১২ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  সোমবার ২৯ নভেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

ফাঁকা চেয়ারের ছবি তোলায় চিত্র সাংবাদিককে মারধর কংগ্রেস কর্মীদের, দেখুন ভিডিও

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: April 7, 2019 3:45 pm|    Updated: May 21, 2020 8:26 am

Congress workers beat up journalist for taking photos of empty chairs.

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সম্প্রতি কেরলের ওয়ানড়ে মনোনয়ন জমা দিতে গিয়ে এক জখম সাংবাদিককে সাহায্য করেছিলেন কংগ্রেস সভাপতি রাহুল গান্ধী। এমনকী ওই সাংবাদিককে যখন স্ট্রেচারে তোলা হচ্ছে তখন তাঁর জুতো হাতে নিয়ে দাঁড়িয়ে থাকা প্রিয়াঙ্কা গান্ধীর ছবিও এখন ভাইরাল। রাজনীতির শীর্ষস্তরে থেকেও দুই ভাইবোনের এহেন আচরণ যখন দেশব্যাপী প্রশংসা কুড়োচ্ছে তখনই তামিলনাড়ুর কংগ্রেস কর্মীদের একাংশের আচরণ যেন তাতে ‘চোনা’ ঢেলে দিল।

[আরও পড়ুন-মিসাইলের টুকরো ভারতে কীভাবে? এফ-১৬ নিয়ে মার্কিন পত্রিকার তথ্যকে চ্যালেঞ্জ সীতারমণের]

শনিবার তামিলনাড়ুর বিরুধুনগর জেলায় কংগ্রেসের একটি নির্বাচনী জনসভা ছিল। তাতে উপস্থিত থাকা কথা ছিল কংগ্রেসের রাজ্য সভাপতি কে এস আলাগিরি-সহ অন্যান্য নেতাদের। কিন্তু, সভায় লোকজন ছিল একেবারেই হাতেগোনা। আর স্টেজের চারদিকে ভিড় করে ছিলেন কংগ্রেস কর্মী-সমর্থকরা। ফলে মঞ্চের সামনে ফাঁকা ছিল বহু চেয়ার। মিটিং শুরুর আগে তারই ছবি তুলছিলেন তামিলনাড়ু এক সাপ্তাহিক পত্রিকার চিত্র সাংবাদিক আর এম মুথুরাজ। তা দেখতে পেয়ে দৌড়ে আসেন কংগ্রেস কর্মীরা। তারপর মুথুরাজকে বেধড়ক চড় থাপ্পড় মারেন। এমনকী তাঁর ক্যামেরাও ছিনিয়ে নেওয়ার চেষ্টা হয়।

[আরও পড়ুন- ফের ক্ষমতায় ফিরলে পরিবার পিছু বছরে ২ লক্ষ, বিরাট প্রতিশ্রুতি চন্দ্রবাবুর]

বিষয়টি দেখে রুখে দাঁড়ান ওখানে উপস্থিত বাকি সাংবাদিকরা। শেষ পর্যন্ত তাঁদের চেষ্টাতেই মুথুরাজকে উদ্ধার করে স্থানীয় একটি হাসপাতালে ভরতি করা সম্ভব হয়। বর্তমানে ওই চিত্র সাংবাদিক মুথুরাজ এই ঘটনার বিষয়ে স্থানীয় থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেছেন। তাঁর অভিযোগের ভিত্তিতে পুলিশ ঘটনাটির তদন্ত শুরু করলেও এখনও পর্য্ন্ত কেউ গ্রেপ্তার হয়নি। এরপরই ওই সময়ে তোলা একটি ভিডিও টুইটারে পোস্ট করে কংগ্রেসের তীব্র সমালোচনা করেন তামিলনাড়ুর বিজেপি নেতা এস জি সূর্য। ওই কংগ্রেস কর্মীদের গুন্ডা বলেও উল্লেখ করেন তিনি।

[আরও পড়ুন- বাড়িতে ঢুকে জওয়ানকে হত্যা, জঙ্গি হামলায় আতঙ্ক জম্মু-কাশ্মীরের সোপোরে]

বৃহস্পতিবার কেরলের ওয়ানড়ে রাহুলের মনোনয়ন জমা দেওয়ার দিন, সমর্থকদের চাপে সাংবাদিকদের জন্য করা পৃথক ব্যারিকেড ভেঙে যায়। এর জেরে জখম হন তিনজন সাংবাদিক। বিষয়টি দেখতে পেয়েই তাঁদের চিকিৎসার জন্য তৎপর হয়েছিলেন কংগ্রেসের দুই শীর্ষ নেতা। তবে, এই প্রথম নয়। এর আগেও একাধিকবার কংগ্রেস সভাপতিকে দেখা গিয়েছে অসুস্থ সাংবাদিকদের সাহায্য এগিয়ে আসতে। মাস দু’য়েক আগেই ওড়িশা সফর চলাকালীন রাহুলের ছবি তুলতে গিয়ে পড়ে যান এক সাংবাদিক। দ্রুত তাঁর সাহায্যে এগিয়ে আসেন কংগ্রেস সভাপতি। আবার গত মাসেই দিল্লিতে দুর্ঘটনাগ্রস্ত এক সাংবাদিককে নিজ দায়িত্বে হাসপাতালে পৌঁছে দিয়ে সংবাদের শিরোনামে এসেছিলেন তিনি।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে