১৪  আশ্বিন  ১৪২৯  বৃহস্পতিবার ৬ অক্টোবর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

১৮ বছর বয়সেই সিরিয়াল কিলার! চারটি খুন করা কিশোরের ভয়ে কম্পমান জেলের বন্দিরাও

Published by: Biswadip Dey |    Posted: September 15, 2022 5:15 pm|    Updated: September 15, 2022 6:21 pm

Madhya Pradesh 'serial killer' Shivprasad Dhurve has been kept in isolation at jail। Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সে সিরিয়াল কিলার (Serial Killer)। কোনও কারণ ছাড়াই চার-চারটে খুন করে ফেলেছে অবলীলায়। এরপর তার ঠাঁই হয়েছে মধ্যপ্রদেশের (Madhya Pradesh) জেলে। সেখানে রয়েছে বাঘা বাঘা অপরাধীরা। কিন্তু সকলেই তার ভয়ে থরহরি কম্পমান। রাজ্যের সাগর সেন্ট্রাল জেলের এক ১৮ বছরের ছেলেকে তাই আলাদা একটা সেলে রেখে দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে জেল কর্তৃপক্ষ। কেবল বন্দিরাই নয়, তার ভয়ে ভীত জেলের রক্ষীরাও!

শিবপ্রসাদ ধ্রুব নামের ওই কিশোর অষ্টম শ্রেণিতে পড়ার সময়ে ৭২ ঘণ্টার ব্যবধানে তিনজন নিরাপত্তারক্ষীকে খুন করে ফেলে। এরপরই পুলিশ তার সন্ধান পেয়ে যায়। ততদিনে ধ্রুবও সন্ধান পেয়েছে নতুন ‘শিকারের’। ফের আরও এক নিরাপত্তা রক্ষীকে খুন করে সে। এর কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই তাকে গ্রেপ্তার না করলে সে যে আরও খুন করে চলত তা নিশ্চিত।

[আরও পড়ুন: এবার আইসিসির পথে সৌরভ, বোর্ডের মসনদে জয় শাহ? সুপ্রিম রায়ের পরই শুরু জল্পনা]

স্বাভাবিক ভাবেই এহেন অপরাধীকে ঘিরে তটস্থ সাগর জেলের সবাই। সংবাদ সংস্থা পিটিআইকে এপ্রসঙ্গে বলতে গিয়ে জেলের সুপারিনটেন্ডেন্ট জানাচ্ছেন, ”ওর অপরাধ প্রবণতা দেখে অন্য বন্দিদের সঙ্গে রাখা হয়নি। আইসোলেশন সেলে রাখা হয়েছে। চারটি খুন-সহ ছ’টা মামলা রয়েছে ওর নামে। এহেন আসামির এখানে আসার কথা জানার পর থেকেই বাকি বন্দিরা নিরাপত্তাহীনতায় ভুগতে শুরু করেছে।”

জানা গিয়েছে, সারাক্ষণ চোখে চোখে রাখা হচ্ছে ধ্রুবকে। সে স্নান করার সময় জেল ওয়ার্ডেন তার কাছাকাছি থাকে। যখন খেতে দেওয়া হয়, খাওয়া শেষ হলেই দ্রুত সেই থালা সেখান থেকে নিয়ে যাওয়া হয়। কেননা মধ্যপ্রদেশের ওই সিরিয়াল কিলার যে কোনও বস্তুকেই ‘অস্ত্র’ বানিয়ে ফেলতে পারে। তাই সাবধানে থাকতে চাইছে সবাই।

গত ২ সেপ্টেম্বর গ্রেপ্তার করা হয়েছে ধ্রুবকে। ৬ তারিখ থেকে সে রয়েছে এই জেলে। এখনও পর্যন্ত জেলে তার সঙ্গে দেখা করতে আসেনি তার কোনও আত্মীয়ই। সত্য়ি কতটা ভয়ংকর ওই সিরিয়াল কিলার? সুপারিনটেন্ডেন্ট জানিয়েছেন, এই ধরনের বন্দিদের মানসিকতা বদলাতে ধর্মীয় ও শিক্ষা বিষয়ক বই পড়তে দেওয়া হয়। কিন্তু জেলে আসার পর থেকেই তার আচরণ এখনও পর্যন্ত সম্পূর্ণ স্বাভাবিক বলেই দাবি তাঁর। তবু তার ভয়ংকর অতীতের কথা ভেবেই বাকি সকলে তটস্থ হয়ে রয়েছে। ধ্রুবকে অবশ্য ভাবলেশহীন ভাবেই বসে থাকতে দেখা যাচ্ছে সেলের ভিতর।

[আরও পড়ুন: পুতিনকে হত্যার ছক, অল্পের জন্য রক্ষা রুশ প্রেসিডেন্টের]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে