরকে খুন করতেও পিছ পা হচ্ছে না জইশ, হিজবুল ও আইএস জঙ্গিরা৷ বিষয়টা যে নিতান্তই ভুল নয়, তার প্রমাণ মিলেছে হিজবুল প্রধান সৈয়দ সালাউদ্দিনের সাম্প্রতিক একটি ভিডিওতে৷ যেখানে, বিবাদ ভুলে উপত্যকার সমস্ত জঙ্গি সংগঠনগুলিকে একসঙ্গে ভারতবিরোধী ষড়যন্ত্রে শামিল হওয়ার বার্তা দিয়েছে এই জঙ্গি নেতা৷

[ আরও পড়ুন: ট্রলির অভাব, চাদরে শুইয়ে মেঝেতে টানতে টানতে এক্স-রে রুমে পৌঁছল রোগী]

গোয়েন্দা সূত্রে খবর, দীর্ঘদিন ধরেই কাশ্মীরের এই জঙ্গি সংগঠনগুলির মধ্যে সংঘাত চলছে৷ সম্প্রতি আইএস জম্মু-কাশ্মীর (ISJK) সংগঠনের এক জঙ্গির মৃত্যুকে কেন্দ্র করে যা তুঙ্গে উঠেছে৷ জানা গিয়েছে, কয়েকদিন আগেই এক লস্কর-ই-তইবার এক জঙ্গির সঙ্গে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে জম্মু-কাশ্মীর আইএস সংগঠনের এক জঙ্গি৷ অনন্তনাগের এলাকায় দু’পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে৷ এছাড়া, হিজবুলের সঙ্গেও সংঘর্ষে জড়ায় আইএসজেকে জঙ্গি সংগঠনটি৷ অনন্তনাগের বিজবেহারা এলাকায় দুই গোষ্ঠী সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়ে৷ সংগর্ঘে মৃত্যু হয় আদিল নামের এক আইএস জঙ্গির৷ গুরুতর চোট পেয়ে সেনার হাতে গ্রেপ্তার হয় আরিফ হুসেন নামের এক হিজবুল জঙ্গি৷ অভিযোগ, আদিলকে হত্যা করেছে হিজবুল৷ যে ঘটনাকে কেন্দ্র করে উপত্যকার জঙ্গি সংগঠনগুলির মধ্যে তুঙ্গে উঠেছে উত্তেজনা৷

[ আরও পড়ুন: দ্বিতীয় ইনিংসের প্রথম ‘মন কি বাত’, জল সংরক্ষণেই জোর মোদির ]

সাম্প্রতিক ভিডিও বার্তায় সেই বিরোধই প্রশমিত করার চেষ্টা করেছে হিজবুল প্রধান৷ আট মিনিটের ভিডিওটিতে সমস্ত জঙ্গি সংগঠনগুলিকে একজোট হওয়ার বার্তা দিয়েছে সৈয়দ সালাউদ্দিন৷ ভারতের বিরুদ্ধে লড়াই যে তাদের মূল লক্ষ্য এটাই বোঝাতে চেয়েছে এই জঙ্গি নেতা৷ জানা গিয়েছে, গত বছরের জুলাই মাসে প্রথমে লস্কর-ই-তইবায় যোগ দিয়েছিল মৃত জঙ্গি আদিল৷ কিন্তু তারপর লস্করের সঙ্গ ছেড়ে জম্মু-কাশ্মীর আইএস-এ নাম লেকায় সে৷ আদিলের মৃত্য যে জঙ্গি গোষ্ঠীগুলির মধ্যে তীব্র বিরোধ সৃষ্টি করেছে, তার প্রমাণ মিলেছে আইএসজেকে-র একটি ভিডিওতে৷ যেখানে সংগঠনটি তোপ দেগেছে লস্কর ও হিজবুলকে৷ দাবি করেছে, কাশ্মীরের স্বাধীনতার নয়, এই দুই সংগঠনের আসল লক্ষ্য কাশ্মীরকে পাকিস্তানের অন্তর্ভূক্ত করা৷ কাশ্মীরের মানুষের জন্য লস্কর ও হিজবুলের কোনও সহমর্মিতা নেই৷ কারণ বারবার এরা কাশ্মীরের মানুষদেরই টার্গেট করে এসেছে৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে