৩০ শ্রাবণ  ১৪২৭  শনিবার ১৫ আগস্ট ২০২০ 

Advertisement

বন্ধ ইন্টারনেট, টুইটারে মোদির আশ্বাসবাণী দেখতেই পেলেন না অসমবাসী!

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: December 12, 2019 1:40 pm|    Updated: December 12, 2019 1:40 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল নিয়ে অসম যে উত্তপ্ত হবে, তা একপ্রকার প্রত্যাশিতই ছিল। তবে, যে পরিমাণ বিক্ষোভ অসমের বিস্তির্ণ অঞ্চলে দেখা যাচ্ছে, তা হয়তো প্রত্যাশা করেনি কেন্দ্র বা রাজ্য সরকার। সেকারণেই CAB-বিরোধী বিক্ষোভে প্রলেপ দিতে আসরে নামতে হল খোদ প্রধানমন্ত্রীকে। টুইট করে অসমবাসীকে মোদি আশ্বস্ত করলেন যে, তাঁদের কোনও অধিকার নতুন এই সংশোধনী বিল কেড়ে নেবে না। কিন্তু সমস্যাটা হল, প্রধানমন্ত্রী যখন অসমবাসীর উদ্দেশে এই আশ্বাসবাণী দিলেন, ততক্ষণে অসমে ইন্টারনেট পরিষেবা বন্ধ হয়ে গিয়েছে। এমনটাই দাবি কংগ্রেসের।


নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল সংসদে পেশ হওয়ার পর থেকেই উত্তপ্ত অসম। বুধবার লোকসভার পর রাজ্যসভাতেও পাশ হয়ে গিয়েছে বিলটি। এবার অপেক্ষা শুধু রাষ্ট্রপতির স্বাক্ষরের। তারপরই, বিল থেকে আইন হয়ে যাবে নাগরিকত্ব সংশোধনীর খসড়া। রাজ্যসভায় বিলটি পাশ হওয়ার পর বিক্ষোভ আরও বেড়েছে অসমজুড়ে। সকাল থেকেই রাজধানী দিসপুর, গুয়াহাটি-সহ বঙ্গাইগাঁও, গোলাঘাট, তিনসুকিয়া, ডিব্রুগড়, শিবসাগর, জোরহাট, মাজুলির মতো জেলাগুলিতে পথ অবরোধ শুরু হয়েছে। গুয়াহাটি ও ডিব্রুগড়ের রাস্তায় ফ্ল্যাগ মার্চ করছে সেনা। বিপদ বুঝে একাধিক অঞ্চলে সেনা ও আধা সামরিক বাহিনীর জওয়ানদের মোতায়েন করেছে প্রশাসন। গতকাল সন্ধে থেকে প্রায় গোটা রাজ্যে ইন্টারনেট পরিষেবা বন্ধ করে দেওয়া হয়েছে।  মুখ্যমন্ত্রী সর্বানন্দ সোনওয়াল থেকে শুরু করে আক্রান্ত বিজেপির একাধিক নেতা-মন্ত্রীরা। পরিস্থিতির দ্রুত অবনতি হওয়ায় বাতিল করা হয়ছে ২১টি ট্রেন। গুয়াহাটি বিমানবন্দর থেকে বাতিল একাধিক বিমান পরিষেবা।

[আরও পড়ুন: নাগরিকত্ব সংশোধনী বিলের বৈধতাকে চ্যালেঞ্জ, সুপ্রিম কোর্টে মামলা ইন্ডিয়ান মুসলিম লিগের]


পরিস্থিতি বেগতিক দেখে শেষপর্যন্ত আসরে নামেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। টুইট করে তিনি বললেন, “আমি অসমের ভাইবোনেদের আশ্বস্ত করছি, নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল পাশ হওয়া নিয়ে আপনাদের ভয় পাওয়ার কিছু নেই। আমি আপনাদের আশ্বস্ত করতে চাই, কেউ আপনাদের সংস্কৃতি এবং পৃথক পরিচয়ের অধিকার কেড়ে নিতে পারবে না। এটা ভবিষ্যতে আরও সমৃদ্ধ হবে।” মোদির টুইটের কিছুক্ষণের মধ্যেই আসরে নামে কংগ্রেস। তাঁদের পালটা দাবি, “প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বোধ হয় ভুলে গিয়েছেন, অসমে ইন্টারনেট বন্ধ। তাই তাঁর দেওয়া ‘আশ্বাসবাণী’ অসমের ভাই-বোনেরা পড়তেই পারবেন না।”

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement